চাঁদপুর,শনিবার ২৮ মার্চ ২০২০, ১৪ চৈত্র ১৪২৬, ০২ শাবান ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • চাঁদপুর সদর উপজেলায় আক্রান্তের সংখ্যা শত ছাড়ালো : চাঁদপুরে আরো ১৪ জনের করোনা শনাক্ত, জেলা মোট আক্রান্ত ১৮০
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৬৯-সূরা হাক্কা ঃ


৫২ আয়াত, ২ রুকু, মক্কী


 


২০। 'আমি জানিতাম যে, আমাকে আমার হিসাবের সম্মুখীন হইতে হইবে।'


২১। সুতরাং সে যাপন করিবে সন্তোষজনক জীবন;


২২। সুউচ্চ জান্নাতে


 


আল হাদিস


 


যা ইচ্ছা আহার করতে পারো, যা ইচ্ছা পরিধান করতে পারো, যদি তোমাকে অপব্যয় ও গর্ব স্পর্শ না করে।


বাণী চিরন্তন


মধুর ব্যবহার লাভ করতে হলে মাধুর্যময় ব্যক্তিত্বের সংস্পর্শে আসতে হয়। -উইলিয়াম উইন্টার।


 


 


 


 


 


assets/data_files/web

যে যা বলে বলুক, তুমি তোমার নিজের পথে চল।


-দান্তে।


 


 


পুরাতন কাপড় পরিধান করো, অর্ধপেট ভরিয়া পানাহার করো, ইহা নবীসুলভ কার্যের অংশ বিশেষ।


 


ফটো গ্যালারি
রাস্তা-ঘাট ফাঁকা, দোকানপাট বন্ধ
করোনা প্রতিরোধে তৎপর মতলব উত্তর উপজেলা প্রশাসন
মোঃ মাহবুব আলম লাভলু ॥
২৮ মার্চ, ২০২০ ১৬:৪১:৫০
প্রিন্টঅ-অ+


সরকারের নির্দেশনার আলোকে মতলব উত্তরে করোনা প্রতিরোধে ব্যাপক তৎপরতা চালাচ্ছে উপজেলা প্রশাসন ও পুলিশ প্রশাসন। বাজারে ঔষধ, কাঁচামালের দোকান ও সেবামূলক প্রতিষ্ঠান ছাড়া বাকি সব ব্যবসা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে।

গত বুধবার সকাল থেকে পুলিশ ছেংগারচর বাজার, নাউরী, সুজাতপুর বাজার, কালিপুর, কালীরবাজার, নতুনবাজার, এখলাছপুর, নন্দলালপুরসহ উপজেলার গুরত্বপূর্ণ স্থানে চেক পোস্ট বসিয়ে অপ্রয়োজনীয় যানবাহন চলাচল না করার জন্য নিদের্শনা দিচ্ছে। মঙ্গলবার বিকেল থেকে বন্ধ রয়েছে চাঁদপুর-ঢাকা, মতলব-নারায়ণগঞ্জ নৌ-রুটের যাত্রাবাহী লঞ্চ। প্রয়োজন ছাড়া কোন যানবাহন চলাচল করছে না।

উপজেলার বাসিন্দাদের বাসায় থাকার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে এবং মাইকিং করা হয়েছে। প্রত্যেক নামাজের আগে ও পরে মসজিদ থেকে মাইকিং করে ঘর থেকে বাহির না হওয়ার জন্যে নির্দেশ দিচ্ছেন স্থানীয় জনপ্রতিনিধি। গুরুত্বপূর্ণ স্থানে অবস্থান নিয়েছে পুলিশ এবং আইন অমান্যকারীদের সতর্কতামূলক শাস্তি দেয়া হচ্ছে। উপজেলা শহর থেকে মালবাহী ট্রাক, পিকআপ ভ্যান ছাড়া অন্য কোন যানবাহন ছেড়ে যায়নি। যারা নির্দেশনা অমান্য করেছেন তাদের কান ধরে উঠ-বস করাতেও দেখা যায়।

ছেংগারচর পৌর বাজার বণিক সমবায় সমিতি লিঃ-এর সভাপতি হাজী মনির হোসেন বেপারী বলেন, করোনা ভাইরাস মহামারী প্রতিরোধ করতে সরকারের নির্দেশ অনুযায়ী বাজারের নিত্যপণ্য দোকান ছাড়া সকল ধরনের দোকান বন্ধ রাখা হয়েছে। আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের পাশাপাশি আমরাও নজরদারি করছি।

মতলব উত্তর থানার ওসি মোঃ নাসির উদ্দিন মৃধা বলেন, সরকারি নির্দেশনার আলোকে চিকিৎসক, রোগী বহনকারী পরিবহন ও প্রয়োজনীয় বাহন ছাড়া বাকি সকল পরিবহন বন্ধ করা হয়েছে। ব্যবসা প্রতিষ্ঠানও বন্ধ রয়েছে। যারা ঘর থেকে বের হয়েছেন তারা একান্ত প্রয়োজনে কাঁচাবাজার কিংবা ঔষধ ক্রয় করার জন্যে আসছেন। এর বাইরে যারা আসছে তাদেরকে বুঝিয়ে সরকারি নিদের্শনা নিশ্চিত করছি।

মতলব উত্তর উপজেলা নির্বাহী অফিসার এএম জহিরুল হায়াত জানান, জেলা প্রশাসকের নির্দেশ মোতাবেক পুরো উপজেলায় নিত্য পণ্য ও ঔষধের দোকান ছাড়া সকল প্রকার দোকানপাট বন্ধ রাখাসহ সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ রাখা হয়েছে। প্রত্যেককে নিজ নিজ বাড়িতে থাকতে বলা হয়েছে। জরুরি প্রয়োজন ব্যতীত রাস্তায় চলাচল করতে দেয়া হচ্ছে না।


আজকের পাঠকসংখ্যা
২০৫৯৫০
পুরোন সংখ্যা