চাঁদপুর, শুক্রবার ১১ অক্টোবর ২০১৯, ২৬ আশ্বিন ১৪২৬, ১১ সফর ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৬ সূরা-ওয়াকি'আঃ


৯৬ আয়াত, ৩ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


৮০। ইহা জগৎসমূহের প্রতিপালকের নিকট হইতে অবতীর্ণ।


৮১। তবুও কি তোমরা এই বাণীকে তুচ্ছ গণ্য করিবে?


৮২। এবং তোমরা মিথ্যারোপকেই তোমাদের উপজীব্য করিয়া লইয়াছো!


 


 


 


 


 


assets/data_files/web

হিংসা একটা দরজা বন্ধ করে অন্য দুটো খোলে।


-স্যামুয়েল পালমার।


 


 


নামাজ বেহেশতের চাবি এবং অজু নামাজের চাবি।


 


 


 


ফটো গ্যালারি
বিশ্ব দৃষ্টি দিবস উদযাপন
প্রেস বিজ্ঞপ্তি
১১ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


মাজহারুল হক বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের আয়োজনে আন্তর্জাতিক সহযোগী সংস্থা অরবিস ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের সহায়তায় ন্যাশনাল চাইল্ডহুড বস্নাইন্ডনেস প্রজেক্ট (এনসিবিপি)-এর আওতায় গতকাল ১০ অক্টোবর বৃহস্পতিবার 'বিশ্ব দৃষ্টি দিবস-২০১৯' যথাযোগ্য মর্যাদায় উদযাপন করা হয়েছে। 'সবার আগে দৃষ্টি' এ সস্নোগানে দিবসটি উদযাপন উপলক্ষে র‌্যালি ও হাসপাতালের সম্মেলন কক্ষে আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। হাসপাতালের কার্যনির্বাহী পরিষদের সহ-সভাপতি মোঃ জাহাঙ্গীর আখন্দ সেলিমের সভাপ্রধানে হাসপাতালের কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্যবৃন্দ, উপদেষ্টা পরিষদ সদস্যবৃন্দ, আজীবন সদস্যবৃন্দ, সাধারণ পরিষদ সদস্যবৃন্দ, চাঁদপুর জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ, লেডী প্রতিমা মিত্র বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকা ও ছাত্রীবৃন্দসহ হাসপাতালের চিকিৎসক, কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ উক্ত সভায় অংশগ্রহণ করেন।



সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুরের অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মাহমুদ জামান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোঃ জাহেদ পারভেজ চৌধুরী, সিভিল সার্জন অফিসের মেডিকেল অফিসার ডাঃ মোঃ গোলাম কাওসার ও হাসপাতালের কোষাধ্যক্ষ সুভাষ চন্দ্র রায়।



হাসপাতালের ম্যানেজার এডমিনিস্ট্রেশন শামীম খানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে হাসপাতালের সার্বিক কার্যক্রমের ভূয়সী প্রশংসা করেন এবং চক্ষু চিকিৎসাসেবার প্রসার ও বিস্তারের জন্যে হাসপাতাল কর্তৃক বাস্তবায়িত প্রকল্পসমূহের গুরুত্ব তুলে ধরেন। হাসপাতালের কার্যক্রম তৃণমূল পর্যায়ে বিস্তারের লক্ষ্যে চাঁদপুর ও আশপাশের জেলাসমূহের প্রত্যন্ত অঞ্চলে চক্ষু শিবির, সভা, সেমিনার, প্রশিক্ষণ, উন্নয়ন মেলা, তথ্যমেলা ইত্যাদি কার্যক্রমে নিয়মিত সেবা প্রদানের বিষয়ে গুরুত্বারোপ করেন। হাসপাতালের সেবার মান সর্বোচ্চ পর্যায়ে উন্নীত করার বিষয়ে তিনি পরামর্শ প্রদান করেন। তিনি দাতা সংস্থা অরবিস ইন্টারন্যাশনালকে দিবসটি পালনের জন্যে বিশেষভাবে ধন্যবাদ জানান।



পবিত্র কোরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন হাসপাতালের কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্য তমাল কুমার ঘোষ। তিনি মাজহারুল হক বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালের চিকিৎসা সেবা প্রসারের নিমিত্তে বাস্তবায়িত প্রকল্পসমূহের বিষয়ে উপস্থিত সকলকে অবগত করেন। হাসপাতালটি অন্ধত্ব নিবারণে যেভাবে সেবার ধরণ প্রসার করে আসছে এবং বিশ্ব দৃষ্টি দিবস উদ্যাপনের মতো জনসচেতনতা বৃদ্ধিমূলক কার্যক্রম বাস্তবায়ন করছে, ফলে আগামী অল্প সময়ে অত্র অঞ্চলে অন্ধত্বের হার শূন্যের কোটায় নেমে আসবে।



আলোচনা সভায় সভাপতি ন্যাশনাল চাইল্ডহুড বস্নাইন্ডনেস প্রকল্পের মাধ্যমে বিশ্ব দৃষ্টি দিবস উদ্যাপনে সহযোগিতা করার জন্যে উন্নয়ন সহযোগী সংস্থা অরবিস ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশ এবং হাসপাতালের কার্যনির্বাহী পরিষদের সকল সদস্য, কর্মকর্তা-কর্মচারীগণকে ধন্যবাদ জানান। তিনি হাসপাতালের উত্তরোত্তর সফলতা কামনা করে আলোচনা সভার সমাপ্তি ঘোষণা করেন।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৬৬৭১৮১
পুরোন সংখ্যা