চাঁদপুর, শুক্রবার ১৭ জানুয়ারি ২০২০, ৩ মাঘ ১৪২৬, ২০ জমাদিউল আউয়াল ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৬১-সূরা সাফ্ফ


১৪ আয়াত, ২ রুকু, মাদানী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


৮। উহারা আল্লাহর নূর ফুৎকরে নিভাইতে চাহে কিন্তু আল্লাহ তাঁহার নূর পূর্ণরূপে উদ্ভাসিত করিবেন, যদিও কাফিররা উহা অপছন্দ করে।


 


ব্যবসায়ীদের নিজস্ব কোনো দেশ নেই। - জেফারসন।


 


 


যদি মানুষের ধৈর্য থাকে তবে সে অবশ্য সৌভাগ্যশালী হয়।


 


 


ফটো গ্যালারি
ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির স্প্রিং সেমিস্টারের শিক্ষার্থীদের নবীনবরণ
প্রেস বিজ্ঞপ্তি
১৭ জানুয়ারি, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+

বর্ণাঢ্য আয়োজনের মধ্য দিয়ে ১১ জানুয়ারি ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির স্প্রিং-২০২০ সেমিস্টারে ভর্তি হওয়া শিক্ষার্থীদের নবীনবরণ অনুষ্ঠান আশুলিয়ায় বিশ্ববিদ্যালয়ের স্থায়ী ক্যাম্পাসে অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. ইউসুফ এম ইসলাম। স্থায়ী ক্যাম্পাসের ডীন প্রফেসর ড. মোস্তফা কামালের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. এসএম মাহাবুব-উল হক মজুমদার, ট্রেজারার মমিনুল হক মজুমদার, প্রকৌশল অনুষদের ডীন অধ্যাপক এম সামছুল আলম, এলাইড হেলথ সায়েন্সেস অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. আহমেদ ইসমাইল মুস্তাফা, মানবিক ও সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডীন অধ্যাপক ড. এএমএম হামিদুর রহমান।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপাচার্য প্রফেসর ড. ইউসুফ এম ইসলাম বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, কর্মকর্তা-কর্মচারী ও অভিভাবকসহ সকলের সম্মিলিত প্রচেষ্টা, সমর্থন, আকুণ্ঠ ভালবাসা ও অবদানের ফলেই ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি আজ বাংলাদেশের শীর্ষ স্থানীয় বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর মধ্যে স্থান করে নিয়েছে। আগামীতে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিকে এক নম্বর অবস্থানে তুলে আনতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ গুনগত শিক্ষার পরিবেশ ও অবকাঠামোগত উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রেখেছে। তিনি আরো বলেন, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি মূল লক্ষ্য হচ্ছে তথ্যপ্রযুক্তি জ্ঞানে দক্ষ এবং ক্রীড়ামনস্ক দক্ষ মানবসম্পদ ও উদ্যক্তা তৈরি করা এবং সে লক্ষ্যে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

এই পাতার আরো খবর -
করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ২,২৩,৪৫৩ ১,৬২,২০,৯০০
সুস্থ ১,২৩,৮৮২ ৯৯,২৩,৬৪৩
মৃত্যু ২,৯২৮ ৬,৪৮,৭৫৪
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
৭১২০৫১
পুরোন সংখ্যা