চাঁদপুর, বৃহস্পতিবার ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ২৯ কার্তিক ১৪২৬, ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৭২-সূরা জিন্ন্


২৮ আয়াত, ২ রুকু, মক্কী


৫। অথচ আমরা মনে করিতাম মানুষ এবং জিন্ন্ আল্লাহ সম্বন্ধে কখনও মিথ্যা আরোপ করিবে না।


৬। 'আরও এই যে, কতিপয় মানুষ কতক জিন্ন্রে শরণ লইত, ফলে উহারা জিন্নদের আত্মম্ভরিতা বাড়াইয়া দিত।'


 


assets/data_files/web

-কনফুসিয়াম।


 


 


 


 


যে নামাজে হৃদয় নম্র হয় না, সে নামাজ খোদার নিকট নামাজ বলিয়াই গণ্য হয় না।


 


 


ফটো গ্যালারি
মোবাইল টাওয়ারের ব্যাটারী চুরি করতে গিয়ে যুবকের মৃত্যু
বাবুল মুফতী
১৪ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


মতলব উত্তরে মোবাইল ফোন কোম্পানীর টাওয়ারের ব্যাটারী চুরি করতে গিয়ে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। বুধবার ১৩ নভেম্বর রাত ৩টার দিকে মোঃ সেলিম (৩০) নামের ওই যুবক উপজেলার নবুরকান্দি বাজার সংলগ্ন একটি টাওয়ারে চুরি করতে গেলে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করা হয়েছে।



প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্র জানায়, দক্ষিণ গাজীপুর গ্রামের মৃত আরব আলীর ছেলে মোঃ সেলিমসহ চোরের দল চুরি করতে যায়। সেখানে সেলিম রুমের ভেতরে আটকে যায়। রাতে এক জেলে রাস্তা দিয়ে যাওয়ার সময় তার গোঙ্গানির শব্দ শুনে আশপাশের লোকজন ডেকে আনে। লোকজন এলেও বিদ্যুতের শর্টসার্কিট ভেবে কেউ তাকে উদ্ধারে এগিয়ে যায়নি। পরে সকালের দিকে খবর পেয়ে পুলিশ তাকে জীবিত উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে কর্মরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। তার মৃত্যুর কারণ হতে পারে বিদ্যুতায়িত হওয়া। মারপিটের কোনো চিহ্ন পাওয়া যায়নি। তার সাথে আরো কয়েকজন চোর ছিল বলে ধারণা করছে পুলিশ।



মতলব উত্তর থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ নাসির উদ্দিন মৃধা বলেন, পুলিশ যখন তাকে উদ্ধার করে তখন তার শরীর একেবারেই নিস্তেজ ছিল। নিহতের শরীরে বড় ধরনের কোনো আঘাতের চিহ্ন পাওয়া যায়নি। মরদেহ পোস্টমর্টেমে পাঠানো হয়েছে, রিপোর্ট আসলেই সত্য বেরিয়ে আসবে। ধারণা করা হচ্ছে ব্যাটারী চুরির ঘটনায় আরো লোক জড়িত আছে।



নিহতের মা জানান, সে রাতের খাবার খেয়ে বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায়। পরে রাত চারটার দিকে তাদের মোবাইল ফোনে কল আসে সে টাওয়ারে আটকানো আছে। তারা বিষয়টিকে গুরুত্বপূর্ণ মনে করেনি। নিহত সেলিম দুই সন্তানের জনক।



 



 



 


এই পাতার আরো খবর -
করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ১,৯০,০৫৭ ১,৩০,৪২,৩৪০
সুস্থ ১,০৩,২২৭ ৭৫,৮৮,৫১০
মৃত্যু ২,৪২৪ ৫,৭১, ৬৮৯
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
৯৮৪১২
পুরোন সংখ্যা