চাঁদপুর, মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০১৯, ৩ বৈশাখ ১৪২৬, ৯ শাবান ১৪৪০
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪৮-সূরা ফাত্হ্

২৯ আয়াত, ৪ রুকু, মাদানী

২৬। যখন কাফিররা তাহাদের অন্তরে পোষণ করিতো গোত্রীয় অহমিকা-অজ্ঞতার যুগের অহমিকা, তখন আল্লাহ তাঁহার রাসূল ও মু’মিনদিগকে স্বীয় প্রশান্তি দান করিলেন; আর তাহাদিগকে তাকওয়ার বাক্যে সুদৃঢ় করিলেন, এবং তাহারাই ছিলো ইহার অধিকতর যোগ্য ও উপযুক্ত। আল্লাহ সমস্ত বিষয়ে সম্যক জ্ঞান রাখেন।











 


assets/data_files/web

যে-লোক তার সুযোগ হারায় সে নিজেকে হারায়।      


-জি. মরু।


নফস্কে দমন করাই সর্বপ্রথম জেহাদ।


ফটো গ্যালারি
বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে ফরিদগঞ্জ লেখক ফোরামের বর্ষবরণ
ফরিদগঞ্জ প্রতিনিধি
১৬ এপ্রিল, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


গান, নাটিকা, নৃত্য আর ঐতিহ্যবাহী গ্রামীণ খেলাধুলার মধ্য দিয়ে সম্পন্ন হলো ফরিদগঞ্জ লেখক ফোরামের বাংলা বর্ষবরণ ১৪২৬। বিপুল উৎসাহ-উদ্দীপনায় অনুষ্ঠানে উপজেলার নানা পেশা, ধর্ম ও বয়সের শত শত মানুষ অংশগ্রহণ করে। সংগঠনের মহাপরিচালক নূরুল ইসলাম ফরহাদের সার্বিক তত্ত্বাবধানে এবং মোস্তফা কামাল মুকুল ও শামিম হাসানের যৌথ পরিচালনায় অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মমতা আফরিন, বঙ্গবন্ধু গবেষণা পরিষদ, চাঁদপুর জেলা কমিটির সাধারণ সম্পাদক, বিশিষ্ট রাজনীতিক হাজী কামরুল হাসান সাউদ, ফরিদগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি নূরুন্নবী নোমান, সাবেক সভাপতি মামুনুর রশিদ পাঠান, বর্তমান কমিটির সাধারণ সম্পাদক প্রবীর চক্রবতী, ফরিদগঞ্জ পৌরসভার ইঞ্জিঃ আল-আমিন, প্রকাশক ও কবি দন্তন্য ইসলাম, চারণ কবি মোঃ তসলিম প্রমুখ।



সকাল ১০টায় ওয়াপদা মাঠে বৈশাখী নৃত্য, গান আর নাটিকা পরিবেশিত হয়। লিখন সরকার ও বাঁধন চন্দ্র শীলের পরিচালনায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিচালিত হয়। 'আইলো আইলো আইলো রে, রঙে ভরা বৈশাখ আবার আইলো রে' গানটা দিয়েই শুরু। 'এসো হে বৈশাখ এসো এসো' 'বকুল ফুল বকুল, সোনা দিয়ে হাত কেনো বাঁধাইলি' 'ওরে শ্যাম তোমারে আমি নয়নে নয়নে রাখিব' গানে আর নৃত্যে বৈশাখী আনন্দে মাতোয়ারা হয়ে উঠে শত শত মানুষ।



এরপরই শুরু হয় গ্রামীণ খেলাধুলা। শুরুতে বাঁধন চন্দ্র শীলের নেতৃত্বে সাংস্কৃতিক বিভাগ বনাম খলিলুর রহমানের নেতৃত্বে অর্থ বিভাগের মধ্যে অনুষ্ঠিত হয় হা-ডু-ডু খেলা। এতে সাংস্কৃতিক বিভাগ, অর্থ বিভাগকে ২১/১১ পয়েন্টে পরাজিত করে বিজয়ী হয়। একের পর এক খেলায় উৎসবমুখর হয়ে উঠে পহেলা বৈশাখের ওয়াপদা মাঠ। মানুষের আনন্দ ধ্বনিতে মুখরিত হয়ে উঠে ফরিদগঞ্জ লেখক ফোরাম কার্যালয়। ধারাবাহিকভাবে চলে কলা গাছের লাল নিশানা সংগ্রহ, তরুণ ও যুবাদের মাঝে কাছিটানা, মেয়েদের চেয়ার বদল ও কানামাছি, হাঁড়ি ভাঙ্গা ও পুকুরে হাঁস ধরা প্রতিযোগিতা। সর্বশেষ অতিথিরা বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেন।



খেলায় বিজয়ীরা হলেন হাঁড়ি ভাঙায় মামুন পাটোয়ারী, কালা গাছের লাল নিশানা সংগ্রহে তানভির ইসলাম অর্ণব, চেয়ার বদলে ১ম সাবরিনা আলম শীলা, ২য় রাজিয়া সুলতানা শান্তা ও ৩য় কুলসুমা; কানামাছিতে ১ম আফসানা মিমি, ২য় নাজমুন নাহার, ৩য় কুলসুমা। কানামাছির ভূমিকা পালন করেন তৃপ্তি মণি। হাঁস দৌড়ে বিজয়ী হন জিহাদ পাটোয়ারী।



 


এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
১০০৩৫৯৬
পুরোন সংখ্যা