চাঁদপুর, মঙ্গলবার ১২ নভেম্বর ২০১৯, ২৭ কার্তিক ১৪২৬, ১৪ রবিউল আউয়াল ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৫৭-সূরা হাদীদ


২৯ আয়াত, ৪ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


২৬। আমি নূহ এবং ইব্রাহিমকে রাসূলরূপে প্রেরণ করিয়াছিলাম এবং আমি তাহাদের বংশধরগণের জন্যে স্থির করিয়াছিলাম নুবূওয়াত ও কিতাব, কিন্তু উহাদের অল্পই সৎপথ অবলম্বন করিয়াছিল এবং অধিকাংশই ছিল সত্যত্যাগী।


 


 


অপ্রয়োজনে প্রকৃতি কিছুই সৃষ্টি করে না। -শংকর।


 


 


কবর এবং গোসলখানা ব্যতীত সমগ্র দুনিয়াই নামাজের স্থান।


 


 


 


 


ফটো গ্যালারি
ফরিদগঞ্জে বুলবুল ভেঙ্গে দিয়েছে অসহায় নাজমার বসতঘর
এমকে মানিক পাঠান
১২ নভেম্বর, ২০১৯ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের তাণ্ডবে লণ্ডভণ্ড হয়ে গেছে অসহায় নাজমা বেগমের বসতঘর। ফরিদগঞ্জ উপজেলার পূর্ব বড়ালী গ্রামে ঘূর্ণিঝড়ের বাতাসের তাণ্ডবে ঘরের পূর্ব পাশে থাকা একটি বড় রেইনট্রি গাছ পড়ে ঘরটি ভেঙ্গে দুমড়ে মুচড়ে যায়। এ সময় ঘরের মধ্যে পরিবারের সদস্যরা থাকলেও ভাগ্যক্রমে সবাই বেঁচে যায় ।



গতকাল সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, স্বামী পরিত্যক্তা অসহায় নাজমা বেগম তার বসত ঘরের লণ্ডভণ্ড হওয়া মালামাল গুছানোর কাজে ব্যস্ত। এ সময় নাজমা কান্নাকাটি করে বলেন, মানুষের বাসা-বাড়িতে কাজ করে চলে তার সংসার। ২ ছেলে ও প্রাপ্তবয়স্ক এক মেয়ে নিয়ে তার স্বপ্নের সংসারটি চলছিলো। একমাত্র মেয়েকে বিয়ে দেয়ার জন্যে গত ৩মাস পূর্বে স্থানীয় একটি এনজিওর কাছ থেকে লোন নেয়া ছাড়াও পাড়া প্রতিবেশীর সহযোগিতায় প্রায় দেড়লাখ টাকা খরচ করে নাজমা দোচালা টিনশেডের বসতঘরটি নির্মাণ করে। ঘর নির্মাণের পর দেনার দায়ে জর্জরিত নাজমার শেষ আশ্রয় স্থলটুকু দুমড়ে মুচড়ে দিয়েছে ঘূর্ণিঝড় বুলবুল।



স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলর পৌর প্যানেল মেয়র-১ আব্দুল মান্নান পরান জানান, ঘূর্ণিঝড়ে নাজমা বেগমের বসতঘরটি ভেঙ্গে যাওয়ার খবর পেয়ে বিকেলে দেখতে গেছি। আমি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করে অসহায় নাজমার বসত ঘরের জন্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাগ্রহণ করবো।



উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তার অফিস সহকারী মিজানুর রহমান জানান, অসহায় নাজমার বসত ঘরটি ভেঙ্গে যাওয়ার খবরটি গতকাল নিশ্চিত হয়েছি। তবে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার জন্য ভুক্তভোগীর পক্ষ থেকে জেলা প্রশাসক বরাবরে আবেদন দাখিল করতে বলা হয়েছে।



 



 



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৭৪৪১০৯
পুরোন সংখ্যা