চাঁদপুর। শনিবার ১১ আগস্ট ২০১৮। ২৭ শ্রাবণ ১৪২৫। ২৮ জিলকদ ১৪৩৯
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • হাজীগঞ্জে আটককৃত বিএনপি'র ১৭ নেতাকর্মীকে জেলহাজতে প্রেরন
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪০-সূরা আল মু'মিন


৮৫ আয়াত, ৯ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৩৬। ফেরাউন বলল, হে হামান, তুমি আমার জন্যে একটি সুউচ্চ প্রসাদ নির্মাণ কর, হয়তো আমি পেঁৗছে যেত পারব।


৩৭। আকাশের পথে, অতঃপর উঁকি মেরে দেখব সূসার আল্লাহকে। বস্তুতঃ আমি তো তাকে মিথ্যাবাদীই মনে করি। এভাবেই ফেরাউনের কাছে সুশোভিত করা হয়েছিল তার মন্দ কর্মকে এবং সোজা পথ থেকে তাকে বিরত রাখা হয়েছিল। ফেরাউনের চক্রান্ত ব্যর্থ হওয়ারই ছিল।


৩৮। মুমিন লোকটি বলল: হে আমার কওম, তোমরা আমার অনুসরণ কর। আমি তোমাদেরকে সৎপথ প্রদর্শন করব।


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 


পরামর্শ মানুষের কাজে বলিষ্ঠতা আনয়ন করে।


-ভার্জিল।


 


 


মানবতাই মানুষের শ্রেষ্ঠতম গুণ।


 


 


 


 


 


 


 


 


ফটো গ্যালারি
মাদক বিরোধী ফুটবল টুর্নামেন্টের বিশাল এ কৃতিত্ব চাঁদপুর পুলিশের : দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মায়া চৌধুরী
আজকের এ খেলা আমাকে ছোটবেলায় নিয়ে গেছে : আইজিপি ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী
কামরুজ্জামান টুটুল
১১ আগস্ট, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


মাদক, নারী নির্যাতন ও জঙ্গিবাদ বিরোধী ফুটবল টুর্নামেন্টের এ বিশাল কৃতিত্ব চাঁদপুর পুলিশের। আইজিপি সাহেব, আমরা আশা করবো চাঁদপুরের পুলিশ সুপার যে ফুটবল টুর্নামেন্টের সূচনা করেছেন তা সারাদেশে আপনার মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়া হবে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে চাঁদপুর শহরতলীর বাবুরহাট উচ্চ বিদ্যালয় এন্ড কলেজ মাঠে আয়োজিত ১ম আন্তঃজেলা মাদক, নারী নির্যাতন ও জঙ্গিবাদ বিরোধী ফুটবল টুর্নামেন্ট-২০১৭-এর ফাইনাল খেলায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীর বিক্রম এমপি। মন্ত্রী আরো বলেন, খেলেছে ভালো হাজীগঞ্জ আর জিতেছে কচুয়া। দু দলই ভালো খেলেছে। চাঁদপুরের এসপি এমন একটি ভালো কাজ করার জন্যে আমরা চাঁদপুরবাসী তাঁর প্রতি কৃতজ্ঞ। উপস্থিত হাজার হাজার দর্শকের কাছে আসন্ন নির্বাচনে নৌকার পক্ষে ভোট চেয়ে মন্ত্রী তাঁর বক্তব্য শেষ করেন।



পুলিশ সুপার শামসুন্নাহারের সার্বিক ব্যবস্থপনায় এ ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধক হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইন্সপেক্টর জেনারেল অব পুলিশ (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বিপিএম (বার)। উদ্বোধক তাঁর বক্তব্যে নিজের কৌশলের কথা মনে করিয়ে দিয়ে সবার উদ্দেশ্যে বলেন, এই বাবুরহাট হাইস্কুল মাঠে আমি ছোটবেলায় অনেক ফুটবল খেলেছি। আজকের এ খেলা আমাকে সেই ছোটবেলায় নিয়ে গেছে। আজকের খেলাটি আমার কাছে মনে হয়েছে বিশ্বকাপ ফুটবল খেলার মাঠের একটি প্রতিচ্ছবি। চাঁদপুরের পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার ফুটবল খেলার যে বিশাল কর্মযজ্ঞ করেছে, তাতে মনে হয়েছে এক ধরনের ইনোভেশন। তাঁর এ কর্মযজ্ঞ আমি প্রধানমন্ত্রীকে লিখিত আকারে জানাবো। একটি খেলা পুরো জেলাবাসীকে এক করে দিয়েছে।



সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডাঃ দীপু মনি এমপির সভাপ্রধানে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সাবেক স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর এমপি, চাঁদপুর-৪ আসনের সাংসদ ড. মোহাম্মদ শামছুল হক ভঁূইয়া ও চাঁদপুর প্রেসক্লাব সভাপতি ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী।



অনুষ্ঠানে চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি খন্দকার গোলাম ফারুক, জেলা প্রশাসক মোঃ মাজেদুর রহমান খান, সাবেক সচিব মমিন উল্যাহ পাটওয়ারী বীর প্রতীক, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাছির উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল, জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ওচমান গণি পাটওয়ারী, হাজীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ মজুমদার, কচুয়া উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শাহজাহান শিশির, জেলা আওয়ামী লীগের কোষাধ্যক্ষ আহসান হাবীব অরুণ, হাজীগঞ্জ বাজার ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি আলহাজ্ব আশফাকুল আলম চৌধুরী, চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মির্জা জাকির, চাঁদপুর মডেল থানা, কচুয়া থানা, হাজীগঞ্জ ও ফরিদগঞ্জ থানা পুলিশের অফিসার ইনচার্জগণ, দায়িত্বরত অন্য সকল অফিসার, জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক, আওয়ামী লীগ, যুবলীগসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এবং ইউপি চেয়ারম্যানগণ উপস্থিত ছিলেন। সঞ্চালনায় ছিলেন চাঁদপুর কণ্ঠ বিতর্ক ফাউন্ডেশনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রাসেল হাসান ও হাজীগঞ্জ মডেল কলেজের প্রভাষক জাহিদ হাছান।



খেলা শুরুর আগে মাঠের হাজার হাজার দর্শক আর আমন্ত্রিত অতিথিদের মাদক, নারী নির্যাতন ও জঙ্গিবাদ বিরোধী শপথবাক্য পাঠ করান পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার। এর পরেই শোকের মাস উপলক্ষে দাঁড়িয়ে ১ মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।



প্রায় সাড়ে ২২ হাজার খেলোয়াড়ের অংশগ্রহণে এবং প্রায় দেড় বছর ধরে চলা এ টুর্নামেন্টের খেলাগুলো শুরুতে সকল ইউনিয়ন ও পৌর এলাকার সকল ওয়ার্ডভিত্তিক। খেলায় স্কুল-কলেজপড়ুয়া ও ঝরেপড়াদের নিয়ে দল তৈরি করা হয়। নকআউট নিয়মে উক্ত খেলার এক পর্যায়ে ওয়ার্ড পর্যায়ের খেলা শেষে ইউনিয়নভিত্তিক অনুষ্ঠিত হয়। ইউনিয়ন পর্যায় শেষ হলে উপজেলা পর্যায়ে খেলাগুলো অনুষ্ঠিত হয়। সর্বশেষ ফাইনাল খেলাটি গতকাল শুক্রবার হাজীগঞ্জ ও কচুয়া উপজেলার মধ্যে অনুষ্ঠিত হয়। এতে কচুয়া উপজেলা হাজীগঞ্জ উপজেলাকে ২_০ গোলে হারিয়ে বিজয়ী হয়। বিজয়ী দল পায় ট্রফি আর দুই লাখ টাকা এবং রানার্সআপ দল পায় ট্রফি আর এক লাখ টাকা। এছাড়া আইজিপি তাৎক্ষণিকভাবে পুলিশের অর্থায়নে ফাইনাল খেলায় দুই গোলদাতাকে ২৫ হাজার টাকা করে এবং উভয় দলের প্রত্যেক খেলোয়াড়কে ১০ হাজার টাকা করে নগদ পুরস্কার দেন। আর পুরো খেলায় সেরা গোলদাতা, ম্যান অব দা ম্যাচসহ বিভিন্ন ক্যাটাগরিতে পুরস্কার দেয়া হয় আয়োজনকারীদের পক্ষ থেকে।



 



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
২২৯৪১৬
পুরোন সংখ্যা