চাঁদপুর, সোমবার ১৩ জুলাই ২০২০, ২৯ আষাঢ় ১৪২৭, ২১ জিলকদ ১৪৪১
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকরাম চৌধুরী ভোর ৪টায় ঢাকায় কিডনী হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন ( ইন্নালিল্লাহে --------রাজেউন)। || বাদ আসর চাঁদপুর সরকারি কলেজ মাঠে জানাজা নামাজ অনুষ্ঠিত হবে। || চাঁদপুর প্রেসক্লাবের সভাপতি ইকরাম চৌধুরী ভোর ৪টায় ঢাকায় কিডনী হাসপাতালে ইন্তেকাল করেছেন ( ইন্নালিল্লাহে --------রাজেউন)।
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৭২-সূরা জিন্ন্


২৮ আয়াত, ২ রুকু, মক্কী


 


১। বল, আমার প্রতি ওহী প্রেরিত হইয়াছে যে, জিন্নদের একটি দল মনোযোগ সহকারে শ্রবণ করিয়াছে এবং বলিয়াছে, 'আমরা তো এক বিস্ময়কর কুরআন শ্রবণ করিয়াছি,


২। যাহা সঠিক পথনির্দেশ করে; ফলে আমরা ইহাতে বিশ্বাস স্থাপন করিয়াছি। আমরা কখনও আমাদের প্রতিপালকের কোন শরীক স্থির করিব না,


 


 


প্রার্থনা ও প্রশংসা এই দুটো জিনিস স্বয়ং বিধাতাও পছন্দ করেন।


-সুইডেন বাগ।


 


 


 


 


 


ধর্মের পর জ্ঞানের প্রধান অংশ হচ্ছে মানবপ্রেম-আর পাপী পুণ্যবান নির্বিশেষে মানুষের মঙ্গল সাধন।


 


 


ফটো গ্যালারি
বিসিএসে উত্তীর্ণ ও নিয়োগবঞ্চিত ২৫৩ নন-ক্যাডার ডেন্টাল সার্জনের বক্তব্য
প্রেস বিজ্ঞপ্তি
১৩ জুলাই, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


৩৯তম (বিশেষ) বিসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ কিন্তু নিয়োগবঞ্চিত ২৫৩ জন নন-ক্যাডার ডেন্টাল সার্জনকে নিয়োগ প্রক্রিয়াধীন ২ হাজার চিকিৎসকের মধ্যে অন্তর্ভুক্তকরণের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা এবং মাননীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করে গত ৭ জুলাই জাতীয় প্রেসক্লাবে প্রেস কনফারেন্স ও ৮ জুলাই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। প্রেস কনফারেন্সে যে বক্তব্য তুলে ধরা হয়, তা হচ্ছে-



প্রথমে আমরা শ্রদ্ধাভরে স্মরণ করছি হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে। আমরা শ্রদ্ধা জানাই মুক্তিযুদ্ধে ৩০ লাখ শহীদের প্রতি এবং ২ লাখ সম্ভ্রমহারা মা-বোনদের প্রতি। আমরা শ্রদ্ধা জানাই ও তাদের রুহের মাগফেরাত কামনা করি সেসব শহীদ ডাক্তার, নার্স, পুলিশ, সাংবাদিকসহ ফ্রন্টলাইনের সকল শহীদের প্রতি, যারা এ করোনা মহামারীতে নিজের জীবন উৎসর্গ করেছেন দেশের মানুষের সেবায়।



সেসব মহান বীর ফ্রন্টলাইনের যোদ্ধাদের প্রতি যারা আজকের মত ভয়াবহ করোনা মহামারীতে দেশের মানুষের সেবা দিয়ে যাচ্ছেন নির্ভীকভাবে। আমরা ৩৯তম (বিশেষ) বিসিএস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ কিন্তু নিয়োগবঞ্চিত ২৫৩ জন নন-ক্যাডার ডেন্টাল সার্জন। সমগ্র দেশের চিকিৎসক সংকট নিরসন ও দেশের প্রান্তিক পর্যায়ে আপামর জনগণের স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত কল্পে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, মানবতার নেত্রী, জননেত্রী শেখ হাসিনা ২০১৭ সালের ২১ জুন ৯৫০০ জন সহকারী সার্জন (এমবিবিএস) এবং ৫০০ জন সহকারী ডেন্টাল সার্জন মিলে মোট ১০ হাজার ডাক্তার নিয়োগের অনুমোদন দিয়েছিলেন। সে অনুযায়ী বাংলাদেশ সরকারি কর্ম কমিশন ৩৯তম বিশেষ বিসিএস পরীক্ষার আয়োজন করে। ৮ এপ্রিল ২০১৮ সালে বিজ্ঞাপন জারি হয় এবং ৩ আগস্ট ২০১৮ লিখিত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হয়। ৪০ হাজার চিকিৎসক পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করেন এবং ৬ সেপ্টেম্বর ফলাফল প্রকাশ হয়। যেখানে মোট ১৩ হাজার ২০০ জন পরীক্ষার্থী মৌখিক পরীক্ষার জন্য নির্বাচিত হন। ১০ অক্টোবর ২০১৮ হতে ১১ মার্চ ২০১৯ পর্যন্ত মৌখিক পরীক্ষা চলে। মৌখিক পরীক্ষার চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ হয় ৩০ এপ্রিল ২০১৯। যেখানে ৪৫৪২ জন সহকারী সার্জন এবং ২৫০ জন সহকারী ডেন্টাল সার্জন সহ মোট ৪৭৯২ জন চিকিৎসককে ক্যাডার পদে নিয়োগ দেয়া হয়। এবং পদ স্বল্পতার কারণে ৮৩৬০ জনকে নন-ক্যাডার হিসেবে নির্বাচন করা হয়। যাদের মধ্যে আমরা ডেন্টাল সার্জন রয়েছি ২৫৩ জন।



পরবর্তীতে করোনাভাইরাসের মহামারী মোকাবেলার জন্য ৩০ এপ্রিল ২০২০ সালে ৩৯তম (বিশেষ) বিসিএস-এর ৮৩৬০ জন নন-ক্যাডার থেকে ২ হাজার সহকারী সার্জনকে নিয়োগ দেয়া হলেও কোন সহকারী ডেন্টাল সার্জন নিয়োগ দেয়া হয়নি। একই বিসিএসে লিখিত ও মৌখিক পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েও এবং চাহিদা থাকা সত্ত্বেও ডেন্টাল সার্জনরা নিয়োগবঞ্চিত হয়েছেন। সমান অনুপাতে ডেন্টাল সার্জন নিয়োগ না হওয়ায় উত্তীর্ণ নন-ক্যাডার ডেন্টাল সার্জনরা মর্মাহত ও হতাশাগ্রস্ত হয়ে পড়েছেন।



বতর্মান করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, জননেত্রী শেখ হাসিনা ৫ হাজার ৫৪ জন নার্স নিয়োগ দিয়েছেন এবং ৩ হাজার মেডিক্যাল টেকনোলোজিস্ট নিয়োগের পথে। সমপ্রতি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জাতীয় সংসদে আরো ২ হাজার চিকিৎসকের নতুন পদ সৃষ্টি ও ৪ হাজার নার্স নিয়োগের কথা বলেন।



ঙপপঁঢ়ধঃরড়হধষ ঝধভবঃু ধহফ ঐবধষঃয অফসরহরংঃৎধঃরড়হ-এর মতে ঈঙঠওউ-১৯ পরিস্থিতিতে ডেন্টিস্ট্রী পেশা খুবই ঝুঁকির মধ্যে আছে। বতর্মান পরিস্থিতিতে উপজেলা হাসপাতালসহ সকল সরকারি হাসপাতালে কর্মরত ডেন্টাল সার্জনগণ এই করোনা মহামারীতেও জনগণকে জরুরি দন্ত ও মুখগহ্বর-এর রোগের চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছেন এবং করোনা আইসোলেশন ওয়ার্ডেও দায়িত্ব পালন করছেন। এরই মধ্যে করোনা আক্রান্ত শতাধিক উপজেলার ডেন্টাল সার্জনরা আইসোলেশনে, হোম বা প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে চিকিৎসাধীন আছেন এবং কয়েকজন শহীদ হয়েছেন। একদিকে ডেন্টাল সার্জনের স্বল্পতা অন্যদিকে অসুস্থতার কারণে কেউ কেউ ছুটিতে থাকায় হাসপাতালে দন্ত চিকিৎসা সেবা দারুণ ভাবে ব্যাহত হচ্ছে। দন্ত চিকিৎসা সেবা যাতে ভেঙ্গে না পড়ে এই জন্য সহকারী ডেন্টাল সার্জন নিয়োগের প্রয়োজনীয়তা অনুভব করে জরুরি ভাবে ৩০০ জন সহকারী ডেন্টাল সার্জন নিয়োগের যৌক্তিকতা তুলে ধরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে ১৭ মে ২০২০ তারিখে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে একটি প্রস্তাব প্রেরণ করা হয়েছে।



গত ২৪ মে জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞগণের পরামর্শ এবং স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের প্রস্তাবমতে, হাসপাতালে কোভিড এবং নন-কোভিড রোগীদের স্বাস্থ্য সেবা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে ৫০ শয্যা ও তার বেশি শয্যাবিশিষ্ট সকল সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে কোভিড এবং নন-কোভিড রোগীদের চিকিৎসার জন্য পৃথক ব্যবস্থা চালুর জন্য নির্দেশ প্রদান করে প্রজ্ঞাপন জারি হয়। যার প্রেক্ষিতে পরিচালক, ঢাকা ডেন্টাল কলেজ হাসপাতালে করোনা ইউনিট চালু করার জন্য ব্যবস্থা গ্রহণ করেন এবং ডেন্টাল সার্জনের স্বল্পতার জন্য ৪০ জন ডেন্টাল সার্জন নিয়োগ/পদায়নের জন্য ১১ জুন ২০২০ তারিখে মহাপরিচালক, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর বরাবর চাহিদাপত্র প্রেরণ করেছেন ।



বাংলাদেশে ৮০ শতাংশের অধিক লোকের কমপক্ষে এক বা একাধিক মুখ বা দাঁতের রোগ আছে। দন্তাবরক প্রদাহ, মাড়ি প্রদাহ, দন্তক্ষয়, দন্তশূল, দন্তমূলীয় ঘা ইত্যাদি প্রায়ই লক্ষ্য করা যায়। এছাড়া দাঁতের সিস্ট, মুখগহ্বরের ক্যান্সার এগুলো বাংলাদেশে খুব সাধারণ সমস্যা। দেশের একটি উপজেলায় একটি মাত্র ৫০ শয্যার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেঙ্ (উপজেলা হাসপাতাল) বিদ্যমান আছে। উক্ত হাসপাতালে ডেন্টাল সার্জনের একটি মাত্র পদ রয়েছে। বতর্মানে অনেক উপজেলায় ডেন্টাল সার্জনের পদ শূন্য আছে। আবার যেখানে ডেন্টাল সার্জন আছেন সেখানেও কোন কারণে ডেন্টাল সার্জন ছুটিতে থাকলে বা অসুস্থ হলে মাসের পর মাস ওই হাসপাতালে দন্ত ও মুখগহ্বরের চিকিৎসা সেবা বন্ধ থাকে। এতে দেশের জনগণের দন্ত চিকিৎসা সেবাসহ জরুরি মুখগহ্বরের চিকিৎসা মারাত্নকভাবে বিঘি্নত হচ্ছে। অন্যদিকে, মানসম্পন্ন দন্তসেবার অভাবে গ্রামাঞ্চলে হাতুড়ে চিকিৎসার দুর্ভাগ্যজনক ব্যবসা চলছে। এসব হাতুড়েরা অশিক্ষিত, অপটু এবং এদের পেশাগত কোনো জ্ঞান নেই। ঔষধ ব্যবহারের ব্যাপারে এবং ১৯৮০ সালে প্রচলিত চিকিৎসা ও দন্তচিকিৎসা বিধি সম্পর্কেও এরা অজ্ঞ। ফলস্বরূপ প্রান্তিক পর্যায়ের সাধারণ মানুষ রেজিস্টার্ড ডেন্টাল সার্জনের অভাবে অদক্ষ/কোয়াক দন্তচিকিৎসকের কাছে চিকিৎসা নিয়ে বহু সংখ্যক রোগী দুরারোগ্য মুখের ক্যান্সার, রক্তবাহিত হেপাটাইটিস-বি/সি-সহ নানা ধরণের অনাকাঙ্ক্ষিত জটিল ও কঠিন রোগে আক্রান্ত হয়ে ধুকে ধুকে মরছে। এক গবেষণায় বলা হয়েছে, বিশ্বে ক্যান্সারের ৬ষ্ঠতম স্থানে রয়েছে মুখের ক্যান্সার।



প্রায় ১৭ কোটি লোকসংখ্যার দেশে সকল পর্যায়ে সরকারি ডেন্টাল সার্জন আছেন মাত্র ১২৯৬ জন, যা এই বিশাল জনসংখ্যার তুলনায় খুবই নগণ্য। আর এর সিংহ ভাগই ঢাকা ডেন্টাল কলেজসহ বিভিন্ন টার্শিয়ারী লেভেল হাসপাতালে কর্মরত আছেন। ৬ থেকে ১৬.৫ লাখ জনসংখ্যা অধ্যুষিত একটি উপজেলার জনগণের জন্য একটি মাত্র ডেন্টাল সার্জনের পদ অথচ সেখানে এমবিবিএস চিকিৎসক-এর পদ রয়েছে ২১ টি। এমনকি ১০০ বেড ও ২৫০ বেড হাসপাতালেও ডেন্টাল সার্জনের সৃজনকৃত পদ রয়েছে মাত্র একটি করে। দেশের ক্রমবর্ধমান দাঁত ও মুখের চিকিৎসা সেবা নিশ্চিত কল্পে বিভিন্ন হাসপাতালে ডেন্টাল সার্জনের পদ সৃজন দেশের সার্বিক স্বাস্থ্যের মানোন্নয়নে বিশেষ জরুরি।



এমতাবস্থায়, দেশের সাধারণ মানুষের দাঁত ও মুখের চিকিৎসা সেবা বহুলাংশে নিশ্চিত করতে তথা দুরারোগ্য ক্যান্সার ও হেপাটাইটিস-বি, সি-এর বিস্তার কমাতে ৩৯তম (বিশেষ) বিসিএসে উত্তীর্ণদের মধ্য হতে নিয়োগ প্রক্রিয়াধীন দুই হাজার চিকিৎসকের (এমবিবিএস) সাথে একই বিসিএস-এ উত্তীর্ণ ২৫৩ নন-ক্যাডার ডেন্টাল সার্জনকে সহকারী ডেন্টাল সার্জন পদে নিয়োগ প্রদানের জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও মাননীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রীর কাছে জোর দাবি জানাচ্ছি।



পরিশেষে আপনারা শত ব্যস্ততার মাঝেও আমাদের এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করেছেন এই জন্য আপনাদের সবাইকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি ও আপনাদের সুস্বাস্থ্য কামনা করছি। সেই সাথে মহান আল্লাহ তালার কাছে আমরা তাঁর রহমত প্রার্থনা করছি।



ধন্যবাদান্তে,



৩৯তম বিশেষ বিসিএস নন-ক্যাডার ডেন্টাল সার্জন ঐক্য পরিষদ।



 



 


এই পাতার আরো খবর -
করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ২,২৩,৪৫৩ ১,৬২,২০,৯০০
সুস্থ ১,২৩,৮৮২ ৯৯,২৩,৬৪৩
মৃত্যু ২,৯২৮ ৬,৪৮,৭৫৪
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
৩০৮১২৪
পুরোন সংখ্যা