চাঁদপুর, বৃহস্পতিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৭ রবিউস সানি ১৪৪২
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
চাঁদপুর-ফরিদগঞ্জ সড়কে পদে পদে বিপদ
৯টি অতিবিপদজনক ও ৮টি বিপদজনক স্থান চিহ্নিত
এমকে মানিক পাঠান
০৩ ডিসেম্বর, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


ফরিদগঞ্জ-চাঁদপুর আঞ্চলিক মহাসড়কটি যেন দিন দিন মরণ ফাঁদ হয়ে উঠছে। এই সড়কে থামছে না মৃত্যুর মিছিল। প্রায় প্রতি সপ্তাহেই এ সড়কে প্রাণহানিসহ পঙ্গুত্ববরণের ঘটনা ঘটে চলেছে।



ব্যস্ততম এ সড়কে বর্তমানে ডিভাইডার, অতিঝুঁকিপূর্ণ স্থানে স্পীড ব্রেকার না থাকায় বেপরোয়া গতিতে ধেয়ে আসা যানবাহনগুলোতেই এসব দুর্ঘটনা ঘটছে বলে অনেকে মনে করছেন। এ সড়কে মোট ১৭টি স্থানই বিপদজনক হিসেবে শনাক্ত করেছে পুলিশ। সরেজমিনে দেখা যায়, চাঁদপুর থেকে ফরিদগঞ্জের বর্ডারবাজার পর্যন্ত প্রায় ২০ কিঃমিঃ সড়কের বিভিন্ন অংশকে অতি ঝুঁকিপূর্ণ আখ্যা দিয়ে ইতিমধ্যে ভুক্তভোগী জনগণের পক্ষ থেকে বিভিন্ন দাবি উঠে আসছে। অপরদিকে বেপরোয়াভাবে চলছে বেশ কিছু মোটরসাইকেল, তৈলবাহী লরি, সিএনজি অটোরিকশা ও বালু বোঝাই ট্রাক। আবার অনেক যানবাহনের চালক অল্পবয়সী। ফাঁকা রাস্তা মনে করে দ্রুতগতিতে এসব গাড়ি চালাতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণহানিসহ পঙ্গুত্ববরণ করছে তারা। ঝুঁকি নিয়েই প্রতিদিন এই সড়ক দিয়ে দেশের বিভিন্ন স্থানে হাজার হাজার যানবাহন চলাচল করছে।



স্থানীয়রা বলছেন, প্রায়ই এই সড়ক দিয়ে বেপরোয়া গতিতে বিভিন্ন যানবাহন চলতে দেখা যায়। এসব যানবাহনের চালকের বেপরোয়া গতি দেখে মনে হচ্ছে, তারা নিজেদেরকে রাস্তার রাজা মনে করছে। ফলে যা হবার তা-ই ঘটছে।



পুলিশের একটি সূত্র জানায়, গত কদিন পর্যবেক্ষণ করে ওই সড়কের অন্তত ৯টি স্থানকে অতি বিপদজনক হিসেবে শনাক্ত করা হয়েছে। এ স্থানগুলো হলো যথাক্রমে খেজুরতলা, গৃদকালিন্দিয়া বাজার, চতুরা কামিন ডাক্তারের ব্রীজ, হাজী বাড়ির মোড়, ফরিদগঞ্জ ডায়াবেটিক হাসপাতালের সামনের অংশ, ভাঙ্গা বাড়ির মোড়, ধানুয়া শোভান মসজিদ মোড়, শোভান চৌরাস্তার মোড় ও টুবগী মোড়।



এছাড়াও বিপদজনক হিসেবে আরো ৮টি স্থান শনাক্ত করা হয়েছে। এসব স্থান হলো যথাক্রমে চরমান্দীর সরকারি স্কুলের সম্মুখস্থান, জোড়কবর এলাকা, ফরিদগঞ্জ বাসস্ট্যান্ড, ধানুয়া দাস বাড়ির সম্মুখস্থান, ধানুয়া শোভান মসজিদ, শোভান ব্রীজের পরে ও আগের অংশ, টুবগী মোড় ও সেকদি রাস্তার মাথা।



এ নিয়ে উক্ত সড়কের দায়িত্বপ্রাপ্ত ট্রাফিক ইন্সপেক্টর মোঃ ইস্রাফিল বলেন, ফরিদগঞ্জ-চাঁদপুর সড়কে পরিদর্শন করে মোট ৯টি স্থানকে অতিবিপদজনক ও ৮টি স্থানকে বিপদজনক হিসেবে শনাক্ত করেছে। তিনি আরো বলেন, দুর্ঘটনা এড়াতে হলে উক্ত সড়কের বিভিন্ন স্থানে স্পীড ব্রেকার অথবা সড়কটির মাঝখান বরাবর ডিভাইডার করা ছাড়া অন্য বিকল্প ।



ফরিদগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ শহীদ হোসেন বলেন, ফরিদগঞ্জ-চাঁদপুর সড়কে দুর্ঘটনা এড়াতে বিশেষ বেপরোয়া গতিতে যানবাহন না চালাতে নানাভাবে চালকদের উদ্বুদ্ধ করা হচ্ছে। এছাড়াও এ সড়কে দুর্ঘটনা প্রতিরোধকল্পে সড়কটির বিভিন্ন বিপদজনক স্থানে স্পীড ব্রেকার ও বাঁকগুলোতে ডিভাইডার দেয়ার জন্য প্রস্তাব করা হয়েছে।



 


এই পাতার আরো খবর -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৮৯-সূরা ফাজর :


৩০ আয়াত, ১ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


১২। এবং সেথায় অশান্তি বৃদ্ধি করিয়াছিল।


১৩। অতঃপর তোমার প্রতিপালক উহাদের উপর শাস্তির কষাঘাত হানিলেন।


১৪। তোমার প্রতিপালক অবশ্যই সতর্ক দৃষ্টি রাখেন।


 


 


 


assets/data_files/web

প্রকৃতি বিধাতার অমূল্য দান। _টমাস


 


 


 


 


 


যাহার একদিনের সংস্থান আছে ভিক্ষা করা তাহার জন্য নিষিদ্ধ।


 


 


 


 


ফটো গ্যালারি
করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৫,১২,৪৯৬ ৮,২৪,৩৫,৪৮২
সুস্থ ৪,৫৬,০৭০ ৫,৮৪,৪৩,৫১৫
মৃত্যু ৭,৫৩১ ১৭,৯৯,২৯৪
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
৮৭৮৫১৪
পুরোন সংখ্যা