চাঁদপুর, মঙ্গলবার ২৭ অক্টোবর ২০২০, ১১ কার্তিক ১৪২৭, ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪২
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
কচুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কাঙ্ক্ষিত সেবা পাচ্ছে না রোগীরা
ব্যাঙের ছাতার মতো গজিয়ে উঠেছে প্রাইভেট ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার
মোহাম্মদ মহিউদ্দিন
২৭ অক্টোবর, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


কচুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে দীর্ঘদিন ধরে পরীক্ষা-নিরীক্ষার যন্ত্রপাতি নষ্টসহ চিকিৎসক সঙ্কট বিরাজ করছে। এতে কাঙ্ক্ষিত সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে রোগীরা। স্বাস্থ্য কমপ্লেঙ্ থেকে কাঙ্ক্ষিত সেবা না পাওয়ায় উপজেলা সদরে ব্যাঙের ছাতার মতো গজিয়ে উঠেছে বেশকিছু প্রাইভেট ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টার। এগুলোতে রোগীদের সেবার মান নিয়ে প্রায়ই অভিযোগ উঠতে দেখা গেছে।



সরেজমিনে হাসপাতালে গিয়ে দেখা গেছে রোগীদের ভোগান্তি এবং নানাভাবে হয়রানির চিত্র। এ হাসপাতালে চিকিৎসকের ২১টি পদের মধ্যে দীর্ঘদিন থেকে ৯টি পদই শূন্য। আবার ৯টি শূন্যপদের মধ্যে ৮টিই হচ্ছে কনসালটেন্ট পদ। এখানে গাইনী কনসালটেন্টের পদ দীর্ঘদিন শূন্য রয়েছে। ফলে নারীদের জটিল রোগের চিকিৎসা দেয়া সম্ভব হচ্ছে না। এছাড়া সার্জিকেল কনসালটেন্টের পদ শূন্য থাকায় অপারেশন থিয়েটার বন্ধ রয়েছে দীর্ঘদিন। যন্ত্রাভাবে অপারেশন থিয়েটারটিও বর্তমানে বিনষ্ট হয়ে আছে। এটি মেরামতযোগ্য নয়। নতুন করে অ্যানেসথেসিয়া মেশিন সরবরাহ করতে হবে। এঙ্-রে, রেডিওলজিস্ট ও টেকনিশিয়ান না থাকায় ১০ বছর যাবৎ অকেজো হয়ে পড়ে আছে এঙ্-রে মেশিনটি। ইসিজি মেশিনটিও নষ্ট। এতে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে রোগ নির্ণয় করা সম্ভব হচ্ছে না। এমন পরিস্থিতিতে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করার জন্যে হাতে সস্নিপ ধরিয়ে প্রাইভেট ক্লিনিক কিংবা ডায়াগনস্টিক সেন্টারে রোগীদের ধাবিত করতে অনেকটা বাধ্যই হচ্ছেন ডাক্তাররা। রোগীর হাতে সস্নিপ দেখামাত্রই টানাটানি শুরু করে দেয় বিভিন্ন প্রাইভেট ডায়াগনস্টিক সেন্টার ও ক্লিনিকের দালালরা। এসব প্রাইভেট ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারে উচ্চমূল্যে পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে গিয়ে সর্বস্বান্ত হচ্ছে সাধারণ রোগীরা। অভিযোগ রয়েছে, করোনার কারণে উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসাররা যান না উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রগুলোতে। ফলে কচুয়া উপজেলার স্বাস্থ্যসেবা নিয়ে দেখা দিয়েছে চরম সংশয়।



এ হাসপাতালের বিভিন্ন বিভাগে তৃতীয় শ্রেণির মোট কর্মচারীর পদসংখ্যা ১শ' ৫১-এর মধ্যে ৪৫টি পদ শূন্য রয়েছে। শূন্য পদের মধ্যে উল্লেখযোগ্য হচ্ছে, স্বাস্থ্য সহকারীর ৩০টি পদ ও মেডিকেল টেকনোলজিস্টদের ৩টি পদ। চতুর্থ শ্রেণির কর্মচারীদের ২২টি পদের মধ্যে ১১টি পদ শূন্য। এছাড়া দারোয়ানের পদসংখ্যা ২। আর এ ২টি পদই রয়েছে শূন্য। ৪টি উপ-স্বাস্থ্য কেন্দ্রের মধ্যে ৩টি উপ-সহকারী কমিউনিটি মেডিকেল অফিসারের পদ শূন্য। ৪টি ফার্মাসিস্ট পদের মধ্যে ৪টিই শূন্য। ৮টি ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে চিকিৎসক ও ভিজিটরদের বসার মতো চেয়ার-টেবিলের ব্যবস্থা নেই।



কনসালটেন্ট চিকিৎসক সঙ্কট বিষয়ে সিভিল সার্জন ডাঃ মোঃ সাখাওয়াত উল্যাহ জানান, কনসালটেন্ট চিকিৎসকের খসড়া তালিকা প্রণয়ন করা হয়েছে। তালিকা যাচাই-বাচাইয়ের কাজ চলছে। আগামী দেড় থেকে দু মাসের মধ্যে কনসালটেন্ট চিকিৎসকের শূন্য পদগুলো পূরণ হয়ে যাবে।



উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ সালাহউদ্দিন মাহমুদ চিকিৎসক সঙ্কট ও পরীক্ষা-নিরীক্ষার যন্ত্রপাতি নষ্টের সত্যতা স্বীকার করে জানান, এসব সমস্যার সমাধানের জন্যে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে।



 


এই পাতার আরো খবর -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৭৯-সূরা নাযি 'আত


৪৬ আয়াত, ২ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


১৩। ইহা তো কেবল এক বিকট আওয়াজ,


১৪। তখনই ময়দানে উহাদের আবির্ভাব হইবে।


১৫। তোমার নিকট মূসার বৃত্তান্ত পেঁৗছিয়াছে কি?


১৬। যখন তাহার প্রতিপালক পবিত্র উপত্যকা তুওয়া-য় তাহাকে আহ্বান করিয়া বলিয়াছিলেন,


 


 


সৌভাগ্য এবং প্রেম নির্ভীকের সঙ্গ ত্যাগ করে।


-ওভিড।


 


 


 


যে ব্যক্তি আল্লাহ ও পরকালে বিশ্বাস করে (অর্থাৎ মুসলমান বলে দাবি করে) সে ব্যক্তি যেন তার প্রতিবেশীর কোনো প্রকার অনিষ্ট না করে।


 


 


ফটো গ্যালারি
করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৭,৫১,৬৫৯ ১৬,৮০,১৩,৪১৫
সুস্থ ৭,৩২,৮১০ ১৪,৯৩,৫৬,৭৪৮
মৃত্যু ১২,৪৪১ ৩৪,৮৮,২৩৭
দেশ ২০০ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
৯৮৭১২
পুরোন সংখ্যা