চাঁদপুর, বৃহস্পতবিার ২৩ জানুয়ারি ২০২০, ৯ মাঘ ১৪২৬, ২৬ জমাদউিল আউয়াল ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • শাহরাস্তিতে ডাকাতি মামলায় একজনের মৃত্যুদণ্ড ও ৪ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়েছে চাঁদপুরের জেলা ও দায়রা জজ আদালত। || 
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৬৪-সূরা তাগাবুন


১৮ আয়াত, ২ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


১৫। তোমাদের সম্পদ ও সন্তান-সন্তুতি তো পরীক্ষা বিশেষ; আর আল্লাহ, তাঁহারই নিকট রহিয়াছে মহাপুরস্কার।


১৬। তোমরা আল্লাহকে যথাসাধ্য ভয় কর, এবং শোন, আনুগত্য কর ও ব্যয় কর তোমাদের নিজেদেরই কল্যাণের জন্য; যাহারা অন্তরের কার্পণ্য হইতে মুক্ত তাহারাই সফল কাম।


 


 


 


assets/data_files/web

সাহসহীন কোনো ব্যক্তিই সাফল্য অর্জন করতে পারে না।


-কাও ন্যাল গিবন।


 


 


 


 


 


নিরপেক্ষ লোকের দোয়া সহজে কবুল হয়।


 


 


 


ফটো গ্যালারি
মতলবে পুলিশের পোশাক পরে দুটি বাজারে দুর্ধর্ষ ডাকাতি বিপুল পরিমাণ স্বর্ণ, রূপা ও কয়েক লাখ টাকা লুট
অতিরিক্ত ডিআইজির পরিদর্শন * অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন
মাহবুব আলম লাভলু
২৩ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


মতলব উত্তর উপজেলার নদী তীরবর্তী কালিরবাজার ও কালিপুর বাজারে ১১টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে দুর্ধর্ষ ডাকাতি হয়েছে। ডাকাতরা ১০টি স্বর্ণের দোকান ও একটি ফার্মেসি বিকাশের দোকান থেকে সাড়ে ৪৬ ভরি স্বর্ণ, ৯৫২ ভরি রূপা ও নগদ ৭ লাখ ৮৪ হাজার টাকা লুটে নেয়। এ ঘটনার সময় প্রশান্ত দেবনাথ নামে এক দোকানদার আহত হয়েছেন। ২২ জানুয়ারি বুধবার ভোরে (রাত আড়াইটা থেকে ৪টার মধ্যে) এ ডাকাতির ঘটনা ঘটে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান।



কালিপুর বাজারের মুক্তা স্বর্ণ শিল্পালয়, গিরীদারী স্বর্ণ শিল্পালয়, সৌরভ স্বর্ণ শিল্পালয়, দাদা-নাতি স্বর্ণ শিল্পালয়সহ কালিবাজারের ৬টি স্বর্ণ শিল্পালয় ও মিলন ফার্মেসীতে দুর্ধর্ষ ওই ডাকাতির ঘটনা ঘটে। গিরীদারী স্বর্ণ শিল্পালয়ের স্বত্বাধিকারী প্রশান্ত দেবনাথকে ডাকাতরা মারধর করে আহত করে। তিনি এ প্রতিবেদককে জানান, ডাকাত দলের দুজন পুলিশের পোশাক পরিহিত ছিলো। তারা সংখ্যায় ছিলো ১৪-১৫ জন। প্রত্যেকের হাতে ছিলো অত্যাধুনিক অস্ত্র। তারা স্থানীয় ভাষায় কথা বলছিলো। তিনি জানান, এর আগে ২০১২ সালে কালিরবাজারে ৪টি স্বর্ণের দোকানে ডাকাতি হয়েছিলো।



মতলব উত্তর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মোঃ শাহজাহান কামাল বলেন, ডাকাতির ঘটনার পরপরই থানার টহলরত পুলিশ সদস্যরা খবর পায় এবং তাৎক্ষণিক আমরা ঘটনাস্থলে ছুটে যাই। সংবাদ পেয়ে চট্টগ্রাম রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি (অপারেশন এন্ড ক্রাইম) এম. জাকির হোসেন খান পিপিএম, চাঁদপুরের পুলিশ সুপার মোঃ মাহবুবুর রহমান পিপিএম (বার), নৌ-পুলিশের পুলিশ সুপার জমশের আলী, পিবিআইর পুলিশ সুপার মোঃ ওসমান, চাঁদপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ মিজানুর রহমানসহ পুলিশ, পিবিআই, সিআইডি ও নৌ-পুলিশ কর্মকর্তাগণ ঘটনাস্থলে আসেন এবং পরিদর্শন করেন। বিকেলে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন মতলব উত্তর উপজেলা নির্বাহী অফিসার এএম জহিরুল হায়াত।



পুলিশ সুপার মাহবুবুর রহমান পিপিএম (বার) বলেন, ঘটনার পর থেকেই পুলিশ ঘটনাস্থলে অবস্থান করছে। ১০টি স্বর্ণের দোকানে ডাকাতি হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, ডাকাতরা ধারালো অস্ত্র দিয়ে দোকানের তালা কেটে ভেতরে প্রবেশ করেছে। পুলিশ সম্পূর্ণ ঘটনাটি তদন্ত করে দেখছে। কালিরবাজারে অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে।



চট্টগ্রাম রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি (অপারেশন এন্ড ক্রাইম) এম. জাকির হোসেন খান বলেন, এটি একটি সংঘবদ্ধ ডাকাত দলের কাজ, তারা পরিকল্পনা করে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটিয়েছে। ঘটনা উদ্ঘাটনের লক্ষ্যে চাঁদপুর জেলা পুলিশ, পিবিআই, সিআইডি ও নৌ-পুলিশ মাঠে কাজ করছে। কালিরবাজারে একটি অস্থায়ী পুলিশ ক্যাম্প স্থাপন করা হয়েছে। আমরা প্রত্যাশা করছি, খুব শীঘ্রই এ ঘটনার তথ্য উদ্ঘাটন করতে সক্ষম হবো।



ঘটনার বিবরণে পুলিশ আরো জানায়, কালিরবাজারে বুধবার রাত আড়াইটার দিকে স্পীডবোটযোগে এসে আন্তঃজেলা ডাকাত দল বাজারের উত্তর পাশের ট্রলার ঘাটে সেটি নোঙর করে। এরপর কোনো কিছু বুঝে উঠার আগেই বাজারের অন্য নৈশপ্রহরী নূরুল ইসলামকে ডাকাতদল হাত-পা, মুখ বেঁধে ফেলে রাখে। একইভাবে বাজারের নৈশপ্রহরী আইয়ুব আলী ও আব্দুল ওহাবকেও বেঁধে রেখে বাজারের স্বর্ণকারপট্টির জীবন সরকার, কানাই বিশ্বাস, তপন বর্মণ ও সুনীল দাসের স্বর্ণের দোকানের তালা ভেঙ্গে এবং দোকানের লোহার সিন্দুক ভেঙ্গে ডাকাতি করে।



বাগানবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান নান্নু মিয়া জানান, ১৫ দিন পূর্বে তার এলাকা থেকে কয়েক ধাপে একশ' গরু চুরি হয়েছে। তার কোনো ক্লু এখনো পাওয়া যায়নি। এরই মাঝে গত রাতে এ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। মানুষ আতংকের মধ্যে আছে। পুলিশের তৎপরতা চোখে পড়ার মতো। তবে এলাকার জনগণ ও আমরা সবাই প্রকৃত রহস্য উদ্ঘাটন হোক_এটা চাই।



কালিরবাজার ব্যবসায়ী কমিটির সাধারণ সম্পাদক এটিএম ইব্রাহিম খলিলুল্লাহ বলেন, এ ঘটনায় ব্যবসায়ীরা আতংকিত। কারণ, এর পূর্বেও এ বাজারে ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। তাই জনগণ ও স্থানীয় প্রতিনিধিরা কালিরবাজারে একটি পুলিশ ফাঁড়ি স্থাপন করার আবেদন জানিয়ে আসছে।



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
৫০৫৭২১
পুরোন সংখ্যা