চাঁদপুর, বুধবার ১ জুলাই ২০২০, ১৭ আষাঢ় ১৪২৭, ৯ জিলকদ ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৭১-সূরা নূহ্


২৮ আয়াত, ২ রুকু, মক্কী


৫। সে বলিয়াছিল, হে আমার প্রতিপালক! আমি তো আমার সম্প্রদায়কে দিবারাত্রি আহ্বান করিয়াছি,


৬। 'কিন্তু আমার আহ্বান উহাদের পলায়ন প্রবণতাই বৃদ্ধি করিয়াছে।


 


 


 


 


 


 


 


 


ধনীদের ধন সম্পদ হচ্ছে তাদের স্বাস্থ্যের সবচেয়ে বড় শত্রু।


-জর্জ ওয়েট স্টোন।


 


 


 


 


যে মানুষের প্রতি কৃতজ্ঞ নয়, সে আল্লাহর প্রতি কৃতজ্ঞ নয়।


 


 


 


 


ফটো গ্যালারি
স্ত্রীর উদ্দেশ্যে শামীমের শেষ কথা
আমার বাবুটারে দেইখো
মিজানুর রহমান
০১ জুলাই, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


 আমার বাবা মারপিট করে নাই, তাকে খুন করা হয়েছে। একথা বলে বারবার মূর্ছা যাচ্ছেন চাঁদপুর শহরের পুরাণবাজার ওচমানিয়া মাদ্রাসার সামনের রাস্তায় দুই পক্ষের সংঘর্ষের মধ্যে পড়ে নিহত পথচারী শামীম গাজীর (২৪) মা মরিয়ম বেগম। ছেলেকে হারিয়ে আহাজারি করতে গিয়ে তিনি বলেন, ছেলে কাজের থেকে বাসায় আসার পথে দুই পক্ষের সংঘর্ষের সময় অ্যাক্সিডেন্ট হয়েছে। রাত সাড়ে বারোটার দিকে ছেলের বউর মোবাইল ফোনে কল আসে। তখন জানতে পারি, আমার আদরের সন্তান মাথায় এবং ঘাড়ে ইট পড়ে মারাত্মকভাবে আহত হয়েছে। আহত হয়ে সে মাদ্রাসার সামনে রাস্তায় গড়াগড়ি করছিল। আশেপাশের বাড়ির মহিলারা উদ্ধার করে রবিউলের বাসায় শামীমকে রেখেছে। এই খবর শুনে বড় ছেলে মিলনকে সেখানে পাঠাই। রাতে আর ছেলের কোনো খবর পাই নাই। সকালে শুনতে পাই আমার শামীম আর নাই।

নিহত শামীমের স্ত্রী রিমা আক্তার জানান, সোমবার সকালে ঘর থেকে যাওয়ার সময় স্বামী বলে গেছে, আমার বাবুটারে দেইখো। এই ছিল শামীমের সাথে স্ত্রীর শেষ কথা।

স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও চাঁদপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র সিদ্দিকুর রহমান ঢালী জানান, দুই পক্ষের মারামারিতে নিরীহ একটা ছেলে মারা গেছে। এই ঘটনার সুষ্ঠু বিচার হোক-এলাকার জনপ্রতিনিধি হিসেবে এটাই আমার কামনা।

হোটেল গ্র্যান্ড হিলশার ম্যানেজার মুন্না জানান, আমরা আমাদের একজন প্রিয় সহকর্মীকে হারিয়ে খুবই শোকাহত। শামীম খুবই পরিশ্রমী ও কর্মঠ একজন ছেলে। সে তাদের সংসারের হাল ধরে রেখেছিল। আমাদের মালিক রোটাঃ সাহেদুল হক মোর্শেদের পছন্দের লোক ছিল সে। হোটেলের হাউজ কিপিং ক্যাপ্টেন হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিল। তিনি বলেন, আমাদের হোটেলে অবস্থান করা কোভিড-১৯-এর চিকিৎসকরাও শামীমকে খুব ভালো জানতেন। সন্ত্রাসীদের সংঘর্ষের ঘটনায় তাকে অকালে প্রাণ হারাতে হয়েছে। এটা তার পরিবারের এবং আমাদের হোটেলের জন্য দুঃখজনক ঘটনা। যাদের সংঘর্ষের কারণে সে মারা গেল, অপরাধীদের ধরে উপযুক্ত শাস্তি দেয়া হোক।

পুরাণবাজার ট্রাক রোডের পরিবহন শ্রমিক তাজু সরদারের চার ছেলে এক মেয়ের মধ্যে শামীম তৃতীয় সন্তান। তিন বছর যাবত কাজ করছিলেন চাঁদপুর সদর হাসপাতালের সামনে অবস্থিত আবাসিক হোটেল গ্র্যান্ড হিলশায়। সে এই হোটেলে অবস্থান নেওয়া করোনা চিকিৎসকদের সেবার কাজ করতেন। প্রতিদিনের ন্যায় হোটেলের কাজ শেষে মধ্য শ্রীরামদী নিজ বাসায় ফিরছিলেন। রাত সাড়ে নয়টার সময় অটোবাইক থেকে ওচমানিয়া মাদ্রাসার সামনে নামেন। হঠাৎ এলাকার দুই পক্ষের মধ্যে শুরু হয় তুমুল সংঘর্ষ, ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও ইটপাটকেল নিক্ষেপ। এই সংঘর্ষের মধ্যে পড়ে তিনি গুরুতর আহত হন। শামীমের বন্ধুদের মোবাইলে খবর পেয়ে পরে তাকে মধ্যরাতে বড় ভাই মিলন ও নয়ন গাজী চাঁদপুর ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট সরকারি জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। সেখানে কর্মরত চিকিৎসক আশঙ্কাজনক দেখে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্যে ঢাকা রেফার করেন। ওই রাতেই শামীমকে অ্যাম্বুলেন্সে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়। সকাল সাড়ে ৭টার সময় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান শামীম। তার মৃত্যুর খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে সবার মাঝে শোকের ছায়া নেমে আসে। কান্নায় ভেঙে পড়েন শামীমের স্বজনরা। শামীমের কর্মস্থল গ্র্যান্ড হিলশা হোটেলের মালিক, কর্মচারী এবং অন্যান্য যারা আছেন তার করুণ মৃত্যুর খবর শুনে সবাই আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন।

মঙ্গলবার বিকেল পৌনে ছয়টার সময় শামীমের মৃতদেহ এলাকায় নিয়ে আসা হয়। ডিবি ও থানা পুলিশের কঠোর নিয়ন্ত্রণে সামাজিক দূরত্ব রক্ষা করে মধ্য শ্রীরামদী কবরস্থানে তাকে জানাজা শেষে সেখানেই দাফন করা হয়। জানাজা ও দাফনের সময় পুরাণবাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ মোঃ মাসুদ, চাঁদপুর মডেল থানার এসআই পলাশ বড়ুয়া, স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও চাঁদপুর পৌরসভার প্যানেল মেয়র সিদ্দিকুর রহমান ঢালী, ১নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক মোহাম্মদ আলী মাঝি, পৌর যুবলীগের আহ্বায়ক আঃ মালেক শেখসহ নিহতের স্বজনরা এবং অন্যরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, এলাকার আধিপত্য বিস্তার ও পূর্ব বিরোধকে কেন্দ্র করে সোমবার (৩০ জুন) রাতে পুরাণবাজার পৌর ২নং ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি শাহাদাত পাটোয়ারীর ছোট ভাই রাসেল ও মধ্যশ্রীরামদীর হেলাল গ্রুপের সাথে ১নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক জহির খান ও তার গ্রুপের তুমুল সংঘর্ষ, ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া হয়। এই সংঘর্ষে মারা যান নিরীহ হোটেল কর্মচারী শামীম গাজী।

 


করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ১,৯০,০৫৭ ১,৩০,৪২,৩৪০
সুস্থ ১,০৩,২২৭ ৭৫,৮৮,৫১০
মৃত্যু ২,৪২৪ ৫,৭১, ৬৮৯
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
৬৭৮৫৩২
পুরোন সংখ্যা