চাঁদপুর, শনিবার ১৮ জানুয়ারি ২০২০, ৪ মাঘ ১৪২৬, ২১ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • --
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৬১-সূরা সাফ্ফ


১৪ আয়াত, ২ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


১১। উহা এই যে, তোমরা আল্লাহ ও তাঁহার রাসূলে বিশ্বাস স্থাপন করিবে এবং তোমাদের ধন-সম্পদ ও জীবন দ্বারা আল্লাহর পথে জিহাদ করিবে। ইহাই তোমাদের জন্য শ্রেয় যদি তোমরা জানিতে!


 


 


দুঃখীদের মনের জোর কম থাকে।


-রবার্ট হেরিক।


 


 


যে ব্যক্তি বিদ্যার জন্য জীবন উৎসর্গ করেছেন, তিনি মৃত্যুঞ্জয়ী।


 


 


ফটো গ্যালারি
নাশকতার আগুনে পুড়লো গৃহস্থের বসতঘরসহ সর্বস্ব
কামরুজ্জামান টুটুল
১৮ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


নাশকতার আগুনে পুড়েছে গৃহস্থের বসতঘরসহ সর্বস্ব। এতে করে ওই পরিবারের প্রায় ১৫ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। গতকাল শুক্রবার দুপুরে ঘটনাটি ঘটে হাজীগঞ্জের বাকিলা ইউনিয়নের পশ্চিম সন্না গ্রামের দেওয়ান বাড়িতে। ওই বাড়িতে বোরহান হোসেন তার পরিবার-পরিজন নিয়ে বসবাস করেন। ঘটনার সময় বোরহানের একমাত্র ছেলে মামুন ছাড়া কেউ বাড়িতে ছিলেন না।



প্রত্যক্ষদর্শী ক্ষতিগ্রস্ত পরিবারের সন্তান মামুন জানান, কদিন আগে মা-বাবাসহ অন্যরা ঢাকা বেড়াতে যান। বাড়িতে আমি একাই ছিলাম। জুমার নামাজের দেরি আছে মনে করে আমি ঘরে ঘুমিয়েছিলাম। ঘুমের ঘোরে হঠাৎ করে ঘরের মধ্যে পোড়া গন্ধ পেয়ে ঘুম থেকে জেগে উঠে দেখি ঘরের চারিদিকে আগুন জ্বলছে। তখন আমি আতঙ্কগ্রস্ত হয়ে ডাকচিৎকার দিয়ে বসতঘরের জানালা ভেঙ্গে ঘর থেকে বেরিয়ে আসি। এ সময় স্থানীয়রা দৌড়ে এসে আগুন নেভানোর অনেক চেষ্টা করে। এরপরেই খবর পেয়ে হাজীগঞ্জ দমকল বাহিনীর কর্মীরা অগ্নিকাণ্ডের স্থলে উপস্থিত হয়ে স্থানীয়দের সহযোগিতায় প্রায় আধাঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে নিয়ে আনে।



মামুন আরো জানান, ঘটনার সময় আমাদের এলাকায় কারেন্ট (বিদ্যুৎ) ছিলো না। গ্যাস সিলিন্ডার অক্ষত ছিলো, বাড়ির চারপাশ দেয়ালঘেরা আর দেয়ালের পেছনে দরজার তালা বন্ধ ছিলো। আগুনে আমাদের বসতঘর, নিজেদের মুরগীর খাবারের দুটি ইনকিউভেটর, পুরো ঘরের আসবাবপত্র, টিভি, ফ্রিজ, স্বর্ণালঙ্কার, তৈজসপত্র ও প্রয়োজনীয় কাগজপত্র সবকিছুই পুড়ে ছাই হয়ে গেছে। বাবা-মা বেড়ানোর উদ্দেশ্যে ঢাকায় যান। ধারণা করা হচ্ছে অগ্নিকাণ্ডের বিষয়টি নাশকতা। তবে কারো সাথে বিরোধ বা পূর্ব শত্রুতা আমাদের নেই।



হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোঃ আলমগীর হোসেন রনি বলেন, থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোশারফ হোসেন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে ক্ষতিগ্রস্ত এবং স্থানীয়দের সাথে কথা বলেছেন। তারা (ক্ষতিগ্রস্ত পরিবার) অভিযোগ দিলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে।



 



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৭৪৯০৪৮
পুরোন সংখ্যা