চাঁদপুর, বুধবার ১৫ জুলাই ২০২০, ৩১ আষাঢ় ১৪২৭, ২৩ জিলকদ ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৭২-সূরা জিন্ন্


২৮ আয়াত, ২ রুকু, মক্কী


৫। অথচ আমরা মনে করিতাম মানুষ এবং জিন্ন্ আল্লাহ সম্বন্ধে কখনও মিথ্যা আরোপ করিবে না।


৬। 'আরও এই যে, কতিপয় মানুষ কতক জিন্ন্রে শরণ লইত, ফলে উহারা জিন্নদের আত্মম্ভরিতা বাড়াইয়া দিত।'


 


কথার শক্তিকে না জেনে মানুষকে জানা অসম্ভব।


-কনফুসিয়াম।


 


 


 


 


যে নামাজে হৃদয় নম্র হয় না, সে নামাজ খোদার নিকট নামাজ বলিয়াই গণ্য হয় না।


 


 


গৃদকালিন্দিয়া কলেজে বৃক্ষরোপণ ও পরিচ্ছন্নতা কর্মসূচিতে বাধাদানের অভিযোগ
ফরিদগঞ্জ ব্যুরো
১৫ জুলাই, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


মুজিববর্ষ উপলক্ষে ফরিদগঞ্জ উপজেলার অন্যতম বৃহৎ বিদ্যাপীঠ গৃদকালিন্দিয়া হাজেরা হাসমত বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের বৃক্ষরোপণ ও ডেঙ্গু প্রতিরোধকল্পে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযানে বাধাদান ও শিক্ষকদের সাথে অশালীন আচরণের অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে কলেজের শেখ রাসেল ছাত্রাবাসের হলসুপার বাদী হয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ করেছেন।



থানায় দায়েরকৃত অভিযোগে জানা গেছে, শনিবার সকালে কলেজের শেখ রাসেল ছাত্রাবাস ও শেখ হাসিনা ছাত্রী নিবাসের সামনে সড়ক ও জনপথ বিভাগের কাছ থেকে স্থায়ী লিজ পাওয়া জমির উপর মুজিববর্ষ উপলক্ষে সরকারিভাবে প্রাপ্ত দুই শতাধিক ফলজ বনজ ও ঔষধী গাছ রোপণ করতে গেলে হলসুপার প্রভাষক তুষার কান্তি সরকার, সহকারী হলসুপার মোঃ আবুল কালাম আজাদের তত্ত্বাবধানে ও অফিস সহায়ক মোঃ দেলোয়ার, মোঃ মুছলেহ উদ্দিন গাছ রোপণকালে জনৈক মোঃ মাসুদ হোসেন খান বাচ্চু (৫৬) ও মোঃ বেলায়েত হোসেন খান (৬৫) তাদের বাধা প্রদান করে। এ সময় তারা শিক্ষকদের উপর হামলা করার চেষ্টা করে এবং অশালীন ভাষা প্রয়োগ করে।



এ ব্যাপারে কলেজ অধ্যক্ষ জানান, কলেজ কর্তৃপক্ষ ১৯৯৮ ও ২০০০ সালে সড়ক ও জনপথ বিভাগ থেকে ৩২ একর জমি স্থায়ী লিজ নিয়ে সেখানে বনায়ন করেছে। এছাড়া কলেজের দুটি ছাত্রাবাস যথাক্রমে শেখ রাসেল ছাত্রাবাস ও শেখ হাসিনা ছাত্রীনিবাসের সামনে এ বছর সরকারি দুই শতাধিক ফলজ বনজ ও ঔষধী গাছ রোপণ করা করা হয়। একই সাথে বর্তমান পরিস্থিতিতে ডেঙ্গুসহ সকল রোগ প্রতিরোধে পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা অভিযান চালানো হয়। কিন্তু বৃক্ষ রোপণকালে মোঃ মাসুদ হোসেন খান বাচ্চু (৫৬) ও মোঃ বেলায়েত হোসেন খান (৬৫) আমাদের শিক্ষক ও কর্মচারীদের বাধা প্রদান করে।



তিনি বলেন, মাসুদ হোসেন খান বাচ্চু আমাদের শিক্ষকদের মেরে ফেলার হুমকি প্রদানের প্রেক্ষিতে শান্তি ভঙ্গের আশঙ্কা থাকায় তারা দ্রুত সেখান থেকে সরে যেতে বাধ্য হন। তারা বিষয়টি আমাকে জানালে আমি কলেজের ব্যবস্থাপনা কমিটিকে অবহিত করি। পরে কলেজ কর্তৃপক্ষের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী শেখ রাসেল ছাত্রাবাসের হলসুপার তুষার কান্তি সরকার গত ১২ জুলাই রোববার রাতে থানায় লিখিত অভিযোগ করেন।



তিনি আরো জানান, মাসুদ হোসেন খান বাচ্চু এরই ফাঁকে আমিসহ কলেজ কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে কলাগাছ কাটার ভিত্তিহীন অভিযোগ তুলে থানায় অভিযোগ করে। ইতিপূর্বে তিনি কলেজের বনায়ন কর্মসূচির গাছ উপড়ে ফেলে জবর দখল করে পাকা ইমারত নির্মাণ করে (এ ব্যাপারে থানার ডায়েরি নং- ৯০৪/১৯)। সর্বশেষ তার বঙ্গবন্ধু পরিবারের সদস্যদের নামে কলেজে স্থাপিত শেখ হাসিনা ছাত্রীনিবাস ও শেখ রাসেল ছাত্রাবাসের জায়গার প্রতি লোলুপ দৃষ্টি পড়েছে। তাই এই নাটক।



এদিকে থানায় দায়েরকৃত অভিযোগের ব্যাপারে ফরিদগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ জানান, কলেজ কর্তৃপক্ষ এবং মাসুদ হোসেন খান বাচ্চু উভয়ে লিখিত অভিযোগ করেছেন। আমরা তদন্তপূর্বক সঠিক ব্যবস্থাগ্রহণ করবো।



 


এই পাতার আরো খবর -
করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ২,২৩,৪৫৩ ১,৬২,২০,৯০০
সুস্থ ১,২৩,৮৮২ ৯৯,২৩,৬৪৩
মৃত্যু ২,৯২৮ ৬,৪৮,৭৫৪
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
৫১৯০২৩৯
পুরোন সংখ্যা