চাঁদপুর, মঙ্গলবার ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২০, ১২ ফাল্গুন ১৪২৬, ৩০ জমাদিউস সানি ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • চাঁদপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি হওয়া ছেলেটির করোনা ভাইরাস নেগেটিভ পাওয়া গেছে। অর্থাৎ সে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগী নয়। তথ্য সূত্র: আরএমও ডাঃ সুজাউদ্দৌলা রুবেল। || বৈদ্যনাথ সাহা ওরফে সনু সাহা করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যায় নি : সিভিল সার্জন
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৬৪-সূরা তাগাবুন


১৮ আয়াত, ২ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


১৩। আল্লাহ, তিনি ব্যতীত কোন ইলাহ নাই; সুতরাং মু'মিনগণ আল্লাহর উপর নির্ভর করুক।


১৪। 'হে মু'মিনগণ! তোমাদের স্ত্রী ও সন্তান-সন্তুতিগণের মধ্যে কেহ কেহ তোমাদের শত্রু; অতএব তাহাদের সম্পর্কে তোমরা সতর্ক থাকিও। তোমরা যদি উহাদিগকে মার্জনা কর, উহাদের দোষ-ত্রুটি উপক্ষো কর এবং উহাদিগকে ক্ষমা কর, তবে জানিয়া রাখ, আল্লাহ ক্ষমাশীল, পরম দয়ালু।


 


 


 


assets/data_files/web

আমার নিজের সৃষ্টিকে আমি সবচেয়ে ভালোবাসি।


-ফার্গসান্স।


 


 


 


যে শিক্ষা গ্রহণ করে তার মৃত্যু নেই।


 


 


ফটো গ্যালারি
কচুয়ায় গৃহবধূর রহস্যজনক হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন
নিজস্ব প্রতিবেদক
২৫ ফেব্রুয়ারি, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


কচুয়ায় গৃহবধূর রহস্যজনক হত্যার বিচারের দাবিতে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। ২১ ফেব্রুয়ারি সোমবার বিকেলে কচুয়া উপজেলার গোহট দক্ষিণ ইউনিয়নের খাজুরিয়া লক্ষ্মীপুর এলাকায় গৃহবধূ শাহনাজের বাবার বাড়ির এলাকাবাসীর উদ্যোগে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।



জানা যায়, একই ইউনিয়নের সাতবাড়িয়া গ্রামের অহিদ উল্যাহর ছেলে সৌদি প্রবাসী রাজু ১৯ ফেব্রুয়ারি বুধবার ছুটিতে বাড়ি আসে। মানববন্ধনে অংশগ্রহণকারীরা জানান, গোবিন্দপুর গ্রামের নজরুল ইসলামের মেয়ে এক সন্তানের জননী শাহনাজ আক্তার (২৩)কে রবিবার তার স্বামী রাজু পারিবারিক কলহের জের ধরে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে বসতঘরের সিলিং পাখার সাথে ঝুলিয়ে রাখে। সংবাদ পেয়ে কচুয়া থানা পুলিশ খাটের সাথে পা লাগানো অবস্থায় ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করে। শাহনাজের পরিবার ও এলাকাবাসী এ হত্যাকা-ের দোষীদের গ্রেফতার করে দ্রুত আইনানুগ ব্যবস্থাগ্রহণের দাবি জানান।



শাহনাজের পিতা নজরুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, আমার মেয়ের জামাই রাজু তার ভাইয়ের স্ত্রীর প্ররোচনায় হত্যা করে বৈদ্যুতিক পাখার সাথে ওড়না দিয়ে ঝুলিয়ে রেখে শাহনাজ আত্মহত্যা করেছে বলে আমাদেরকে সংবাদ দেয়। আমরা রাজুর বাড়িতে গিয়ে দেখি, আমার মেয়ে শাহনাজের মৃতদেহ ঝুলন্ত অবস্থায় রয়েছে। কিন্তু তার পা খাটের সাথে লেগে আছে। তাই এটাকে আমরা কোনো অবস্থাতেই আত্মহত্যা বলে মেনে নিতে পারি না। এটি একটি পরিকল্পিত হত্যা বলে আমরা মনে করি। তাছাড়া শাহনাজের একমাত্র ছেলে সন্তান তাছিমের ভিডিও ক্লিপে দেখা যায় তার মাকে তার বাব মেরে ফেলেছে।



এ ব্যাপারে কচুয়া থানার ওসি ওয়ালী উল্লাহ বলেন, আমরা শাহনাজের লাশ সুরতহাল করে ময়না তদন্তের জন্যে চাঁদপুর মর্গে পাঠিয়েছি। ময়না তদন্তে কোনো আলামত পাওয়া গেলে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
১৭০৮৬৪
পুরোন সংখ্যা