চাঁদপুর, মঙ্গলবার ১৯ নভেম্বর ২০১৯, ৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ২১ রবিউল আউয়াল ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৮-সূরা মুজাদালা


২২ আয়াত, ৩ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


০৪। কিন্তু যাহার এ সামর্থ্য থাকিবে না, একে অপরকে স্পর্শ করিবার পূর্বে তাহাকে একাদিক্রমে দুই মাস সিয়াম পালন করিতে হইবে; যে তাহাতেও অসমর্থ, সে ষাটজন অভাবগ্রস্তকে খাওয়াইবে; ইহা এইজন্য যে, তোমরা যেনো আল্লাহর ও তাহার রাসূলে বিশ্বাস স্থাপন করো। এইগুলি আল্লাহর নির্ধারিত বিধান; কাফিরদের জন্য রহিয়াছে মর্মন্তুদ শাস্তি।


 


 


 


খাদ্য খাওয়া ও খাওয়ানোর চেয়ে খাদ্য উৎপাদনই মহত্তর কাজ।


-তাবিব।


 


 


যার দ্বারা মানবতা উপকৃত হয়, মানুষের মধ্যে তিনি উত্তম পুরুষ।


 


 


 


 


ফটো গ্যালারি
চাঁদপুর আয়কর মেলায় উপচেপড়া ভিড়, করদাতাদের ব্যাপক সাড়া
মিজানুর রহমান
১৯ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


চাঁদপুর স্টেডিয়ামের প্যাভিলিয়নে জমজমাট হয়ে উঠেছে ৪ দিনব্যাপী আয়কর মেলা-২০১৯। সকাল থেকেই করদাতারা ভিড় করছেন মেলার স্টলগুলোতে। কেউ নিচ্ছেন কর নিবন্ধন (ই-টিআইএন), কেউ বা জমা দিচ্ছেন রিটার্ন। প্রথমবারের মতো মোবাইল ব্যাংকিংয়ের মাধ্যমেও আয়কর জমা দেয়া যাচ্ছে। হেল্প ডেস্ক থেকে শুরু করে কর অঞ্চলের প্রতিটি বুথে সব শ্রেণি-পেশার করদাতাদের উপচে পড়া ভিড় দেখা গেছে। গতকাল ১৮ নভেম্বর পর্যন্ত প্রায় দুই হাজার জন আয়কর রিটার্ন জমা দিয়েছেন বলে মেলা সূত্রে জানা যায়।



আজ ১৯ নভেম্বর বিকেল ৫টা পর্যন্ত চলবে মেলার কার্যক্রম। গত ১৬ নভেম্বর শনিবার থেকে শুরু হয় এই মেলা। এবারের সস্নোগান 'সবাই মিলে দেব কর, দেশ হবে স্বনির্ভর'। এবারের প্রতিপাদ্য 'কর প্রদানে স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণ, নিশ্চিত হোক রূপকল্প বাস্তবায়ন'। প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে বিকাল ৫ টা পর্যন্ত মেলায় এসে কর সংক্রান্ত সব সেবা পেয়ে খুবই সন্তুষ্ট বলে জানিয়েছেন রিটার্ন জমা দিতে আসা আয়করদাতাগণ।



করদাতারা বলেন, প্রাতিষ্ঠানিকভাবেই এখন কর দেয়া বাধ্যতামূলক। তাই তারা কর পরামর্শ কেন্দ্রে এসে প্রয়োজনীয় ফরম পূরণ করে রিটার্ন জমা দিচ্ছেন। ভোগান্তি বা ঝামেলা ছাড়া কর দিতে পেরে তারা খুশি।



চাঁদপুরের সহকারী কর কমিশনার মোহাম্মদ আলাউদ্দিনের তত্ত্বাবধানে মেলার সার্বিক সেবা কার্যক্রম তদারকি করছেন অতিরিক্ত সহকারী কর কমিশনার শাহাদাত হোসেন, কর পরিদর্শক বেলায়েত হোসেন, আব্দুল্লাহ আল মামুন ও মসিউদৌলা।



সহকারী কর কমিশনার মোহাম্মদ আলাউদ্দিন জানান, এবার মেলায় করদাতাদের ব্যাপক সাড়া পাওয়া গেছে। বিগত বছরের চেয়ে আমাদের টার্গেট ছাড়িয়ে যাবে। সব শ্রেণির করদাতারা তাদের রিটার্ন জমা দিচ্ছেন। এ ক্ষেত্রে চাকুরিজীবীদের সংখ্যাই বেশি।



একই ছাদের নিচে কর প্রদান সংক্রান্ত সব ধরনের সেবা পেয়ে করদাতারা খুবই খুশি। নারীদের জন্যে আলাদা বুথ রাখা হয়েছে। নতুন নতুন করদাতারাও তাদের রিটার্ন জমা দিচ্ছেন। এদিকে করদাতাদের সুবিধার্থে মেলায় সোনালী ব্যাংক, জনতা ব্যাংক ও বেসিক ব্যাংকের বুথ রয়েছে। পাশাপাশি মেডিকেল টিম, অভ্যর্থনা কেন্দ্র, কাস্টমস বুথ থেকে সেবা প্রদান করা হচ্ছে।



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
১০৮১৯১২
পুরোন সংখ্যা