চাঁদপুর। মঙ্গলবার ২১ মার্চ ২০১৭। ৭ চৈত্র ১৪২৩। ২১ জমাদিউস সানি ১৪৩৮

বিজ্ঞাপন দিন

বিজ্ঞাপন দিন

সর্বশেষ খবর :

  • আজ ভোরে অ্যাডঃ এ.বি.এম. মোনাওয়ার উল্লা মৃত্যুবরন করেছেন (ইন্নালিল্লাহে.....রাজেউন)। তাঁর মৃত্যুতে চাঁদপুর রোটারী ক্লাব ও চাঁদপুর ডায়াবেটিক সমিতির পক্ষ থেকে গভীর শোক জানিয়েছেন
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২৭-সূরা নাম্ল 


৯৩ আয়াত, ৭ রুকু, ‘মক্কী’


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৫৫। ‘তোমরা কি কামতৃপ্তির জন্য নারীকে ছাড়িয়ে পুরুষে উপগত হইবে? তোমরা তো এক অজ্ঞ সম্প্রদায়।’ 


৫৬। উত্তরে তাহার সম্প্রদায় শুধু বলিল, ‘লূত-পরিবারকে তোমাদের জনপদ হইতে বহিস্কৃত কর, ইহারা তো এমন লোক যাহারা পবিত্র সাজিতে চাহে।’  


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


কলমকে হৃদয়ের জিহ্বা বলা যায়।     -কারভেনটেস।

যে মুসলমান অবৈধ (হারাম) বস্তু হইতে দূরে থাকে ও ভিক্ষাবৃত্তি হইতে দূরে থাকে, যাহার শুধু একটি পরিবার (স্ত্রী), খোদাতায়ালা তাহাকেই ভালোবাসেন।   


গুয়াখোলাবাসীর মহানুভবতা
২১ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+

স্বামী কন্যাহীন চিরকুমারী অঞ্জলী সরকারের সদগতি কামনাসহ তার পরম আত্মার শান্তির লক্ষ্যে শ্রাদ্ধ ক্রিয়াদি সম্পন্ন করার জন্য মানবতার পরিচয় দিয়েছেন চাঁদপুর শহরের গুয়াখোলাবাসী।

অঞ্জলী সরকার গুয়াখোলা নিবাসী স্বর্গীয় কালীপদ চন্দের বাড়িতে কালীপদের নিজস্ব ভূমিতে নিজে ঘর উত্তোলন পূর্বক এলাকাবাসীর সাহায্য সহযোগিতা নিয়ে বাস করে আসছেন দীর্ঘ বছর যাবত। জীবনে বিয়েশাদী না করে রয়েছেন চির কুমারী। নিঃসঙ্গ জীবন কাটিয়েছেন মৃত্যুর আগ পর্যন্ত। স্বামী সন্তান না থাকায় এলাকাবাসীই ছিলেন তার বড় আপনজন। বিপদে আপদে প্রতিবেশীরাই এগিয়ে এসেছেন তার পাশে। প্রতিবেশীরা শুধু জীবন্ত অঞ্জলীকেই সাহায্য করেননি, মৃত্যুর পরও তার পাশে দাঁড়িয়েছেন। গত ১৬ মার্চ রাত সোয়া ৯টায় তার মৃত্যু হলে এ দিন রাতেই তার শেষকৃত্য সম্পন্ন করার জন্য এলাকাবাসী তাকে নিয়ে যায় চাঁদপুর মহাশ্মশানে। প্রতিবেশী রূপালী সরকার তার মুখাগি্ন করেন। তার আত্মার সদগতি কামনায় এলাকাবাসী গত ১৯ মার্চ তার শ্রদ্ধা অনুষ্ঠান সম্পন্ন করেন ধর্মীয় বিধি বিধান মেনে। শ্রাদ্ধ অনুষ্ঠানে পৌরহিত্য করেন পন্ডিত কালীপদ চক্রবর্তী। পঞ্চাশ ঊর্ধ্ব অঞ্জলী দেবীর শ্রাদ্ধ অনুষ্ঠান সম্পন্নে কোথায়ও কৃপণতা করেন নি এলাকাবাসী। তাদের মহানুভবতায় মনে করিয়ে দেয় মানুষ মানুষের জন্যে।

আজকের পাঠকসংখ্যা
৪৩৬১০৮
পুরোন সংখ্যা