চাঁদপুর। মঙ্গলবার ১৭ এপ্রিল ২০১৮। ৪ বৈশাখ ১৪২৫। ২৯ রজব ১৪৩৯

বিজ্ঞাপন দিন

jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৩৭- সূরা আস-সাফফাত


১৮২ আয়াত, ৫ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৩২। আমরা তোমাদেরকে পথভ্রষ্ট করেছিলাম। কারণ আমরা নিজেরাই পথভ্রষ্ট ছিলাম।


৩৩। তারা সবাই সেদিন শান্তিতে শরীক হবে।


৩৪। অপরাধীদের সাথে আমি এমনি ব্যবহার করে থাকি।


৩৫। তাদের যখন বলা হত, আল্লাহ ব্যতীত কোন উপাস্য নেই, তখন তারা ঔদ্ধত্য প্রদর্শন করত।


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 


 


উৎকৃষ্ট বীজ থেকেই উত্তম বৃক্ষ জন্ম নেয়।


-জনগে।


 


 


 


 


পিতার আনন্দে খোদার আনন্দ এবং পিতার অসন্তুষ্টিতে খোদার অসন্তুষ্টি


 


 


ফটো গ্যালারি
মাজহারুল হক বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতালে রোগীদের নিরাপত্তা ও সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ বিষয়ক সভা
১৭ এপ্রিল, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


মাজহারুল হক বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতাল, চাঁদপুরে গত ১৫ এপ্রিল ২০১৮ রোববার চক্ষু চিকিৎসা ক্ষেত্রে রোগীদের নিরাপত্তা ও সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ বিষয়ক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। উক্ত সভায় গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের ন্যাশনাল আই কেয়ার কর্মসূচির অধীনে বাস্তবায়নকৃত স্ট্যান্ডার্ড ক্যাটারাক্ট সার্জারি প্রটোকল বিষয়ে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন হাসপাতালের চীফ কনসালটেন্ট ডাঃ মোঃ আনোয়ার হোসেন শেখ। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন হাসপাতালের কার্যনির্বাহী পরিষদের অবৈতনিক সাধারণ সম্পাক এমএ মাসুদ ভূঁইয়া।



 



প্রতিষ্ঠার পর থেকেই হাসপাতালটি চাঁদপুর ও আশেপাশের জেলাসমূহের প্রত্যন্ত অঞ্চলের চক্ষু রোগীদেরকে উন্নত চক্ষু চিকিৎসা সেবা প্রদান করে আসছে। হাসপাতালটি সহযোগী সংস্থা আন্ধেরী হিলফি-জার্মানী, অরবিস ইন্টারন্যাশনাল, বাংলাদেশ এবং ডাচ বাংলা ব্যাংক ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় দরিদ্র ও অতিদরিদ্র রোগীদের জন্য বিনামূল্যে ছানি অপারেশন, ভ্রাম্যমাণ চক্ষু চিকিৎসা শিবির, স্কুল ছাত্র-ছাত্রীদের দৃষ্টিশক্তি পরীক্ষা কার্যক্রম (এসএসটিপি), স্বাস্থ্যকর্মী, পল্লী চিকিৎসক ও শিক্ষকদের প্রাথমিক চক্ষু চিকিৎসা ও সচেতনতামূলক প্রশিক্ষণ প্রদান, প্রত্যন্ত অঞ্চলে প্রাথমিক চক্ষু চিকিৎসা কেন্দ্র এবং ভিশন সেন্টার স্থাপনসহ বিভিন্ন কার্যক্রম নিয়মিতভাবে বাস্তবায়ন করে আসছে। উক্ত কার্যক্রমের মাধ্যমে হাসপাতালটি মার্চ ২০১৮ পর্যন্ত ৯৭৬৮৩৯ জন রোগীকে হাসপাতালের বহির্বিভাগে, ১২৯৪৮৭ জন রোগীকে ছানি অপারেশন সেবাসহ আউটরিচ কার্যক্রমের আওতায় ৯৫৬টি ভ্রাম্যমাণ আই ক্যাম্পের মাধ্যমে ১০৫০১২২ জন রোগীকে বহির্বিভাগে এবং ৮৬৫১৩ জন রোগীকে বিনামূল্যে ছানি অপারেশন, ৯৬৮টি এসএসটিপি প্রোগ্রামের মাধ্যমে ৪১০৭০২ জন ছাত্র-ছাত্রীর দৃষ্টিশক্তি পরীক্ষা এবং ৪০১৩১ জন ছাত্র-ছাত্রীকে বিভিন্ন রোগের চিকিৎসা সেবাসহ ঔষধ ও চশমা প্রদান করেছে। এছাড়া প্রাথমিক চক্ষু চিকিৎসা কেন্দ্র লক্ষ্মীপুর, ভিশন সেন্টার কমলনগর এবং প্রাথমিক চক্ষু চিকিৎসা কেন্দ্র ঝলম-এর মাধ্যমে ২৩২২৩২ জন রোগীকে চক্ষু চিকিৎসা এবং ১২২৭৯ জন রোগীকে স্বল্পমূল্যে ছানি অপারেশন সেবা প্রদান করেছে।



হাসপাতালটি অত্যন্ত সুনামের সাথে চাঁদপুর ও আশেপাশের জেলাসমূহের প্রত্যন্ত অঞ্চলের চক্ষু রোগীদেরকে উন্নত চিকিৎসা সেবা প্রদান করে আসছে। চক্ষু চিকিৎসা ক্ষেত্রে রোগীদের নিরাপত্তা এবং চক্ষু রোগীদের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে হাসপাতালের কার্যনির্বাহী পরিষদের সদস্য, বিশেষজ্ঞ চক্ষু চিকিৎসক, বিভিন্ন বিভাগের ইনচার্জ ও অফথালমিক প্যারামেডিকসহ হাসপাতালের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীকে নিয়ে নিয়মিত সমন্বয় সভা আয়োজন করা হয়ে থাকে। রোগীদেরকে উন্নত সেবা প্রদানের লক্ষ্যে প্রতিনিয়ত হাসপাতালে উন্নতমানের অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি সংযোজনসহ সেবার মান বৃদ্ধির লক্ষ্যে নিয়মিত প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাগ্রহণ করা হয়ে থাকে। বর্তমানে হাসপাতালে চক্ষু চিকিৎসা সেবার নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ এবং সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের লক্ষ্যে সকল প্রকার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা সম্পূর্ণরূপে বাস্তবায়িত আছে। ভবিষ্যতে সেবার মানোন্নয়নে আরো উন্নত ও কার্যকর ব্যবস্থা বাস্তবায়ন করা হবে। উক্ত সভায় হাসপাতালের কার্যনির্বাহী পরিষদের অবৈতনিক সাধারণ সম্পাদক এমএ মাসুদ ভূঁইয়া হাসপাতালে উন্নত চক্ষু চিকিৎসা সেবা নিশ্চিককরণের লক্ষ্যে সর্বদা গুণগতমানের সেবা প্রদানের বিষয়ে সবাইকে অনুরোধ জানান। তিনি উপস্থিত সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান এবং ভবিষ্যতে রোগীদেরকে আরও উন্নতমানের চক্ষু চিকিৎসা সেবা প্রদানের আশাবাদ ব্যক্ত করেন এবং সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।



 



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
৪২৩৫৪৫
পুরোন সংখ্যা