চাঁদপুর, সোমবার ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ সফর ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৬ সূরা-ওয়াকি'আঃ


৯৬ আয়াত, ৩ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


৮০। ইহা জগৎসমূহের প্রতিপালকের নিকট হইতে অবতীর্ণ।


৮১। তবুও কি তোমরা এই বাণীকে তুচ্ছ গণ্য করিবে?


৮২। এবং তোমরা মিথ্যারোপকেই তোমাদের উপজীব্য করিয়া লইয়াছো!


 


 


 


 


 


হিংসা একটা দরজা বন্ধ করে অন্য দুটো খোলে।


-স্যামুয়েল পালমার।


 


 


নামাজ বেহেশতের চাবি এবং অজু নামাজের চাবি।


 


 


 


ফটো গ্যালারি
হাসান আলী হাইস্কুল মাঠে ফুরফুরা শরীফের মাহফিল
পীর-মাশায়েখের রক্তঝরা খেদমতে এদেশে হাজারো কামিল মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠিত হয়েছে
---------ফুরফুরার পীর ছাহেব
মুহাম্মদ আবদুর রহমান গাজী
১৪ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


ফুরফুরা দরবার শরীফের গদ্দিনশীন পীর আল্লামা আবু বকর আব্দুল হাই মিশকাত সিদ্দিকী আল-কোরাইশী বলেছেন, জুমার নামাজসহ পাঁচ ওয়াক্ত নামাজের পর দোয়া করা অধিক সওয়াবের কাজ। ফরজ নামাজের পর মোনাজাত নামাজের অংশ না হলেও এতে সওয়াব রয়েছে। কারণ এ সময় দোয়া কবুল হয়। আমরা বেশি বেশি আল্লাহকে স্মরণ করবো যথাসময়ে সালাত আদায় করবো। এটা আল্লাহর নির্দেশ। আমরা সবাই সালাতের প্রতি গুরুত্ব দিয়ে আমাদের সন্তানদেরকে সালাত আদায়ের তাগিদ প্রদান করবো। যে ব্যক্তি আল্লাহকে বিশ্বাস করে সে যেনো তার মেহমানকে সম্মান করে।



তিনি আরো বলেন, আজকে সমাজের এক শ্রেণীর লোক ধর্ম নিয়ে বিভ্রান্তিমূলক কথা বলে। তাদের পূর্বপুরুষরা কিন্তু হক্কানী পীর-মাশায়েখদের অনুসরণ করতেন। আজ তাদের সন্তানরা পীর-মাশায়েখদের প্রতিষ্ঠিত মাদ্রাসায় পড়াশোনা করে পিতা-মাতার বিরুদ্ধে বিভিন্ন উদ্ভট কথাবার্তা বলছেন। ভারত উপমহাদেশের মধ্যে পীর-মাশায়েখগণের রক্তঝরা খেদমতে এদেশে হাজারো কামিল মাদ্রাসা প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। আজকে সে মাদ্রাসায় পড়ে তার পূর্বপুরুষদের গালি দিচ্ছে। তারা উচ্চ ডিগ্রির নাম নিয়ে মানুষের মাঝে ফেতনা সৃষ্টি করছে।



গত শনিবার বাদ আসর চাঁদপুর হাসান আলী সরকারি হাইস্কুল মাঠে ওয়াজ ও দোয়ার মাহফিলে তিনি প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন।



চাঁদপুর ওসমানিয়া ফাযিল মাদ্রাসার উপাধ্যক্ষ মাওঃ বিএম মোস্তফা কামালের সঞ্চালনায় মাহফিলে বক্তব্য রাখেন ফুরফুরা দরবারের প্রধান মুফতি সাঈদ আহমদ মুজাদ্দেদী, হাজীগঞ্জ আহমদিয়া কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওঃ মোঃ সিরাজুল ইসলাম, নারায়ণগঞ্জের মাওঃ মোঃ শামসুল ইসলাম জাহিদী, ফুরফুরা দরবারের মুবালি্লগ মাওঃ আবু ইউসুফ প্রমুখ। মাহফিলে কোরআন তেলাওয়াত, হামদ-নাতে রাসুল (সাঃ) পরিবেশেন করেন দারুচ্ছুন্নাত হাবিবিয়া সিদ্দিকিয়া মাদ্রাসা ও আল-জামিয়াতুল ইসলামিয়ার ছাত্ররা।



মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ মসজিদের খতিব হাফেজ মাওঃ নিজামুল হক, চাঁদপুর বিদ্যুৎ অফিস জামে মসজিদের খতিব মাওঃ শহীদ উল্লাহ, বিশিষ্ট চিকিসৎক ডাঃ মিজানুর রহমান খান, কিতাব উদ্দিন জামে মসজিদের খতিব মাওঃ মোঃ তাজুল ইসলামসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।



পীর ছাহেব নারী শিক্ষার ব্যাপারে বলেন, নারীরা ধর্মীয় শিক্ষায় পিছিয়ে পড়েছে। তাদেরকে ধর্মীয় শিক্ষা আমাদেরই দিতে হবে। আর যদি ধর্মীয় শিক্ষা তাদের না দেই তাহলে শয়তানের ধোঁকায় পড়বে। এতে ক্ষতি আমাদেরই হবে। তাই পুরুষের মাদ্রাসার পাশাপাশি মহিলা মাদ্রাসাও প্রতিষ্ঠা করতে হবে।



তিনি আরো বলেন, আমরা শুধু মসজিদের মুসলমান নই। সবসময়ই মুসলমান থাকতে হবে। তাহলে ওই মুসলমান দ্বারা দুর্নীতি হতে পারে না। সবসময়ের মুসলমান সুদ-ঘুষ খায় না, দেয় না। কারণ এটা সর্বাবস্থায় হারাম। আজকে সমাজের বড় অবক্ষয় হলো কুরআনের আইন না মানা।



 



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
২২৩৪৯৭
পুরোন সংখ্যা