চাঁদপুর, রোববার ২২ নভেম্বর ২০২০, ৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ৬ রবিউস সানি ১৪৪২
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • --
শাহতলীতে মতিন মিজির আত্মহত্যা রহস্যজনক
সোহাঈদ খান জিয়া
২২ নভেম্বর, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


চাঁদপুর সদর উপজেলার শাহমাহমুদপুর ইউনিয়নের শাহতলী গ্রামের মিজি বাড়ির মতিন মিজি (২০)-এর আত্মহত্যা রহস্যজনক বলে অভিযোগ উঠেছে।



নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক ক'ব্যক্তি জানান, মতিন মিজি যে রাতে আত্মহত্যা করেছে তার পূর্ববর্তী সন্ধ্যায় তার বড় ভাইয়ের ঘরে পারিবারিকভাবে তারা সালিস বৈঠক বসে। সালিস বৈঠক থেকে ঝগড়া করে গিয়ে সে আত্মহত্যা করে। তার আত্মহত্যার বিষয়টি পরিবারের সবাই জানে। ১০ নভেম্বর সন্ধ্যায় সালিস বৈঠক করেছে এবং ঐ রাতেই সে আত্মহত্যা করেছে। কিন্তু মতিন মিজির আত্মহত্যার তারিখ দেখানো হয়েছে একদিন পরে ১১ নভেম্বর। কেনইবা মতিন মিজির পরিবার এটা করেছে-এ নিয়ে সচেতন মহলে বিভিন্ন প্রশ্ন দেখা দিয়েছে।



অপর একটি সূত্র জানায়, জনৈক ব্যক্তি মতিন মিজিকে তার পাওনা টাকা ১১নভেম্বর দেওয়ার জন্যে তার বাড়িতে গিয়ে খোঁজ করে। কিন্তু তার খোঁজ না পেয়ে সে চলে আসে। তারপরই মতিন মিজি আত্মহত্যা করার ঘটনা প্রকাশ পায়। এমনকি মতিনের রুমে থাকা তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন তার এক ভাতিজা নিয়ে যায় এবং মোবাইল ফোনে থাকা অনেক রেকর্ডপত্র সে ডিলেট করে ফেলে। এমনকি থানা পুলিশ তার মোবাইল ফোন জব্দ না করে চলে আসে।



একটি বিশ্বস্ত সূত্র জানায়, মতিন মিজির আত্মহত্যার বিষয়ে তার পরিবারের সবাই জানতো। তারা আত্মহত্যা না করার জন্য নিষেধ করেনি। তাহলে কি মতিনের অর্থ সম্পদ পাওয়ার লোভের কারণে তারা নীরব রয়েছে? অপর একটি সূত্র জানায়, একটি চক্র মোটা অঙ্কের অর্থের বিনিময়ে ঘটনাটি ধামাচাপা দিয়েছে।



এ ব্যাপারে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) সি্নগ্ধা সরকার বলেন, এখন যেহেতু জানতে পেরেছি, তাহলে বিষয়টি আমি দেখবো।



 


এই পাতার আরো খবর -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৮১-সূরা তাকভীর


২৯ আয়াত, ১ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


১৩। এবং জান্নাত যখন সমীপবর্তী করা হইবে,


১৪। তখন প্রত্যেক ব্যক্তিই জানিবে সে কী লইয়া আসিয়াছে।


১৫। আমি শপথ করি পশ্চাদপসরণকারী নক্ষত্রের,


১৬। যাহা প্রত্যাগমন করে ও অদৃশ্য হয়,


 


যে উপদেশই দাও তা যেন খুব ছোট হয়।


-হেরেস।


 


 


নফস্কে দমন করাই সর্বপ্রথম জেহাদ।


 


ফটো গ্যালারি
করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৪,৬৪,৯৩২ ৬,৩১,৩৫,৯৭৩
সুস্থ ৩,৮০,৭১১ ৪,৩৬,১২,৩৫৩
মৃত্যু ৬,৬৪৪ ১৪,৬৬,২৮৯
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
৫৭০৩১
পুরোন সংখ্যা