চাঁদপুর। রোববার ১৮ জুন ২০১৭। ৪ আষাঢ় জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪। ২২ রমজান ১৪৩৮
ckdf

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২৮-সূরা কাসাস 


৮৮ আয়াত, ৯ রুকু, ‘মক্কী’


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৫৯। তোমার প্রতিপালক জনপদসমূহকে ধ্বংস করেন না উহার কেন্দ্রে তঁাঁহার আয়াত আবৃত্তি করিবার জন্য রাসূল প্রেরণ না করিয়া এবং আমি জনপদসমূহকে তখনই ধ্বংস করি যখন ইহার বাসিন্দারা যুলুম করে।


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 


দেশের নিরাপত্তাই সর্বোচ্চ আইন।


                -জাস্টিনিয়ান।


যার হৃদয়ে বিন্দু পরিমাণ অহঙ্কার আছে সে কখনো বেহেস্তে প্রবেশ করতে পারবে না। 


 

ঘনিষ্ঠ হচ্ছে সৌদি-ইসরায়েল সম্পর্ক!
১৮ জুন, ২০১৭ ১৭:২১:৩০
প্রিন্টঅ-অ+


সৌদি আরব ও ইসরায়েলের সম্পর্ক ক্রমেই ঘনিষ্ঠ হচ্ছে। লন্ডনভিত্তিক সংবাদমাধ্যম দ্য টাইমস জানিয়েছে, অচিরেই আনুষ্ঠানিকভাবে অর্থনৈতিক চুক্তি সম্পাদন করতে যাচ্ছে ধর্মীয় ও ভূরাজনৈতিকভাবে একসময়ের ‘শত্রুভাবাপন্ন’ দেশ দুটি ।



গতকাল শনিবার প্রকাশিত এক খবরে টাইমস জানায়, জেরুজালেম ও রিয়াদ সম্পর্ক উন্নয়নের বিষয়টি পরীক্ষা নিরীক্ষা করে দেখছে।



সম্পর্ক উন্নয়নের অংশ হিসেবে সৌদি আরব ইসরায়েলকে নিজেদের ভূখণ্ডে ব্যবসা করার অনুমতি দেওয়ার বিষয়ে ভাবছে। এ ছাড়া ইসরায়েলের রাষ্ট্রীয় বিমান ‘ইএলএআই’কে সৌদির আকাশ সীমা ব্যবহারের অনুমতি দেওয়ার বিষয়টিও আছে বলে জানিয়েছে টাইমস।



ইসরায়েলের সরকারনিয়ন্ত্রিত সংবাদমাধ্যম ‘আউরাজ শেভা’ এরইমধ্যে সৌদি ও ইসরায়েলের সম্পর্ক উন্নয়নের বিষয়ে একটি বিস্তারিত প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।



সৌদি কর্তৃপক্ষ টাইমসের প্রতিবেদনটি নাকচ করে জানিয়েছে, এটি প্রপাগাণ্ডা। এক শ্রেণির বিদেষশ সংবাদমাধ্যম প্রত্যাশা করে ভবিষ্যতে সৌদি-ইসরায়েল সম্পর্কের উন্নতি হবে। 



সম্প্রতি সৌদি-ইসরায়েলের গোপন যোগাযোগের বিষয়টি নিয়ে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমে বেশ কিছু প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়েছে। যদিও এখন পর্যন্ত ইসরারায়েল-সৌদির মধ্যে কোনো প্রকাশ্য সম্পর্ক নেই।



এদিকে আউরাজ শেভার প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইউরোপের দেশগুলোতে সৌদি-ইসরায়েলের বৈঠক হতে পারে।



এদিকে যুক্তরাষ্ট্রের উচ্চপদস্থ গোয়েন্দা কর্মকর্তার বরাত দিয়ে দ্য টাইমস জানায়, সৌদির জ্যেষ্ঠ কর্মকর্তারা সম্প্রতি ইসরায়েল ভ্রমণ করেছেন। সেখানে তারা ইসরায়েলের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের সঙ্গে বৈঠকও করেছেন।



ওই গোয়েন্দা কর্মকর্তা আরও জানান,মার্কিন প্রশাসন চায় ফিলিস্তিন কর্তৃপক্ষ আবারও শান্তি আলোচনায় বসুক। আর এর প্রথম ধাপ হিসেবে সৌদির সঙ্গে ইসরায়েলের সম্পর্ক স্বাভাবিক করতে চাচ্ছে দেশটি। তাদের ধারণা এই পদক্ষেপ ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ও ফিলিস্তিনের প্রেসিডেন্ট মাহমুদ আব্বাসকে আলোচনায় টেবিলে আনতে সাহায্য করবে।



ইউরোপের সংবাদমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনের কথা উল্লেখ করে দ্য টাইমস জানিয়েছে, সাম্প্রতিক বছরগুলোতে মধ্যপ্রাচ্যের কূটনীতিকে ঘিরে অনেকেরই ধারণা ছিল, সৌদি আরব আঞ্চলিক শত্রু ইরানকে দমনে ইসরায়েলের সঙ্গে হাত মেলাচ্ছে।



২০১৩ সালে ইরানের এক রাষ্ট্রীয় প্রতিবেদনে জানানো হয়েছিল, সৌদি গোয়েন্দা প্রধান ইসরায়েলের গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদ প্রধানের সঙ্গে সু্ইজারল্যান্ডের জেনেভায় বৈঠক করেছিলেন।



এ ছাড়া গত মাসে সংবাদমাধ্যম ওয়াল স্ট্রিট জার্নালের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, উপসাগরীয় আরবদেশগুলো ইসরাইলকে তাদের আকাশসীমা ব্যবহার ও সরাসরি টেলিযোগাযোগ স্থাপনের প্রস্তাব দিয়েছে। যদিও এ ধরনের অভিযোগ বরাবরই অস্বীকার করেছে সৌদি আরব।



 



তথ্য সূত্র : এনটিভি অনলাইন


আজকের পাঠকসংখ্যা
১৫৯১৪১৯
পুরোন সংখ্যা