চাঁদপুর, সোমবার ২১ অক্টোবর ২০১৯, ৫ কার্তিক ১৪২৬, ২১ সফর ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৭-সূরা হাদীদ


২৯ আয়াত, ৪ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


 


 


০৩। তিনিই আদি, তিনিই অন্ত; তিনিই ব্যক্ত ও তিনিই গুপ্ত এবং তিনি সর্ববিষয়ে সম্যক অবহিত।


৪। তিনিই ছয় দিবসে আকাশম-লী ও পৃথিবী সৃষ্টি করিয়াছেন; অতঃপর 'আরশে সমাসীন হইয়াছেন। তিনি জানেন যাহা কিছু ভূমিতে প্রবেশ করে ও যাহা কিছু উহা হইতে বাহির হয় এবং আকাশ হইতে যাহা কিছু নামে ও আকাশে যাহা কিছু উত্থিত হয়। তোমরা যেখানেই থাক না কেনো_তিনি তোমাদের সঙ্গে আছেন, তোমরা যাহা কিছু করো আল্লাহ তাহা দেখেন।


 


সংশয় যেখানে থাকে সফলতা সেখানে ধীর পদক্ষেপে আসে।


-জন রে।


 


 


যে ব্যক্তি উদর পূর্তি করিয়া আহার করে, বেহেশতের দিকে তাহার জন্য পথ উন্মুক্ত হয় না।


 


যে শিক্ষা গ্রহণ করে তার মৃত্যু নেই।


 


ফটো গ্যালারি
রানা বিল্ডার্স : একাই সব কাজ
এএইচএম আহসান উল্লাহ
২১ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


এ মনে হলো যেনো আরেক জিকে শামীম। সড়ক ও জনপথ বিভাগের সকল কাজ 'রানা বিল্ডার্স' নামে একটি ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের আয়ত্বে। এর স্বত্বাধিকারীর পুরো নাম জানা না গেলেও এতটুকু জানা গেছে যে, তিনি 'পাখি' ভাই নামে পরিচিত। তার ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান রানা বিল্ডার্স একাই সড়ক ও জনপথ বিভাগের অনেক কাজ করছে। যে কাজগুলোর প্রাক্কলিত ব্যয় হবে হাজারো কোটি টাকা। এ চিত্র ফুটে ওঠে চাঁদপুর সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলীর তুলে ধরা গত দশ বছরে চাঁদপুর জেলায় সওজের কাজের বিবরণ দেখে।



গতকাল রোববার চাঁদপুর জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন পরিকল্পনা সচিব মোঃ নূরুল আমিন। সভায় সরকারের বিভিন্ন উন্নয়ন ও সেবামূলক প্রতিষ্ঠানগুলোর গত দশ বছরের উন্নয়ন কর্মকা- তুলে ধরা হয়। সেখানে চাঁদপুর সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী কুমিল্লা-চাঁদপুর-লক্ষ্মীপুর মহাসড়কসহ আঞ্চলিক সড়কগুলোর কাজের চিত্র তুলে ধরেন। এতে দেখা গেলো যে, এই দশ বছরে সড়কের সকল কাজ রানা বিল্ডার্স নামে ঠিকাদার প্রতিষ্ঠান করছে। এটি সভায় উপস্থিত সকলের নজরে পড়ে। প্রথমত এ বিষয়টি নজরে আনেন ফরিদগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডঃ জাহিদুল ইসলাম রোমান। তিনি পরিকল্পনা সচিবের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, দেখুন সব কাজ রানা বিল্ডার্সের নামে। একটা কাজও অন্য কোনো ফার্মের নামে নেই। তাহলে এতে কী বুঝা যাচ্ছে? আর এরা এতোটা প্রভাবশালী যে তারা এমপি মন্ত্রীদেরও কেয়ার করেন না, তাদের ফোন ধরেন না। রোড্স অফিসগুলো থাকে তাদের নিয়ন্ত্রণে। এরা কাজ বছরের পর বছর ফেলে রাখলেও তাদের কেউ কিছু বলতে পারে না। তারা কারো কথা শুনেও না। এ প্রসঙ্গে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (হেড কোয়ার্টার) মোঃ আসাদুজ্জামানও বক্তব্য রাখেন এবং ওই প্রতিষ্ঠানকে জিকে শামীমের সাথে তুলনা করে বলেন, ওই রকম জিকে শামীম সব জায়গায়ই আছে। এসব বিষয়ে আমাদের সকলকে সোচ্চার হতে হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যে কঠিন পদক্ষেপ নিয়েছেন, সে বিষয়ে আমাদের সকলের সতর্ক হতে হবে।



এ প্রসঙ্গে জেলা প্রশাসক চাঁদপুর সওজের নির্বাহী প্রকৌশলীর কাছে জানতে চান, এই কাজগুলোর টেন্ডার হয় কোথা থেকে? জবাবে নির্বাহী প্রকৌশলী বলেন, কুমিল্লা থেকে। পরিকল্পনা সচিবও এ বিষয়টি গুরুত্বের সাথে নেন। তিনি বিষয়টি দেখবেন বলে জানান।



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
১০১৭৪২৪
পুরোন সংখ্যা