চাঁদপুর, শুক্রবার ৮ নভেম্বর ২০১৯, ২৩ কার্তিক ১৪২৬, ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৯-সূরা হাশ্‌র


২৪ আয়াত, ৩ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


১০। যাহারা উহাদের পরে আসিয়াছে, তাহারা বলে, 'হে আমাদের প্রতিপালক! আমাদিগকে এবং ঈমানে অগ্রণী আমাদের ভ্রাতাগণকে ক্ষমা কর এবং মুমিনদের বিরুদ্ধে আমাদের অন্তরে বিদ্বেষ রাখিও না। হে আমাদের প্রতিপালক! তুমি তো দয়ার্দ্র, পরম দয়ালু।'


 


 


 


assets/data_files/web

কারো অতীত জেনো না তার বর্তমানকে জানো এবং সে জানাই যথার্থ। -এডিসন।


 


 


যারা অতি অভাবগ্রস্ত, দীন-দরিদ্র কেবল তারা ভিক্ষা করতে পারে।


 


ফটো গ্যালারি
সড়ক পরিবহন আইন হয়েছে মূলত সকলের কল্যাণে
-------------পুলিশ সুপার মোঃ মাহবুবুর রহমান পিপিএম (বার)
০৮ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


সড়ক পরিবহন আইন-২০১৮ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে চাঁদপুরে পরিবহন মালিক ও শ্রমিকদের নিয়ে জনসচেতনতামূলক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বৃহস্পতিবার ৭ নভেম্বর সকাল ১১টায় শহরের বাসস্ট্যান্ড এলাকায় কর্মশালার আয়োজন করে চাঁদপুর জেলা পুলিশ। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন চাঁদপুরের পুলিশ সুপার মোঃ মাহবুবুর রহমান পিপিএম (বার)।



প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, আমরা যদি সঠিক পথে চলতে চাই, তাহলে একটি নিয়ম পদ্ধতির মধ্যে থাকতে হবে। নিয়ম পদ্ধতি না মানলে ওই বিষয়টি সফল হয় না। সড়ক ও পরিবহন আইন বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে আমাদেরকে সঠিক নিয়ম পদ্ধতি দাঁড় করাতে হবে।



তিনি বলেন, সড়ক পরিবহন আইন মেনে চলার জন্য আমরা ৩টি বিষয় অর্থাৎ চালক, যাত্রী এবং মালিকের করণীয় সম্পর্কে লিফলেট তৈরি করেছি। আমি এর সাথে আরো ৩টি বিষয় যোগ করতে চাই। তা হচ্ছে শ্রমিক, বিআরটিএ ও পুলিশের করণীয়। মালিক, চালক, শ্রমিক, যাত্রী, পুলিশ, বিআরটিএর মধ্যে একটি পদ্ধতি দাঁড় করানো প্রয়োজন। এর মধ্যে আমি মনে করি পুলিশের কী করণীয় এটি হচ্ছে গুরুত্বপূর্ণ। পুলিশ কী কাজ করবে তা আপনাদের সামনে স্পষ্ট হতে হবে। পুলিশের কাজ হলো নিজে আইন সম্পর্কে জানা এবং বাকি ৫ বিভাগের মানুষকে বুঝানো। আইন সম্পর্কে প্রত্যেককে ধারণা দিতে হবে। অর্থাৎ আইন না মানলে তার কোন্ ধরনের শাস্তি হতে পারে।



পুলিশ সুপার বলেন, আমি যে ৬ শ্রেণীর লোকদের কথা বলেছি, তারা সকলে যদি কাজ করেন তাহলে সড়ক ও পরিবহন আইন বাস্তবায়ন সহজ হবে এবং সড়কে অবশ্যই শৃঙ্খলা ফিরে আসবে। আইনের মাধ্যমে জরিমানা করা আমাদের উদ্দেশ্যে নয়। আমাদের উদ্দেশ্যে হচ্ছে সংশোধন করা এবং নিয়মটাকে চালু করা। সড়ক পরিবহন আইন হয়েছে মূলত সকলের কল্যাণের জন্য।



চাঁদপুর বাস মালিক সমিতির সভাপতি আবু নঈম পাটওয়ারীর দুলালের সভাপতিত্বে আরো বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, চাঁদপুর পৌরসভার সাবেক চেয়ারম্যান ও পদ্মা বাস পরিবহনের পরিচালক সফিকুর রহমান ভূঁইয়া, চাঁদপুর মডেল থানার ওসি নাসিম উদ্দিন, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক লক্ষ্মণ চন্দ্র সূত্রধর, শ্রমিক ইউনিয়ন সভাপতি মোঃ বাবুল মিজি, জেলা মোটর শ্রমিকলীগের সভাপতি মোঃ আনোয়ার গাজী, মিনিবাস মালিক সমিতির শোয়েবুর রহমান, হিলশা পরিবহনের পরিচালক মোঃ কামাল হোসেন পাটওয়ারী প্রমুখ। কর্মশালা সঞ্চালনায় ছিলেন সদর সার্জেন্ট মোঃ রবিউল আলম। উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোঃ জাহেদ পারভেজ চৌধুরী, টিআই মোঃ সাইফুল আলম, সার্জেন্ট সুব্রতসহ মালিক ও শ্রমিক নেতৃবৃন্দ। কর্মশালা শেষে পুলিশ সুপারের নেতৃত্বে বাস স্ট্যান্ড এলাকায় জনসচেতনতামূলক লিফলেট বিতরণ করা হয়।



 



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
৫৯৪৬২২
পুরোন সংখ্যা