চাঁদপুর, রোববার ৭ মার্চ ২০২১, ২২ ফাল্গুন ১৪২৭, ২২ রজব ১৪৪২
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী : বীর মুক্তিযোদ্ধাদের ভাবনা-৭
যে সকল মুক্তিযোদ্ধা বেঁচে আছেন তাদের খুশির সীমা নেই
------------অজিত সাহা
গোলাম মোস্তফা
০৭ মার্চ, ২০২১ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


বীর মুক্তিযোদ্ধা অজিত সাহা বলেছেন, স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী একজন মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে বেঁচে থেকে দেখে যাওয়ার সৌভাগ্য আমার হয়েছে। এজন্যে প্রথমে মহান সৃষ্টিকর্তার নিকট কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। কারণ, সেদিন রণাঙ্গনে যে সকল সহযোদ্ধা সাথীদের নিয়ে মহান স্বাধীনতা সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়েছি তাদের অনেককে ঐ সময়ে হারিয়ে ফেলেছি। আবার অনেক কে স্বাধীনতা লাভের পর থেকে আজ পর্যন্ত ধীরে ধীরে চিরবিদায় দিতে হয়েছে। জাতির একজন শ্রেষ্ঠ সন্তান হিসেবে মহান স্বাধীনতা সংগ্রামের শুরু থেকে স্বাধীন দেশের রজতজয়ন্তী পর্যন্ত চোখের সামনে অনেক ঘটনার প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ বহু সাক্ষী হতে হয়েছে। সেজন্যে মনে করি আমি একজন সৌভাগ্যবান। শুধু আমি নই, আজ যে সকল মুক্তিযোদ্ধা বেঁচে আছেন তাদের খুশির সীমা নেই।



চাঁদপুরে অনন্য রেকর্ডধারী দম্পতি অর্থাৎ স্বামী ও স্ত্রী দুজনেই জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বা বীর মুক্তিযোদ্ধা। একজন সরাসরি মাঠের যোদ্ধা অজিত সাহা, আরেকজন জাতিকে যুদ্ধে ঝাঁপিয়ে পড়ার জন্য গানের মাধ্যমে উদ্বুদ্ধ করেছেন অর্থাৎ কণ্ঠ যোদ্ধা কৃষ্ণা সাহা। বীর মুক্তিযোদ্ধা অজিত কুমার সাহার সাথে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে দৈনিক চাঁদপুর কণ্ঠের ধারাবাহিক আয়োজন মুক্তিযোদ্ধাদের ভাবনা বিষয়ে কথা হয়। প্রশ্নোত্তর আকারে সেটি নিম্নে তুলে ধরা হলো :-



দৈনিক চাঁদপুর কণ্ঠ : মুক্তিযুদ্ধে বিজয়ের পর পঞ্চাশ বছর বেঁচে থেকে স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর দেখা পেলেন। একজন মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে আপনার অনুভূতি কেমন?



অজিত সাহা : আমি মনে করি আমার চেয়ে এমন সৌভাগ্যবান জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান খুব কমই রয়েছেন। যারা সেদিন স্বাধীনতা সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়েছেন দেশকে স্বাধীন করার জন্যে, আজ সেই স্বাধীন দেশের রজতজয়ন্তীতে বেঁচে থেকে তা দেখে যাওয়া চরম সৌভাগ্যের। তাই আমি সর্বপ্রথম মহান সৃষ্টিকর্তার নিকট কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। এর চেয়ে বড় অন্য কোনো অনুভূতি এবং সে অনুভূতি প্রকাশ করার ভাষা আমার জানা নেই।



দৈনিক চাঁদপুর কণ্ঠ : যে স্বপ্ন নিয়ে মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছিলেন, সেই স্বপ্নের সমান্তরালে দেশের অগ্রযাত্রা লক্ষ্য করছেন কি?



অজিত সাহা : একজন মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে বলতে চাই, এক সময় দেশের অগ্রযাত্রা সকল ক্ষেত্রে বাধাগ্রস্ত হতো। স্বাধীনতা বিরোধীরা স্বাধীনতার পূর্ব থেকেই ষড়যন্ত্রের বীজ বপন করে আজো তারা প্রতিশোধের নেশায় মত্ত। কিন্তু সফল হতে পারেনি। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশের সরকার গঠনের পর আজ আমরা এগিয়ে চলছি। যেমনিভাবে আমাদের মুক্তিযোদ্ধাদের তিনি মূল্যায়ন করছেন, তেমনি দেশ ও জনগণের কল্যাণে কাজ করে যাচ্ছেন। আজ মুক্তিযোদ্ধাদের রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদা প্রদান এবং রাষ্ট্রের পক্ষ থেকে সম্মানী ভাতা ২০ হাজার টাকা করার যে প্রস্তাব সেটিও মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রস্তাব। তাই আমি মনে করি দেশ আজ সকল ক্ষেত্রে এগিয়ে চলছে।



দৈনিক চাঁদপুর কণ্ঠ : দেশকে নিয়ে আপনার কোনো অতৃপ্তি আছে কি?



অজিত সাহা : একটা অতৃপ্তি রয়ে গেছে, তা হলো স্বাধীনতা বিরোধী চক্রের আশীর্বাদ পুষ্ট গোষ্ঠীর অস্তিত্ব এখনো টিকে থাকা, যারা দুর্নীতির মাধ্যমে দেশকে বার বার বিভিন্নভাবে বিতর্কিত করার চেষ্টা করছে। এদেরকে প্রতিহত অর্থাৎ দেশের সকল ক্ষেত্রে দুর্নীতিবাজদেরকে প্রতিহত করতে পারলেই আমাদের স্বপ্ন শতভাগ পূরণ হয়ে যাবে।



দৈনিক চাঁদপুর কণ্ঠ : স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে আপনি কাকে বা কাদেরকে বেশি স্মরণ করতে চান?



অজিত সাহা : স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে আজ মনে পড়ে সর্বপ্রথম যে ব্যক্তিটির নাম, যার জন্ম না হলে বাংলাদেশের সৃষ্টি হতো না, যাঁর নেতৃত্বে সেদিন বাঙালি জাতি শ্রেণি-পেশাসহ সকল ভেদাভেদ ভুলে গিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে স্বাধীনতা সংগ্রামে ঝাঁপিয়ে পড়েছিলো, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ তাঁর পরিবারবর্গকে। স্মরণ করছি রণাঙ্গনের সেই সকল সহযোদ্ধাকে, যাঁদের সাথে রণাঙ্গনে একসাথে লড়াই করে চিরতরে হারিয়েছি তাদেরকে। আজ স্মরণ করছি স্বাধীনতা লাভের পর ধীরে ধীরে এক এক করে হারিয়ে ফেলা সেই সকল সহযোদ্ধাকে। যাঁদের সাথে একসাথে বিজয়ী দেশকে গড়তে গিয়ে চিরবিদায় জানাতে হয়েছে। তাদের সকলের রুহের মাগফেরাত কামনা করছি।



দৈনিক চাঁদপুর কণ্ঠ সকলের উদ্দেশ্যে আপনার পছন্দের কিছু কথা বলুন।



অজিত সাহা সকলের উদ্দেশ্যে বলার শুধু এটুকুই রয়েছে। স্বাধীনতা লাভ করার পর আজ স্বাধীন দেশের ৫০ বছর পূর্ণ হতে চলছে। কিন্তু আমরা আজো নিজেদেরকে দেশপ্রেমিক হিসেবে গড়ে তুলতে পারিনি। আমাদের মাঝে দেশপ্রেমের অভাব রয়েছে। তাই আসুন আমরা ঐক্যবদ্ধ শপথ নেই, দেশকে ভালোবাসি, দেশের মাটিকে ভালোবাসি। আর স্বাধীনতার নেতৃত্বদানকারী সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভানেত্রী, বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশকে উন্নয়ন-অগ্রযাত্রায় সামনে নিয়ে যাই।



 


হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২-সূরা বাকারা


২৮৬ আয়াত, ৪০ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


১৬। ইহারাই হিদায়াতের বিনিময়ে ভ্রান্তি ক্রয় করিয়াছে। সুতরাং তাহাদের ব্যবসা লাভজনক হয় নাই, তাহারা সৎপথেও পরিচালিত নহে।


 


 


assets/data_files/web

একজন জ্ঞানী প্রশাসক সময়োপযোগী শাসন করেন।


-সিডনি লেনিয়ার।


 


যার মধ্যে বিনয় ও দয়া নেই, সে সকল ভালো গুণাবলি হতে বঞ্চিত।


 


 


ফটো গ্যালারি
করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৬,৪৪,৪৩৯ ১৩,২১,৯৪,৪৪৭
সুস্থ ৫,৫৫,৪১৪ ১০,৬৪,২৬,৮২২
মৃত্যু ৯,৩১৮ ২৮,৬৯,৩৬৯
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
১৪২৬৬
পুরোন সংখ্যা