ঢাকা। রোববার ১৩ জানুয়ারি ২০১৯। ৩০ পৌষ ১৪২৫। ৬ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪০
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪৫-সূরা জাছিয়া :

৩৭ আয়াত, ৪ রুকু, মক্কী

২৯। এই আমার লিপি, ইহা তোমাদের বিরুদ্ধে সাক্ষ্য দিবে সত্যভাবে। তোমরা যাহা করিতে তাহা আমি লিপিবদ্ধ করিয়াছিলাম।

৩০। যাহারা ঈমান আনে ও সৎকর্ম করে, তাহাদের প্রতিপালক তাহাদিগকে দাখিল করিবেন স্বীয় রহমতে। ইহাই মহাসাফল্য

 


assets/data_files/web

সংশয় যেখানে থাকে সফলতা সেখানে ধীর পদক্ষেপে আসে।


-জন রে।


 


 


যে ব্যক্তি উদর পূর্তি করিয়া আহার করে, বেহেশতের দিকে তাহার জন্য পথ উন্মুক্ত হয় না।


 


যে শিক্ষা গ্রহণ করে তার মৃত্যু নেই।


 


ফটো গ্যালারি
এগিয়ে চলছে চাঁদপুর অযাচক আশ্রমে ধ্যানমন্দির নির্মাণ কাজ
স্টাফ রিপোর্টার
১৩ জানুয়ারি, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


অখন্ড মন্ডলেশ্বর শ্রী শ্রীমৎ স্বামী স্বরূপানন্দ পরমহংসদেবের পুণ্য জন্মস্থান চাঁদপুর অযাচক আশ্রমে আন্তর্জাতিকমানের ধ্যানমন্দির নির্মাণ কাজ খুবই সুন্দর ও সুচারুভাবে এগিয়ে চলছে। গতকাল ১২ জানুয়ারি শনিবার সকালে ধ্যানমন্দির নির্মাণ কাজের সার্বিক অগ্রগতিসহ অনুমোদিত নঙ্া ও বিভিন্ন দিক পর্যালোচনা করেন বরিশাল জেলা গণপূর্তের নির্বাহী প্রকৌশলী রিপন কুমার রায়। এ সময় অযাচক আশ্রম চাঁদপুর বোর্ড অব ট্রাস্টের চেয়ারম্যান ও আশ্রম অধ্যক্ষ সুখরঞ্জন ব্রহ্মচারী, কার্যকরী সদস্য উপজেলা সমবায় অফিসার দুলাল চন্দ্র দাস, সদস্য অঞ্জন কুমার দাস, এলজিইডি চাঁদপুরের উপ-সহকারী প্রকৌশলী সুভাষ চন্দ্র নন্দী, সদর উপজেলা হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক বিমল চৌধুরী, ঠিকাদার বিভাষ মজুমদার, মোঃ ইউনুছ খান, জেলা ছাত্র যুব ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক গৌতম ঘোষসহ আশ্রমের ভক্তবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।



ভারত সরকারের অনুদানে চাঁদপুর অযাচক আশ্রমে প্রায় ৫ কোটি টাকা ব্যয়ে ৮তলা ভিতের উপর নির্মাণাধীন ৫ তলা ভবনের প্রথম পর্যায়ের ছাদ ঢালাই কাজের উদ্বোধন গতকাল শনিবার করা হয়। আশ্রমের অধ্যক্ষ সুখরঞ্জন ব্রহ্মচারী জানান, বাবামনির ভক্তদের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন ছিলো বাবামনির পুণ্য জন্মস্থানে একটি আন্তর্জাতিকমানের ধ্যানমন্দির নির্মাণ হউক। বাবামনির ভক্তদের সে স্বপ্ন বাস্তবায়নে অখ- ম-লেশ্বর শ্রী শ্রীমৎ স্বামী স্বরূপানন্দের ভক্তবৃন্দের আন্তরিক প্রচেষ্টায় এর নির্মাণ কাজ এগিয়ে চলছে। যেখানে থাকবে ধ্যানসহ সাধন-ভজনের উত্তম পরিবেশ। থাকবে বৃদ্ধাশ্রম, স্বরূপানন্দের ব্যবহৃত জিনিসপত্র সমন্বয়ে অডিটোরিয়ামসহ দৃষ্টিনন্দন ধ্যানমন্দির। যে মন্দির দর্শনে দেশ বিদেশের অগণিত মানুষ ছুটে আসবে অযাচক আশ্রম চাঁদপুরে। তিনি মন্দির নির্মাণ কাজ পরিদর্শনে সকল ভক্তকে আমন্ত্রণ জানান এবং চাঁদপুরবাসীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৫৬৫০৬৩
পুরোন সংখ্যা