চাঁদপুর, শুক্রবার ১৪ আগস্ট ২০২০, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৩ জিলহজ ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৭৪-সূরা মুদ্দাছ্ছির


৫৬ আয়াত, ২ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


১। হে বস্ত্রাচ্ছাদিত!


২। উঠ, আর সতর্ক কর,


৩। এবং তোমার প্রতিপালকের শ্রেষ্ঠত্ব ঘোষণা কর।


৪। তোমার পরিচ্ছদ পবিত্র রাখ,


 


 


সংসারে যে সবাইকে আপন ভাবতে পারে, তার মতো সুখী নেই।


-গোল্ড স্মিথ।


 


 


 


দয়া ঈমানের প্রমাণ ; যার দয়া নেই তার ঈমান নেই।


 


 


 


ফটো গ্যালারি
শোকের আগস্ট শক্তির আগস্ট
পীযূষ কান্তি বড়ুয়া
১৪ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


আগস্টের শিক্ষা আমাদের কী? আগস্ট কি শুধুই আমাদের বিলাপের বা বেদনার মাস? আগস্ট কি কেবলই রোদনভরা, রিক্ততায় ভরা? নিশ্চয়ই তা নয়। আগস্টের বড় শিক্ষা এই, মানুষকে ভালোবাসলে তার ঝুঁকি যেমন রয়েছে তেমনি মানুষকে ভালোবাসার কোনো বিকল্প নেই। প্রাণের সংশয় নিয়েও মানুষকে ভালোবাসতে পারাটাই মহামানবের ধর্ম। যাঁরা পৃথিবী আলোকিত করে গেছেন তাঁরা কেউই মানবতা হতে নিজেকে কখনো দূরে রাখেননি। তেমনি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুও তার ব্যতিক্রম ছিলেন না। শৈশবে নিজের মায়ের কিংবা নিজের ব্যবহার উপযোগী কাপড় দানের অনুশীলন যাঁর রক্তে লেখা ছিল তিনি বঙ্গবন্ধু হয়েও সেই অভ্যাস হতে পিছিয়ে ফিরে আসেননি। বঙ্গবন্ধু মানুষকে যেমন দিয়েছেন, তেমনি মানুষও তাঁকে দিয়েছে হৃদয় খুলে। রাস্তায় দাঁড়িয়ে থাকা সেই বুড়িমার কথা আজ কিংবদন্তী, যিনি কয়েকঘন্টা রাস্তায় দাঁড়িয়ে প্রিয় মুজিবের দেখা পেয়ে তাঁকে হাতে ধরে টেনে নিজের কুঁড়েঘরে নিয়ে একবাটি দুধ আর এক খিলি পান খেতে দেন। তারপর মুজিবের হাতে চার আনা গুঁজে দিয়ে মাথায় হাত দিয়ে দোয়া করেছিলেন নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার জন্যে। এই প্রাপ্তি মুজিব যে কোথায় রাখবেন তা বুঝতে না পেরে দুচোখের দুফোঁটা অশ্রুতে তা মিশিয়ে নেন অনন্ত সুখে।



মুজিব জনতাকে ভালোবেসেছেন অঢেল। তাঁর এই অঢেল ভালোবাসার ফলস্বরূপই মুজিবের জীবনে মৃত্যুর আঘাত বার বার আসলেও তিনি বেঁচে উঠেছিলেন অফুরান আশীর্বাদে। বন্ধু মালেকের জন্যে যেমন তিনি জীবনপণ লড়েছেন তেমনি তিনি লড়ে গেছেন শোষিত বাঙালির জন্যে। দাওয়ালদের ন্যায্য আদায়ে তিনি ম্যাজিস্ট্রেটকেও ছেড়ে কথা বলেননি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীদের হয়ে তিনি লড়ে গেছেন নিজের ছাত্রত্ব বিসর্জন দিয়ে হলেও। মানুষ মুজিবের এই দানকে ভোলেনি, ভুলতে পারবেও না।



মানবতার ত্রাণে দাতা মুজিব ভালোবাসা বিলিয়েছেন মাঠের কিষাণকে, নদীর জেলেকে, গরুগাড়ির গাড়োয়ানকে। তারা তাঁকে মুজিবভাই করে মাথায় তুলে রেখেছে। মুজিব যুদ্ধকালীন নির্যাতিতা নারীদের সম্ভ্রম হারানোর কথা মাথায় রেখেছিলেন বলেই পিতার স্থলে নিজের নাম ব্যবহারের অনুমতি দিয়েছিলেন এবং তাদের ঠিকানার স্থলে বত্রিশ নম্বরের ঠিকানা ব্যবহার করতে বলেছিলেন। মুজিব বার বার বলেছেন, এই স্বাধীনতা ব্যর্থ হয়ে যাবে যদি এদেশের দুখি মানুষের মুখে হাসি না ফোটে। তিনি আজীবন এই শোষিতের মুখে হাসি ফোটানোরই সংগ্রাম করে গেছেন। শোষিতের মুখে হাসি ফোটাতে গিয়ে মুজিবকে শুষে নিয়েছে কারাগারের অাঁধার, মুজিবের যৌবনকে ছিনিয়ে নিয়েছে। আগস্টের ষড়যন্ত্র বাঙালির সংগ্রামে ছেদ টানতে পারেনি। দ্রোহী বাঙালি সর্বদা চেষ্টা করেছে জনকের চেতনাকে সামনে এগিয়ে নিতে। তাইতো বার বার অন্যমতের সরকার ক্ষমতায় এলেও তাদের মনে ছিল জনকের সেই বজ্রবাণী, আমাদের কেউ দাবিয়ে রাখতে পারেনি বলেই একদা পাঁচ পাঁচবার দুর্নীতিতে বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন হয়েও বাংলাদেশ আজ বিশ্বের সেই বিরল সাতান্নটি দেশের তালিকায় ঢুকে গেছে, যারা মহাকাশে নিজেদের স্যাটেলাইট পাঠিয়েছে।



তাই জন্মশতবছরের আগস্ট আর রক্তক্ষরণের মাস নয়। আজকের আগস্ট বিশ্বজয়ের আগস্ট। আজকের আগস্ট চ্যাম্পিয়ন অব দ্যা আর্থ-এর আগস্ট। করোনা সঙ্কট কালের এ আগস্টে বাংলাদেশ আজ ডিজিটাল বিপ্লবের কার্যকারিতায় নিয়ন্ত্রণে রেখেছে বিশ্বমারীর ভয়াবহতাকে। আজকের আগস্টে এই হোক আমাদের প্রত্যয়, শোকের আগস্ট শক্তিতে হয়ে উঠুক অক্ষয়।



 



 


করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৩,৩৯,৩৩২ ২,৯২,০১,৬৮৫
সুস্থ ২,৪৩,১৫৫ ২,১০,৩৫,৯২৬
মৃত্যু ৪,৭৫৯ ৯,২৮,৬৮৬
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
৩২৯০৬৬
পুরোন সংখ্যা