চাঁদপুর, বৃহস্পতিবার ১৬ মে ২০১৯, ২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১০ রমজান ১৪৪০
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫০-সূরা কাফ্

৪৫ আয়াত, ৩ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।

৩১। আর জান্নাতকে নিকটস্থ করা হইবে মুক্তাকীদের-কোন দূরত্ব থাকিবে না।

৩২। ইহারই প্রতিশ্রুতি তোমাদিগকে দেওয়া হইয়াছিল-প্রত্যেক আল্লাহ-অভিমুখী, হিফাযতকারীর জন্য।

৩৩। যাহারা না দেখিয়া দয়াময় আল্লাহকে ভয় করে এবং বিনীত চিত্তে উপস্থিত হয়।


assets/data_files/web

প্রতিভাবান ব্যক্তিরাই ধৈর্য ধারণ করতে পারে। -ই. সি. স্টেডম্যান।


যে শিক্ষিত ব্যক্তিকে সম্মান করে, সে আমাকে সম্মান করে।


ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ও আইসিটি মন্ত্রণালয়ের মধ্যে সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত
১৬ মে, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


শিক্ষার্থীদের প্রযুক্তি দক্ষতা উন্নয়নে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের আইসিটি ডিভিশনের সঙ্গে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষর করেছে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। গত মঙ্গলবার (১৪ মে) ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ে এ সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হয়। সমঝোতা স্মারকে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইউসুফ মাহবুবুল ইসলাম এবং আইসিটি ডিভিশনের এটুআই প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের পক্ষে স্বাক্ষর করেন। এ সময় আইসিটি ডিভিশনের সচিব এন এম জিয়াউল আলম, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির রেজিস্ট্রার প্রফেসর ড. ইঞ্জিনিয়ার এ কে এম ফজলুল হক, বাণিজ্য ও উদ্যোক্তাবৃত্তি অনুষদের ডীন মাসুম ইকবাল, ক্যারিয়ার ডেভেলপমেন্ট সেন্টারের পরিচালক আবু তাহের খানসহ উভয় প্রতিষ্ঠানের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।



সমঝোতা অনুযায়ী, প্রতিষ্ঠান দুটি শিক্ষার্থীদের দক্ষতা উন্নয়ন, অ্যাপ্রেন্টিসশিপ, উদ্যোক্তা উন্নয়ন, কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি, উদ্ভাবন, গবেষণা ইত্যাদি নিয়ে কাজ করবে। এখন থেকে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি প্রযুক্তিখাতে কী পরিমাণ কর্মসংস্থানের সুযোগ রয়েছে তা সনাক্ত করে এটুআইকে অবহিত করবে। শিল্প প্রতিষ্ঠানের প্রয়োজনীতার উপর ভিত্তি করে বাংলাদেশ কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের সঙ্গে সমন্বয় করে শিক্ষার্থীদের জন্য কোর্স কারিকুলাম তৈরি করবে ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়। এছাড়া এটুআইকে সঙ্গে নিয়ে বিভিন্ন ধরনের কর্মশালা, সেমিনার, পরামর্শসভা ইত্যাদির আয়োজন করবে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি। এটুআইয়ের বিভিন্ন গবেষণা, জরিপ, মূল্যায়ন, তথ্য সংগ্রহ করা, প্রতিবেদন তৈরি করা ইত্যাদি কাজে সহযোগিতা করবে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীরা।



অপরদিকে উদ্যোক্তা সৃষ্টি ও উদ্যোক্তা উন্নয়নে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিকে সহযোগিতা করা, শিক্ষার্থীদের জন্য অ্যাপ্রেন্টিসশিপ প্রোগ্রাম আয়োজন করা, ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠানের আন্তঃসম্পর্ক তৈরিতে সহযোগিতা করা, জাতীয় পর্যায়ের সমস্যা সনাক্ত করে তা সমাধান করতে ড্যাফোডিল বিশ্ববিদ্যালয়কে সহযোগিতা করাসহ একটি প্রযুক্তিবান্ধব দক্ষ জনগোষ্ঠী তৈরিতে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিকে সার্বিক সহযোগিতা করবে এটুআই।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৪১৭৩৬৫
পুরোন সংখ্যা