চাঁদপুর, মঙ্গলবার ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২১, ১০ ফাল্গুন ১৪২৭, ১০ রজব ১৪৪২
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
মতলব পৌরসভা নির্বাচন : বিএনপি প্রার্থীর নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা
নির্বাচন কর্মকর্তা ও প্রশাসনের বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ
চাঁদপুর কণ্ঠ রিপোর্ট
২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০২১ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


মতলব পৌরসভা নির্বাচনে বিএনপির মেয়র প্রার্থী এনামুল হক বাদল নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি ভোটগ্রহণের আট দিন আগে গতকাল ২২ ফেব্রুয়ারি সাংবাদিক সম্মেলন করে নির্বাচন বর্জনের ঘোষণা দেন। গতকাল বেলা সাড়ে ১১টায় চাঁদপুর প্রেসক্লাবে এ সাংবাদিক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সাংবাদিক সম্মেলনে এনামুল হক বাদল লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন। তিনি জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও এ নির্বাচনের রিটার্নিং অফিসার মোঃ তোফায়েল আহমেদ এবং জেলা প্রশাসকসহ স্থানীয় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ করেন। একই সাথে তিনি সরকার দলীয় লোকজনের বাধা ও হামলার কারণে নির্বাচনের গণসংযোগসহ কোনো কাজ করতে পারছেন না বলেও সাংবাদিক সম্মেলনে অভিযোগ করেন। এ সব বিষয়ে মতলব থানা পুলিশের কাছে এবং রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসনের কাছে অভিযোগ করেও তিনি প্রতিকার পাননি বলে জানান। নিচে এনামুল হক বাদলের লিখিত বক্তব্য তুলে ধরা হলো।



প্রিয় সাংবাদিক বন্ধুগণ,



আসসালামু আলাইকুম। আপনারা জানেন, আসন্ন মতলব পৌরসভা নির্বাচনে আমি বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল-বিএনপি মনোনীত ধানের শীষের একজন মেয়র প্রার্থী। আমি সারাটা জীবন জাতীয়তাবাদের একজন নিবেদিত কর্মী। ছাত্রজীবন থেকেই রাজনীতির সাথে জড়িত। আমি থানা ছাত্র দলের সভাপতি, পৌর যুবদলের সভাপতি ও মতলব পৌর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ছিলাম। বর্তমানে উপজেলা বিএনপির সভাপতি। আমি বিগত ৩ বার নির্বাচনে অংশগ্রহণ করে ২বার বিপুল ভোটে মতলব পৌরসভার মেয়র নির্বাচিত হই।



প্রিয় সাংবাদিক ভাইয়েরা,



আমি এ বছর দলের মার্কাকে সম্মান করে সকল বাধা থাকা সত্বেও নির্বাচনে অংশগ্রহণ করি। কিন্তু নির্বাচনের প্রথম থেকেই নির্বাচন কমিশন ও প্রশাসন অসহযোগিতা করে আসছে। তাছাড়া সরকার দলীয় আওয়ামী লীগ ও তার অঙ্গ-সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা পৌরসভার প্রতিটি এলাকায় ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করছে। প্রতিদিন দলীয় নেতা-কর্মীদের হুমকি-ধামকি, নির্বাচনী কর্মকা-ে বাধা প্রদানসহ অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীদের ঘরবাড়ি ও এলাকা ছাড়ার হুমকি প্রদান করা হচ্ছে। তাছাড়া নির্বাচনের প্রচার-প্রচারণার দিন থেকে সকল ওয়ার্ডের আমার নির্বাচনী পোস্টার প্রকাশ্যে ছিঁড়ে ফেলছে এবং আগুন ধরিয়ে দিচ্ছে।



প্রিয় সাংবাদিক বন্ধুগণ,



এ সব বিষয়ে জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার, প্রধান নির্বাচন কমিশনার বরাবর (১০টি অভিযোগ সংযুক্ত) অভিযোগ করার পরেও কোনো প্রতিকার পাইনি। তাছাড়া সর্বশেষ জেলা প্রশাসকের উদ্যোগে মতবিনিময় সভার উল্লেখিত বিষয়ে অবগত করার পরও কোনো প্রতিকার পাইনি এবং ওই দিনই নির্বাচনের প্রচারণা করতে গিয়ে মুন্সিরহার ও জাফরিয়া এলাকায় আওয়ামী লীগ ও যুবলীগের সন্ত্রসীরা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে আমার গণসংযোগ বানচাল করে উল্লেখ্য গণসংযোগের বিষয়ে রিটার্নিং অফিসার ও ভারপ্রাপ্ত কর্তকর্তাকে অবহিত করা হয়েছিলো কিন্তু কোনো কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা স্থানীয়সহ জাতীয় পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে। বর্তমানে আমার নির্বাচনী এলাকায় নির্বাচনের কোনো পরিবেশ নেই।



তাই, রিটার্নিং অফিসার ও প্রশাসনের অসহযোগিতা, আওয়ামী সন্ত্রাসী বাহিনীর অব্যাহত হুমকি-ধামকি, মামলা-হামলা, জানমালের ক্ষয়ক্ষতি থেকে ধানের শীষের কর্মী-সমর্থকদের রক্ষা করার নিমিত্তে সিনিয়র নেতৃবৃন্দের পরামর্শে এক তরফা প্রহসনের নির্বাচন বর্জন করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করলাম। তাই একতরফা নির্বাচন থেকে দলীয় নেতা-কর্মী ও সাধারণ ভোটারদের বিরত থাকার আহ্বান জানাই।



সাংবাদিক সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন প্রেসক্লাবের সহ-সভাপতি সোহেল রুশদী। পরিচালনা করেন প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক রহিম বাদশা। উপস্থিত ছিলেন মতলব দক্ষিণ উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক সফিকুল ইসলাম সাগর, পৌর বিএনপির সভাপতি সোয়েব আহমেদ সরকার, সাধারণ সম্পাদক জাকির হোসেন, পৌর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি সোয়েব আহমেদ, উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক মজিবুর রহমানসহ দলীয় আরো নেতৃবৃন্দ। এছাড়া সিনিয়র সাংবাদিকগণ উপস্থিত ছিলেন।



 



 


হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৯৬-সূরা 'আলাক


১৯ আয়াত, ১ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


১৫। সাবধান, সে যদি বিরত না হয় তবে আমি তাহাকে অবশ্যই হেঁচড়াইয়া লইয়া যাইব, মস্তকের সম্মুখভাগের কেশগুচ্ছ ধরিয়া-


১৬। মিথ্যাচারী, পাপিষ্ঠের কেশগুচ্ছ।


১৭। অতএব সে তাহার পার্শ্বচরদিগকে আহ্বান করুক।


 


 


মূর্খতা এমন এক পাপ, সারাজীবনে যার প্রায়শ্চিত্ত হয় না।


-আল-ফখরি।


 


 


 


কাউকে অভিশাপ দেওয়া সত্যপরায়ণ ব্যক্তির উচিত নয়।


 


ফটো গ্যালারি
করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৭,৫১,৬৫৯ ১৬,৮০,১৩,৪১৫
সুস্থ ৭,৩২,৮১০ ১৪,৯৩,৫৬,৭৪৮
মৃত্যু ১২,৪৪১ ৩৪,৮৮,২৩৭
দেশ ২০০ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
১০৩৯১২
পুরোন সংখ্যা