চাঁদপুর। বৃহস্পতিবার ৬ ডিসেম্বর ২০১৮। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৫। ২৭ রবিউল আউয়াল ১৪৪০
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪৪-সূরা দুখান


৫৯ আয়াত, ৩ রুকু, 'মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


২২। অতঃপর মূসা তাহার প্রতিপালকের নিকট আবেদন করিল, ইহারা তো এক অপরাধী সম্প্রদায়।


২৩। আমি বলিয়াছিলাম, 'তুমি আমার বান্দাদিগকে লইয়া রজনী যোগে বাহির হইয়া পড়, তোমাদের পশ্চাদ্ধাবন করা হইবে।


২৪। সমুদ্রকে স্থির থাকিতে দাও, উহারা এমন এক বাহিনী যাহা নিমজ্জিত হইবে।


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 


 


 


যারা যত বেশি টাকার পেছনে ছোটে, তারা জীবনে ততটাই অসুখী হয়। -সৌরভ মাহমুদ।


 


 


নামাজে তোমাদের কাতার সোজা কর, নচেৎ আল্লাহ তোমাদের অন্তরে মতভেদ ঢালিয়া দিবেন।


ফটো গ্যালারি
অধিকাংশ আসনে আওয়ামী লীগ ও বিএনপির সম্ভাব্য একক প্রার্থী চূড়ান্ত হয়নি
প্রতীক পাবার পর চাঁদপুরে শুরু হবে সবদলের নির্বাচনী প্রচারণা
মিজানুর রহমান
০৬ ডিসেম্বর, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আর মাত্র ২৪ দিন বাকি। ৯ ডিসেম্বর প্রার্থীতা প্রত্যাহার আর ১০ ডিসেম্বর প্রতীক বরাদ্দ। কিন্তু এখনো চূড়ান্ত হয়নি চাঁদপুরের ৫টি আসনে আসন্ন জাতীয় এ নির্বাচনের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ ও বিএনপির অধিকাংশ প্রার্থীর নাম।



তবে আজকালের মধ্য নৌকা ও ধানের শীষের একক মনোনয়ন কে পাচ্ছেন তা দলীয় চিঠির মাধ্যমে জানিয়ে দেয়া হবে বলে প্রধান দুই দলের সাধারণ সম্পাদক ও মহাসচিব সাংবাদিকদের জানিয়েছেন। প্রতীক পাবার পর পুরোদমে শুরু হয়ে যাবে চাঁদপুরে সবদলের নির্বাচনী প্রচারণা। এখন দুই দল নেতা-কর্মীদের নিয়ে নির্বাচনী এলাকার জায়গা জায়গায় সমন্বয় সভা করছেন। আওয়ামী লীগ চাঁদপুর-৩ (সদর ও হাইমচর) আসনে বর্তমান এমপি ডাঃ দীপু মনি এবং চাঁদপুর-৫ হাজীগঞ্জ ও শাহরাস্তি আসনে মুক্তিযুদ্ধের সেক্টর কমান্ডার ও বর্তমান সংসদ মেজর অবঃ রফিকুল ইসলাম বীর উত্তমকে পুনরায় দলের একক প্রার্থী হিসেবে নৌকার মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। কিন্তু চাঁদপুর-১ (কচুয়া), চাঁদপুর-২ (মতলব উত্তর ও দক্ষিণ) এবং চাঁদপুর-৪ (ফরিদগঞ্জ) আসনে আওয়ামী লীগের দলীয় প্রার্থী হিসেবে দুজনকে চিঠি দেয়া হয়।



সে ক্ষেত্রে মতলবে বর্তমান এমপি ও মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন মায়া বীর বিক্রম না কেন্দ্রীয় নেতা অ্যাডঃ রুহুল আমিন রুহুল, কচুয়ায় ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর এমপি নাকি সাবেক সচিব মোঃ গোলাম হোসেন এবং ফরিদগঞ্জে বর্তমান সাংসদ ড. মোহাম্মদ শামছুল হক ভূঁইয়া নাকি জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি মুহাম্মদ শফিকুর রহমান হবেন নৌকার চূড়ান্ত প্রার্থী সেটাই দেখার অপেক্ষা করছেন চাঁদপুরবাসী।



অপরদিকে চাঁদপুরের ৫টি আসনের মধ্যে চাঁদপুর-১ (কচুয়া) আসনে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও এমপি কারাবন্দী আনম এহছানুল হক মিলন যে ধানের শীষের একক প্রার্থী তা অনেকটাই নিশ্চিত। তবে চাঁদপুর-২ (মতলব উত্তর ও দক্ষিণ) আসনে কেন্দ্রীয় সদস্য ড. জালাল উদ্দিন নাকি সাবেক প্রতিমন্ত্রী নূরুল হুদার ছেলে তানভীর হুদা পাবেন চূড়ান্ত মনোনয়ন তা দুই একদিনের মধ্য জানা যাবে।



চাঁদপুর-৩ (সদর) আসনে জেলা বিএনপির আহ্বায়ক শেখ ফরিদ আহমেদ মানিকই যে পাচ্ছেন ধানের শীষের মনোনয়ন তার গ্রীন সিগন্যাল পেয়ে নির্বাচনী মাঠে কাজ করছেন। তবে জাতীয় ঐক্য ফ্রন্টের প্রার্থী হিসেবে নাগরিক ঐক্যের অ্যাডঃ ফজলুল হক সরকার, গণফোরাম সভাপতি অ্যাডঃ সেলিম আকবর এবং বিএনপির সাবেক এমপি রাশেদা বেগমও ধানের শীষের চূড়ান্ত প্রার্থী হবার জন্য তাদের জোরালো লবিং চালাচ্ছেন।



চাঁদপুর-৪ (ফরিদগঞ্জ) আসনে এমএ হান্নান এবং চাঁদপুর-৫ (হাজীগঞ্জ ও শাহরাস্তি) আসনে ইঞ্জিঃ মমিনুল হক যে ধানের শীষ পাচ্ছেন তা অনেকটা নিশ্চত বলে একটি সূত্রে জানা গেছে। তারপরও হাজীগঞ্জ ও শাহরাস্তি আসনে সাবেক এমপি এমএ মতিন চূড়ান্ত মনোনয়ন পাবার চেষ্টা করছেন।



বিভিন্ন সূত্রের ধারণা মতে, চাঁদপুর-১ আসনে আওয়ামী লীগের ড. মহীউদ্দীন খান আলমগীর এবং বিএনপির আনম এহসানুল হক মিলন, চাঁদপুর-২ আসনে আওয়ামী লীগের মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া এবং বিএনপির ড. জালাল উদ্দিন, চাঁদপুর-৩ সদর আসনে আওয়ামী লীগের ডাঃ দীপু মনি এবং বিএনপির শেখ ফরিদ আহমেদ মানিক, চাঁদপুর-৪ আসনে আওয়ামী লীগের ড. মোহাম্মদ শামছুল হক ভূঁইয়া এবং বিএনপির এমএ হান্নান, চাঁদপুর-৫ আসনে আওয়ামী লীগের মেজর (অবঃ) রফিকুল ইসলাম এবং বিএনপির লায়ন মমিনুল হকই চূড়ান্ত মনোনয়ন পাচ্ছেন। তারপরও কোনো ব্যত্যয় ঘটে কিনা সেটাই দেখতে উদ্বিগ্ন এবং কৌতূহলী লোকজন রীতিমত প্রহর গুণছেন।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৩৮৪৩৯৫
পুরোন সংখ্যা