চাঁদপুর, শুক্রবার ২৪ মে ২০১৯, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৮ রমজান ১৪৪০
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৮-সূরা মুজাদালা


২২ আয়াত, ৩ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


০৮। তুমি কি তাহাদিগকে লক্ষ্য করো না, যাহাদিগকে গোপন পরামর্শ করিতে নিষেধ করা হইয়াছিলো? অতঃপর উহারা যাহা নিষিদ্ধ তাহারই পুনরাবৃত্তি করে এবং পাপাচরণ, সীমালঙ্ঘন ও রাসূলের বিরুদ্ধাচরণের জন্য কানাকানি করে। উহারা যখন তোমার নিকট আসে তখন উহারা তোমাকে এমন কথা দ্বারা অভিবাদন করে ...যদ্ধারা আল্লাহ্ তোমাকে অভিবাদন করেন নাই। উহারা মনে মনে বলে, 'আমরা যাহা বলি তাহার জন্য আল্লাহ্ আমাদিগকে শাস্তি দেন না কেন?' জাহান্নামই উহাদের জন্য যথেষ্ট, যেথায় উহারা প্রবেশ করিবে, কত নিকৃষ্ট সেই আবাস!


 


 


 


assets/data_files/web

নিজে ঠিক থাকলেই হল, লোকে কী বলে না বলে তা নিয়ে মাথা ঘামানো উচিত নয়। -রুজভেল্ট।


 


 


 


যে ব্যক্তি সওয়াবের (পুণ্যের) নিয়তে পরিবারের জন্য খরচ করে আল্লাহ তাহাকে সদকার সওয়াব দান করিবেন।


 


 


 


ফটো গ্যালারি
নিশি বিল্ডিং এলাকার ৭টি দোকান উচ্ছেদ
স্টাফ রিপোর্টার
২৪ মে, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+

চাঁদপুর শহরের নিশি বিল্ডিং এলাকায় লঞ্চ যাত্রীদের দুর্ভোগ এড়াতে ৭টি দোকানের অতিরিক্ত অংশ উচ্ছেদ করেছে পুলিশ প্রশাসন। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১১টায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (চাঁদপুর সদর সার্কেল) জাহেদ পারভেজ চৌধুরীর নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে এই উচ্ছেদ করা হয়।

জাহেদ পারভেজ চৌধুরী জানান, নিশি বিল্ডিং এলাকার এই অংশটি হলো জনগুরুত্বপূর্ণ স্থান। চাঁদপুর জেলার বিভিন্ন উপজেলা ও পার্শ্ববর্তী জেলার জনসাধারণ ছোট যানবাহন নিয়ে ঢাকার উদ্দেশ্যে যাওয়ার জন্যে লঞ্চঘাটে এই সড়ক দিয়ে যাতায়াত করে। কিছু অসাধু ব্যবসায়ী তাদের দোকানের অংশ ছাড়াও সড়কের একটি বৃহৎ অংশ দখল করে রেখেছে। আমরা পুলিশ প্রশাসন লঞ্চ যাত্রীদের দুর্ভোগের কথা চিন্তা করে আজ এই উচ্ছেদ অভিযান চালিয়েছি। ৭টি দোকানের বাড়তি অংশ আমরা উচ্ছেদ করেছি। এ সময় তিনি মাইকে ঘোষণা দিয়ে দোকান মালিকদেরকে হুঁশিয়ার করে দেন এবং পাশাপাশি দোকান মালিকদের অনুরোধ করেন যেন উচ্ছেদ চলাকালে দোকানিরা তাদের মালামাল সরিয়ে নিতে পারেন। উচ্ছেদ হওয়া দোকানগুলো হলো মোটা শহীদ খানের দোকান, ছিডু শেখের দোকান, মিন্টুর দোকান, রিপন বেপারীর দোকান, চিকন শহীদ খানের দোকান ও দেলোয়ারের ফার্ণিচারের দোকানের অংশবিশেষ। এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ নাছিম উদ্দিন, চাঁদপুর মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) হারুনুর রশিদ, পুলিশ পরিদর্শক (নিরস্ত্র) আব্দুর রব, সেকেন্ড অফিসার অনুপ চক্রবর্তীসহ পুলিশ সদস্যরা।

এই পাতার আরো খবর -
আজকের পাঠকসংখ্যা
২৪৪৭৮
পুরোন সংখ্যা