চাঁদপুর। সোমবার ১৬ এপ্রিল ২০১৮। ৩ বৈশাখ ১৪২৫। ২৮ রজব ১৪৩৯

বিজ্ঞাপন দিন

jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৩৭- সূরা আস-সাফফাত

১৮২ আয়াত, ৫ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

২৯। তারা বলবে, বরং তোমরা তো বিশ^াসীই ছিলে না।

৩০। এবং তোমাদের উপর আমাদের কোনো কর্তৃত্ব ছিল না, বরং তোমরাই ছিলে সীমা লংঘনকারী সম্প্রদায়।

৩১। আমাদের বিপক্ষে আমাদের পালনকর্তার উক্তিই সত্য হয়েছে। আমাদেরকে অবশ্যই স্বাদ আস্বাদন করতে হবে।

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


দারিদ্র্যকে যে মাথা পেতে গ্রহণ করে, সে ব্যক্তিত্বহীন পুরুষ।         


-লংফেলো।




মানুষ মিথ্যাবাদী সাব্যস্ত হবার জন্যে এটাই যথেষ্ট যে, সে যা শোনে (যাচাই না করে) তা-ই বলে বেড়ায়।  

 


ফটো গ্যালারি
বাকিলায় ৩ মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রামবাসী গাঁজাসহ ধরে পুলিশে দিয়েছে
হাজীগঞ্জ ব্যুারো
১৬ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


হাজীগঞ্জের বাকিলায় মাদকের বিরুদ্ধে কয়েক গ্রামবাসী সোচ্চার হয়েছে। ফুলছোঁয়া, সন্না ও বোরখাল গ্রামবাসী মাদকের বিরুদ্ধে সভা করেছে। এ সভার মাত্র দু'দিনের মধ্যে গ্রামবাসী ৩ মাদক ব্যবসায়ীকে গাঁজাসহ ধরে পুলিশে দিয়েছে। ইয়াবা, গাঁজা ও নেশাদ্রব্য খাইয়ে সর্বস্ব লুটের ঘটনায় অতিষ্ঠ হয়ে গত শুক্রবার বিকেলে স্থানীয় ফুলছোঁয়া, সন্না ও বোরখাল গ্রামবাসী মাদকের বিরুদ্ধে সভার আয়োজন করে। এ সভার দু'দিনের মধ্যে গ্রামবাসী তিন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করে। আটককৃতরা হলো ফুলছোঁয়া গ্রামের সর্দার বাড়ির মৃত ইউছুফ মিয়ার ছেলে মোহাম্মদ আলী (৩২), একই বাড়ির আব্দুল মালেকের ছেলে মোঃ গোফরান (২১) ও রাধাসার গ্রামের ছৈয়াল বাড়ির ফজলুল হকের ছেলে মোঃ কাউছার (২৬)।



থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, আটককৃতদের বিরুদ্ধে রোববার মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা (নং-১৭) করা হয়েছে এবং ওইদিন তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়। এর পূর্বে শনিবার রাতে মাদক বিক্রি অবস্থায় ফুলছোঁয়া গ্রামবাসী তাদের চারদিক থেকে ঘিরে ফেলে পুলিশে খবর দেয়। পরে থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) কেএম হাসান মাহমুদুল কবির সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে ঘটনাস্থলে উপস্থিত হন এবং তাদেরকে ২শ' গ্রাম গাঁজাসহ আটক করেন।



স্থানীয়রা জানান, আটককৃত মাদক ব্যবসায়ীদের গডফাদারসহ তাদের পরিবার ও আত্মীয়-স্বজন গ্রামবাসীকে বিভিন্নভাবে হুমকি দিয়ে আসছে। এমনকি সভার আয়োজনকারীদের বিরুদ্ধে মামলা করার হুমকি প্রদর্শন করা হচ্ছে। হাজীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ জাবেদুল ইসলাম জানান, বাকিলা ইউনিয়নের তিন গ্রামবাসী মাদক প্রতিরোধে যে উদ্যোগ গ্রহণ করেছে তাদের এ কাজে আমাদের সকল সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। মাদক বিক্রেতাদের হুমকির বিষয়ে এ কর্মকর্তা বলেন, আমরা মাদকের বিষয়ে কঠোর অবস্থানে রয়েছি। আর মামলার আসামীদের রোববার আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।



উল্লেখ্য, বাকিলা ইউনিয়নের সন্না, ফুলছোঁয়া ও বোরখালসহ তৎসংলগ্ন স্থানে ইয়াবা, গাঁজা, নেশাদ্রব্য খাইয়ে সর্বস্ব লুটের ঘটনায় অতিষ্ঠ হয়ে গত শুক্রবার বিকেলে স্থানীয় ফুলছোঁয়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে মাদকবিরোধী সভার আয়োজন করা হয়। সেই সভা শেষে ওই সব গ্রামের মাদক বিক্রি ও মাদকসেবীদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে সতর্ক করা হয়। ঐ সভার দু' দিনের মাথায় গাঁজাসহ ৩ মাদক বিক্রেতাকে হাতেনাতে ধরে পুলিশে দেয়। এদিকে মাদক বিক্রেতাদের ধরিয়ে দেয়ার পর থেকে এলাকাবাসীকে স্থানীয় মাদকের পাইকারী বিক্রেতারা হুমকি-ধমকি দিচ্ছে বলে এলাকাবাসী জানান।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৪৪০৬৬৫
পুরোন সংখ্যা