চাঁদপুর, সোমবার ১৪ অক্টোবর ২০১৯, ২৯ আশ্বিন ১৪২৬, ১৪ সফর ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৬ সূরা-ওয়াকি'আঃ


৯৬ আয়াত, ৩ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


৮০। ইহা জগৎসমূহের প্রতিপালকের নিকট হইতে অবতীর্ণ।


৮১। তবুও কি তোমরা এই বাণীকে তুচ্ছ গণ্য করিবে?


৮২। এবং তোমরা মিথ্যারোপকেই তোমাদের উপজীব্য করিয়া লইয়াছো!


 


 


 


 


 


হিংসা একটা দরজা বন্ধ করে অন্য দুটো খোলে।


-স্যামুয়েল পালমার।


 


 


নামাজ বেহেশতের চাবি এবং অজু নামাজের চাবি।


 


 


 


ফটো গ্যালারি
আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবসের আলোচনা
দুর্ঘটনা মোকাবেলায় ফায়ার সার্ভিস ও অ্যাম্বুলেন্স যাতায়াতের পথ রেখে ভবন নির্মাণের তাগিদ
মুহাম্মদ আবদুর রহমান গাজী
১৪ অক্টোবর, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


চাঁদপুরে আন্তর্জাতিক দুর্যোগ প্রশমন দিবস ২০১৯ উদ্যাপন উপলক্ষে র‌্যালি, আলোচনা সভা ও শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়েছে। গতকাল রোববার সকালে চাঁদপুর সার্কিট হাউজ থেকে এ দিবস উপলক্ষে একটি র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিতে নেতৃত্ব দেন জেলা প্রশাসক মোঃ মাজেদুর রহমান খান। র‌্যালিটি শহরের গুরুত্বপূর্ণ সড?ক প্রদক্ষিণ করে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়। র‌্যালি শেষে জেলা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের কর্মীরা দুর্যোগ মোকাবেলায় করণীয় বিষয়ে বিভিন্ন মহড়া উপস্থাপন করেন। এতে বহুতল ভবন থেকে কিভাবে অগি্নসংযোগকালে উদ্ধার করা যায়, বাড়িঘরে আগুন লাগলে কিভাবে নেভাতে হয় এবং আগুনের ভেতর থেকে কোন্ ব্যক্তিকে কিভাবে উদ্ধার করা হয় এসব বিষয়ে মহড়া প্রদর্শিত হয়। এ মহড়া অনুষ্ঠান উপভোগ করতে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মুখে শত শত পথচারী, বিভিন্ন বিদ্যালয়ের ছাত্র-ছাত্রীসহ মানুষের ভিড? দেখা গেছে।



পরে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আলোচনা এবং শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এতে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) এসএম জাকারিয়া। তিনি তাঁর বক্তব্যে বলেন, দুর্যোগ কখনো বলে আসে না। এটা আল্লাহ প্রদত্ত, হঠাৎ হয়ে থাকে। তারপরও আমাদের সচেতন হতে হবে। আর দুর্যোগ মোকাবেলায় সচেতনতাই বেশি প্রয়োজন। কিছু কিছু দুর্যোগের আগমন সম্পর্কে আমরা আগে থেকেই বলতে পারি না, যা হঠাৎ করে হয়ে থাকে। আবার কিছু কিছু দুর্যোগ সম্পর্কে আমরা আবহাওয়া অধিদপ্তরের মাধ্যমে আগেই ইঙ্গিত পাই। আমাদের দেশ বন্যাকবলিত এলাকা। আবার অনেক দেশে প্রতিকূল দুর্যোগের কারণে বরফ জমা হয়ে যায়। একেক দেশের একেক রকম দুর্যোগ মোকাবেলা করতে হয়। তিনি আরও বলেন, বর্তমান সরকার দুর্যোগ মোকাবেলায় দেশের বিভিন্ন এলাকায় আশ্রয় প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছেন। যাদের জমি আছে, ঘর নেই তাদের দুর্যোগ মোকাবেলায় সরকার আবাসস্থল তৈরি করে দিচ্ছেন। দুর্যোগে যাতে আমাদের বিপর্যয় না হয় সে ব্যাপারে সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছেন। ইতিমধ্যে বিভিন্ন জেলায় তা বাস্তবায়ন হয়েছে।



আলোচনা সভায় আরো বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ আসাদুজ্জামান, বিশিষ্ট নারী মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ সৈয়দা বদরুন নাহার চৌধুরী, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার কানিজ ফাতেমা, চাঁদপুর ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী স্টেশন মাস্টার মোঃ ফরিদ আহমেদ, ছাত্র মোঃ কামরুল ইসলাম, ছাত্রী তানিয়া এমরান মিথুন প্রমুখ।



আলোচনা সভা পর্বে প্রধান অতিথি আরো বলেন, আমাদের দেশে রাস্তাঘাট সরু থাকায় অনেক অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনায় কিছু করার থাকে না। আমাদের বাড়ি-ঘর নির্মাণও নিয়ম মেনে করতে হবে। প্রতিটি পাড়া-মহল্লায় রাস্তাগুলো প্রশস্ত রাখতে হবে। পাড়া-মহল্লায় দুর্ঘটনা মোকাবেলায় ফায়ার সার্ভিস ও অ্যাম্বুলেন্স ঢোকানোর সুযোগ তৈরি করে ভবন নির্মাণ করতে হবে।



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৬০৭০০০
পুরোন সংখ্যা