চাঁদপুর। বুধবার ১৬ মে ২০১৮। ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৫। ২৯ শাবান ১৪৩৯
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৩৭-সূরা সাফ্ফাত

১৮২ আয়াত, ৫ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

১৫৬। নাকি তোমাদের কাছে সুস্পষ্ট কোন দলিল রয়েছে?

১৫৭। তোমরা সত্যবাদী হলে তোমাদের কিতাব আন।

১৫৮। তারা আল্লাহ ও জ্বিনদের মধ্যে সম্পর্ক সাব্যস্ত করেছে, অথচ জ্বিনেরা জানে যে, তারা গ্রেফতার হয়ে আসবে।

১৫৯। তারা যা বলে তা থেকে আল্লাহ পবিত্র।

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


যারা যুক্তি মানে না, তারা বর্বর।

-জর্জ বার্নাড শ’।


দেশের শাসনভার আল্লাহতায়ালার নিকট হতে আমানত।


ফটো গ্যালারি
মতলব দক্ষিণের ফেরিঘাটের উত্তরাংশে
সিএনজি স্কুটার ও অটোরিক্সা স্ট্যান্ডে চলছে চাঁদাবাজি
মতলব ব্যুরো
১৬ মে, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


মতলব দক্ষিণ উপজেলার ফেরিঘাটে (উত্তরপাড়ে) সিএনজি স্কুটার ও অটোরিক্সা স্ট্যান্ডে চলছে চাঁদাবাজি। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে পড়ছে চালকরা। এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিনিয়ত ঘটছে মতবিরোধ ও সংঘর্ষ। নীরব ভূমিকা পালন করছে সংশ্লিষ্ট সিএনজি স্কুটার, অটোরিক্সা, অটোটেম্পু, মিশুক, বেবীট্যাঙ্ িও ট্যাঙ্,ি ট্যাঙ্কিার পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়ন। এতে চালকদের মাঝে চরম ক্ষোভ বিরাজ করছে। চালকরা জানান, সিএনজি স্কুটার, অটোরিক্সা, অটোটেম্পু, মিশুক, বেবীট্যাঙ্ িও ট্যাঙ্,ি ট্যাঙ্কিার পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের কোনো নেতা আমাদের কাছ থেকে চাঁদা নিচ্ছেন না। কিন্তু মাইদুল মুন্সী ও সোলেমান হোসেনসহ কয়েকজন লোক শ্রমিক ইউনিয়নের রসিদ ব্যবহার করে প্রতিনিয়ত চাঁদা আদায় করছেন। এদিকে সিএনজি স্কুটার, অটোরিক্সা, অটোটেম্পু, মিশুক, বেবী ট্যাঙ্ িও ট্যাঙ্,ি ট্যাঙ্কিার পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের মতলব উত্তর ফেরিঘাটের সভাপতি মোঃ মান্নান ফরাজী ও সাধারণ সম্পাদক মোঃ সজীব ফরাজী জানান, আমরা কোনো সিএনজি স্কুটার ও অটোরিক্সা চালকের কাছ থেকে টাকা আদায় করি না। কিন্তু দীর্ঘদিন যাবৎ মাইদুল মুন্সী ও সোলেমান হোসেনসহ ক'জন আমাদের শ্রমিক ইউনিয়নের রসিদ ব্যবহার করে চাঁদা আদায় করছে। আমরা প্রতিবাদ করলে আমাদেরকে বিভিন্ন সময়ে হুমকি-ধমকি প্রদান করে।



এছাড়া মোঃ হান্নান দেওয়ান অটোচালকদের কাছ থেকে ১শ' ৫০ টাকা করে প্রতি মাসে আদায় করছে। টাকা না দিলে তাদেরকে বিভিন্নভাবে হয়রানি করে থাকে। ফলে অটোচালকরাও ক্ষোভ প্রকাশ করেছে। ফেরিঘাটের উত্তর পাড়ের সিএনজি স্কুটার ও অটোরিঙ্ চালকরা তাদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে পড়েছে।



এ ব্যাপারে আইন প্রয়োগকারী সংস্থার উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ সরজমিনে তদন্তপূর্বক আইনগত ব্যবস্থাগ্রহণ করবে বলে সিএনজি স্কুটার, অটোরিঙ্ চালক ও মালিকরা জোর দাবি জানিয়েছেন।



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
১০৪৯০০২
পুরোন সংখ্যা