চাঁদপুর, রোববার ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৭ আশ্বিন ১৪২৬, ২২ মহররম ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • চাঁদপুর সদর হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়কসহ আরো ৯ জনের করোনা শনাক্ত, মোট আক্রান্ত ২১৯
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৬৯-সূরা হাক্কা :


৫২ আয়াত, ২ রুকু, মক্কী


৩৪। এবং অভাবগ্রস্তকে অন্নদানে উৎসাহিত করিত না,


৩৫। অতএব এইদিন সেথায় তাহার কোন সুহৃদ থাকিবে না,


৩৬। এবং কোন খাদ্য থাকিবে না ক্ষত নিঃসৃত স্রাব ব্যতীত,


 


 


 


assets/data_files/web

অতিরিক্ত চাহিদাই মানুষের পতনকে ডেকে আনে।


-জন অলকৃট।


 


 


 


মানবতাই মানুষের শ্রেষ্ঠতম গুণ।


 


 


 


 


ফটো গ্যালারি
ওছমানিয়া মাদ্রাসার দ্বিতল ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন
স্টাফ রিপোর্টার
২২ সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


চাঁদপুর শহরের পুরাণবাজার ওছমানিয়া ফাযিলি (ডিগ্রি) মাদ্রাসার দ্বিতল ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে। ভবনটি নিজস্ব অর্থায়নে নির্মিত হচ্ছে বলে মাদ্রাসার অধ্যক্ষ ও গভর্নিংবডি সুত্র থেকে জানা গেছে। দোয়া ও মোনাজাতের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে গতকাল শনিবার ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপনকালে উপস্থিত ছিলেন মাদ্রাসা গভর্নিংবডির সহ-সভাপতি তাফাজ্জল হোসেন চুন্নু বেপারী, দাতা সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা এনামুল হক শামীম, মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মাওলানা তাজুল ইসলাম, উপাধ্যক্ষ মুফতি বিএম মোস্তফা কামাল, গভর্নিংবডির সদস্য নকিব চৌধুরী, গভর্নিংবডির সদস্য সাবেক কাউন্সিলর আসলাম গাজী, গভর্নিংবডির সদস্য সাবেক কাউন্সিলর ফরিদ আহমেদ বেপারী, সহযোগী অধ্যাপক তাহেরুল ইসলাম, সহযোগী অধ্যাপক জসিম উদ্দিন, ওয়ার্ড যুবলীগ সভাপতি মোবারক হোসেনসহ মাদ্রাসার শিক্ষকম-লী ও এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ। এ সময় সংক্ষিপ্ত আলোচনায় মাদ্রাসার গভর্নিংবডির সহ-সভাপতি তাফাজ্জল হোসেন চুন্নু বেপারী বলেন, এই ওছমানিয়া ফাযিল (ডিগ্রি) মাদ্রাসাটি পুরাণবাজারের ঐতিহ্যবাহী দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। প্রায় ১শ' বছরের পুরানো এই ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানটি আমাদের বংশের মুরুব্বী মরহুম হাজী ওছমান বেপারীর অবদানে প্রতিষ্ঠিত। দীর্ঘদিন ধরে মাদ্রাসার ভবনের অভাবে ছেলে মেয়েদের লেখাপড়ায় বিঘ্ন সৃষ্টি হচ্ছিলো। তাই মাদ্রাসার ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র জমানো অর্থের মাধ্যমে ও মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মাওলানা তাজুল ইসলাম সাহেবের ঐকান্তিক প্রচেষ্টায় বিভিন্নজনদের সহযোগিতায় দ্বিতল ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করতে পেরে আমরা খুবই আনন্দিত। আল্লাহ যেন এই ঐতিহ্যবাহী প্রতিষ্ঠানটির প্রতি সবসময় সহায় হোন।



মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মাওলানা তাজুল ইসলাম বলেন, আমাদের এই প্রতিষ্ঠানটির বোর্ড ফলাফল সন্তোষজনক। আমাদের সকল শিক্ষকম-লীর আন্তরিকতার কারণেই ছেলেমেয়েদের বোর্ডে ভালো ফলাফল হচ্ছে। মাদ্রাসার ভবন না থাকায় ছেলেমেয়েদের লেখাপড়ায় খুব কষ্ট হচ্ছিলো। অবশেষে বাংলাদেশ সরকারের আন্তরিক সহযোগিতায় আমরা একটি ৪ তলা ফাউন্ডেশন বিশিষ্ট ভবন মঞ্জুরি পেয়েছি। যার কাজ চলমান রয়েছে। এছাড়াও আমাদের ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র করে জমানো নিজস্ব অর্থায়নে দ্বিতল ভবনের কাজ ধরেছি। যার ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করা হয়েছে।



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৩৫০৩২১
পুরোন সংখ্যা