চাঁদপুর, মঙ্গলবার ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, ২৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১২ রবিউস সানি ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • --
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৯-সূরা হাশ্র


২৪ আয়াত, ৩ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৪। ইহা এইজন্য যে, উহারা আল্লাহ ও তাঁহার রাসূলের বিরুদ্ধাচরণ করিয়াছিল, এবং কেহ আল্লাহর বিরুদ্ধাচরণ করিলে আল্লাহ তো শাস্তিদানে কঠোর।


 


 


আকৃতি ভিন্ন ধরনের হলেও গৃহ গৃহই। -এন্ড্রি উল্যাং।


 


 


স্বদেশপ্রেম ঈমানের অঙ্গ।


 


 


ফটো গ্যালারি
দল যোগ্য মনে করলে আমাকে সভাপতি নির্বাচিত করবে
---পৌর ১নং ওয়ার্ড সভাপতি প্রার্থী বাদল মিজি
স্টাফ রিপোর্টার
১০ ডিসেম্বর, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


চাঁদপুর পৌর ১নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি প্রার্থী আলহাজ্ব মোঃ ইউসুফ (বাদল মিজি)। তিনি ভাষা সৈনিক ও মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টাম-লীর সদস্য এবং চাঁদপুর চেম্বারের সাবেক সভাপতি মরহুম আলহাজ্ব মোঃ ইউনুছ মিজির জ্যেষ্ঠ পুত্র।



বাদল মিজি তাঁর প্রতিক্রিয়ায় বলেন, আমি আশা করি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার দিকনির্দেশনা অনুযায়ী তৃণমূলে যেনো ভালো নেতৃত্ব নির্বাচিত করা হয়। তিনি মনে করেন, জেলা বা পৌর কমিটি থেকে কোনো কর্মী তৈরি হয় না, কর্মী তৈরি হয় তৃণমূল থেকে। তৃণমূলে যদি ভালো নেতৃত্ব দেয়া যায়, তাহলে ওই নেতৃত্ব থেকে ভাল কর্মী আশা করা যায়। যার দ্বারা দল সু-সংগঠিত এবং দলের ভীত মজবুত হবে। আর যদি খারাপ নেতৃত্ব নির্বাচিত করা হয়, তাহলে সেখানে ভালো কর্মী আশা করা যায় না। তাতে দল ক্ষতিগ্রস্ত হবে।



তিনি বলেন, আমার বাবা ইউনুছ মিজি সাহেব দীর্ঘদিন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সঙ্গে জড়িত। ৫২'র ভাষা আন্দোলনের সময় কারাবরণ করেছিলেন। মহান মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ছিলেন। ১০নং লক্ষ্মীপুর (সাবেক সাখুয়া) মডেল ইউপির তিন বারের সাবেক চেয়ারম্যান এবং ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টাম-লীর সদস্য ছিলেন।



তাঁর সন্তান হিসেবে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর আদর্শে উদ্বুদ্ধ হয়ে দলকে সুসংগঠিত করা এবং জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষ্যে চাঁদপুর পৌর ১নং ওয়ার্ডের সভাপতি প্রার্থী হয়েছি। দল যদি আমাকে যোগ্য মনে করে তাহলে আমাকে নির্বাচিত করবে বলে আমার বিশ্বাস। আমার চেয়েও আরও যোগ্য প্রার্থী থাকে দল যেনো তাকে নির্বাচিত করে।



 



 


করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৩,৮৭,২৯৫ ৩,৯৬,৩৮,১৮৮
সুস্থ ৩,০২,২৯৮ ২,৯৬,৭৮,৪৪৬
মৃত্যু ৫,৬৪৬ ১১,০৯,৮৩৮
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
৪২১৩২৮
পুরোন সংখ্যা