চাঁদপুা। শনিবার ১০ নভেম্বর ২০১৮। ২৬ কার্তিক ১৪২৫। ১ রবিউল আউয়াল ১৪৪০
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪৮-সূরা ফাত্হ্

২৯ আয়াত, ৪ রুকু, মাদানী



২৯। মুহাম্মাদ আল্লাহর রাসূল; তাহার সহচরগণ কাফিরদের প্রতি কঠোর এবং নিজেদের মধ্যে পরস্পরের প্রতি সহানুভূতিশীল; আল্লাহর অনুগ্রহ ও সন্তুষ্টি কামনায় তুমি তাহাদিগকে রুকু ও সিজদায় অবনত দেখিবে। তাহাদের লক্ষ্মণ তাহাদের মুখম-লে সিজদার প্রভাবে পরিস্ফুট থাকিবে; তওরাতে তাহাদের বর্ণনা এইরূপ এবং ইঞ্জিলেও তাহাদের বর্ণনা এইরূপই। তাহাদের দৃষ্টান্ত একটি চারাগাছ, যাহা হইতে নির্গত হয় কিশলয়, অতঃপর ইহা শক্ত ও পুষ্ট হয় এবং পরে কা-ের উপর দাঁড়ায় দৃঢ়ভাবে যাহা চাষীর জন্য আনন্দদায়ক। এইভাবে আল্লাহ মু’মিনদের সমৃদ্ধি দ্বারা কাফিরদের অন্তজর্¦ালা সৃষ্টি করেন। যাহারা ঈমান আনে ও সৎকর্ম করে আল্লাহ তাহাগিদকে প্রতিশ্রুতি দিয়াছেন ক্ষমা ও মহাপুরস্কারের।









 


assets/data_files/web

যে-লোক তার সুযোগ হারায় সে নিজেকে হারায়।      


-জি. মরু।


মানবতাই মানুষের শ্রেষ্ঠতম গুণ।













 


ফটো গ্যালারি
কচুয়ায় ব্যক্তি মালিকানাধীন সম্পত্তি থেকে জোরপূর্বক মাটি উত্তোলনের অভিযোগ
কচুয়া ব্যুরো
১০ নভেম্বর, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


কচুয়ায় ব্যক্তি মালিকানাধীন সম্পত্তি থেকে জোরপূর্বক শ্রমিক দিয়ে মাটি উত্তোলনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলার মেঘদাউর গ্রামের মৃত আছমত মুন্সির পুত্র মোঃ বাবুল মুন্সি ও খলিলুর রহমানের পুত্র কারীম উল্যার বিরুদ্ধে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নীলিমা আফরোজ বরাবর একই এলাকার মৃত খলিলুর রহমান বেপারীর পুত্র মোঃ কলিম উল্যা এ অভিযোগ করেন।



অভিযোগ ও সরেজমিনে জানা গেছে, মেঘদাউর মৌজার বিএস ৩৩৭নং খতিয়ানের ১১১নং দাগের নাল ০২১০০ একর ভূমি হেবা দলিল মূলে মালিক থেকে ২৬০৪/২০১৫-১৬নং নামজারী ও জমাখারিজ কেস মূলে ১০৯৭নং খারিজী খতিয়ান সৃজনক্রমে ১৪২৫ বাংলা সন পর্যন্ত ভূমি উন্নয়ন কর পরিশোধ করে সম্পত্তির মালিক কলিম উল্যা ভোগ-দখল করে আসছে। সম্প্রতি বাবুল মুন্সী ও কারীম উল্যা গংরা উক্ত সম্পত্তি থেকে জোরপূর্বক লেবার দিয়ে মাটি উত্তোলন করে তাদের বসতবাড়ি ভরাট করছে। সম্পত্তির মালিক কলিম উল্যা তার মালিকানাধীন সম্পত্তি থেকে মাটি উত্তোলন করতে দেখে শ্রমিকদের বাধা দিলে অভিযুক্ত বাবুল ও কারীম উল্যাহ গংরা কলিম উল্যাকে গালিগালাজসহ হুমকি-ধমকি প্রদান করে। কলিম উল্যা নিরূপায় হয়ে সুবিচার পাওয়ার আশায় গত ৮ নভেম্বর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নীলিমা আফরোজ বরাবর একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।



অভিযোগ পাওয়ার সত্যতা স্বীকার করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নীলিমা আফরোজ বলেন, মেঘদাউর গ্রামের কলিম উল্যার একটি লিখিত অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।



 



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
৪৬৫৭৫১
পুরোন সংখ্যা