চাঁদপুর, শুক্রবার ১৪ আগস্ট ২০২০, ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭, ২৩ জিলহজ ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৭৪-সূরা মুদ্দাছ্ছির


৫৬ আয়াত, ২ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


১। হে বস্ত্রাচ্ছাদিত!


২। উঠ, আর সতর্ক কর,


৩। এবং তোমার প্রতিপালকের শ্রেষ্ঠত্ব ঘোষণা কর।


৪। তোমার পরিচ্ছদ পবিত্র রাখ,


 


 


সংসারে যে সবাইকে আপন ভাবতে পারে, তার মতো সুখী নেই।


-গোল্ড স্মিথ।


 


 


 


দয়া ঈমানের প্রমাণ ; যার দয়া নেই তার ঈমান নেই।


 


 


 


ফটো গ্যালারি
চাঁদপুর লঞ্চঘাটের যাত্রী ছাউনি দখল করে ফল ব্যবসা যাত্রী দুর্ভোগ
স্টাফ রিপোর্টার
১৪ আগস্ট, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


চাঁদপুর লঞ্চঘাটের যাত্রী ছাউনি দখল করে অবৈধভাবে ফল ব্যবসা করায় যাত্রী দুর্ভোগ চরম পর্যায়ে পেঁৗছেছে। সাধারণ যাত্রীদের অভিযোগ, লঞ্চের সিডিউল বিপর্যয়ের কারণে লঞ্চঘাটের যাত্রী ছাউনিতে তাদের অনেক সময় অপেক্ষা করতে হয়। কিন্তু ঘাটে পর্যাপ্ত লঞ্চ না থাকায় এই অপেক্ষার প্রহর ঘন্টার পর ঘন্টা ও অনাকাঙ্ক্ষিত সময়ে হয়ে যায়। অথচ লঞ্চের তুলনায় যাত্রী বেশি হওয়ায় তাদের অবস্থানের একমাত্র অবলম্বন ঘাটের যাত্রী ছাউনিটি। নৌ পুলিশের নাকের ডগায় সেই যাত্রী ছাউনিটি দখল করে ফল ব্যবসা করছে এক ফল ব্যবসায়ী। ১১ আগস্ট মঙ্গলবার সরজমিনে ঘাটে গিয়ে যাত্রীদের দুর্ভোগ স্বচক্ষে দেখা যায়।



স্থানীয়দের সাথে আলাপ করলে জানা যায়, যাত্রী ছাউনিটি দখল করে ব্যবসা পরিচালনা করা ওই যুবকের নাম মোঃ আজিম উদ্দিন। সে নৌ থানার পিছনেই নিশি বিল্ডিং এলাকার যুবক। স্থানীয় হওয়ায় নৌ পুলিশকে বৃদ্ধাঙ্গুলি দেখিয়ে এক রকমের পেশী শক্তির প্রভাব বিস্তার করেই সে দীর্ঘদিন যাত্রী ছাউনি দখল করে ফল ব্যবসা করে আসছে।



যাত্রীদের অভিযোগের প্রেক্ষিতে যাত্রী ছাউনি দখল করা ওই ফল ব্যবসায়ী যুবক মোঃ আজিমের সাথে আলাপ হলে তিনি জানান, আমি লক ডাউনের ৬ মাস আগে থেকেই এই যাত্রী ছাউনি দখল করে ফল ব্যবসা শুরু করেছি। তবে এর জন্য আমার বিআইডবিস্নউটিএকে প্রতি মাসে ১৫শ' টাকা দিতে হয়। অনেকের ধারণা, এই যুবকের নিকট থেকে নৌ থানার কেউ প্রতি মাসে উপঢৌকন গ্রহণ করছে। যে কারণে যাত্রী দুর্ভোগ উপেক্ষা করে ওই যুবক প্রভাব বিস্তার করে এখানে ফল ব্যবসা পরিচালনা করছে। অবশ্য বিভিন্নভাবে শোনা যায়, যাত্রী ছাউনি দখলমুক্ত করতে সাংবাদিকদের লেখালেখিতে মাঝে মধ্যে লোক দেখানো উচ্ছেদ অভিযান করে বিআইডবিস্নউটিএ এবং নৌ পুলিশ।



এ ব্যপারে চাঁদপুর নৌ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ জাহিদুল ইসলামের সাথে আলাপ হলে তিনি জানান, যাত্রী ছাউনি দখল করা আজিম নামের ওই ফল ব্যবসায়ী থেকে নৌ থানার কেউ কোনো টাকা-পয়সা নেয় না। তবে বার কয়েক যে তাকে উচ্ছেদ করা হয়েছে সে বিষয়টি তিনি স্বীকার করেন। তিনি বলেন, আমরা উচ্ছেদ করার পরও ওই যুবক আজিম যাত্রী ছাউনি দখল করে ফল ব্যবসা করাটা দুঃখজনক। ও যাতে যাত্রী ছাউনি দখল করে এর কোনো অংশেই কিংবা পাশে আর ব্যবসা করতে না পারে এ ব্যাপারে এবার জোরালো পদক্ষেপ নেয়ার আশ্বাস দিয়েছেন তিনি।



এদিকে মাসে ১৫শ' টাকা নেয়ার বিষয়টি অস্বীকার করেন বিআইডবিস্নউটিএ চাঁদপুরের বন্দর ও পরিবহন কর্মকর্তা এ কে এম কায়সারুল ইসলাম। তিনি জানান, যাত্রী ছাউনি দখল করে ব্যবসা করা সম্পূর্ণ অবৈধ। তাই এক্ষেত্রে তো মাসে টাকা নেয়ার প্রশ্নই ওঠে না। তবে ওই যুবক আজিমের নিকট থেকে যদি কেউ টাকা নিয়ে থাকে, সে বিষয়টি খতিয়ে দেখে ব্যবস্থা নেয়া হবে। আর যাত্রী ছাউনি দখলমুক্ত করতে আমরা বদ্ধপরিকর। ওই যুবকই শুধু নয় আর কেউ-ই যাতে যাত্রী ছাউনি দখল করে কোনো ব্যবসা করতে না পারে সে ব্যাপারে কঠোরভাবে স্থায়ী ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে। আমরা লঞ্চঘাটের যাত্রী দুর্ভোগ কমাতে সব সময় আন্তরিক বলেও তিনি মন্তব্য করেছেন।



 


করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৩,৩৯,৩৩২ ২,৯২,০১,৬৮৫
সুস্থ ২,৪৩,১৫৫ ২,১০,৩৫,৯২৬
মৃত্যু ৪,৭৫৯ ৯,২৮,৬৮৬
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
৩৩২৭০৬
পুরোন সংখ্যা