চাঁদপুর, সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০, ৬ আশ্বিন ১৪২৭, ৩ সফর ১৪৪২
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • --
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৭৬-সূরা দাহ্র বা ইন্সান


৩১ আয়াত, ২ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


১৬। রজতশুভ্র স্ফটিক পাত্রে, পরিবেশন-কারীরা যথাযথ পরিমাণে উহা পূর্ণ করিবে।


১৭। সেথায় তাহাদিগকে পান করিতে দেওয়া হইবে যান্জাবীল মিশ্রিত পানীয়,


১৮। জান্নাতের এমন এক প্রস্রবণের যাহার নাম সালসাবীল।


 


যে সরকার জনগণকে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা দান করবে, সেটাই যথার্থ সরকার।


-জে.এ.গুড চাইল্ড।


 


 


 


 


অত্যাচার কেয়ামতের দিন সমূহ অন্ধকারের কারণ হবে।


 


ফটো গ্যালারি
গোবিন্দ রেস্টুরেন্ট উদ্বোধনকালে সুভাষ চন্দ্র রায়
নিরামিষভোজীদের জন্যে প্রতিষ্ঠানটি সহায়ক ভূমিকা পালন করবে
স্টাফ রিপোর্টার
২১ সেপ্টেম্বর, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


সম্পূর্ণ পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন পরিবেশে নিরামিষভোজীদের সুবিধার্থে চাঁদপুর শহরের প্রাণকেন্দ্রে গড়ে উঠেছে গোবিন্দ রেস্টুরেন্ট। শহরের কালীবাড়ি মোড় এলাকায় ওয়ান মিনিট সংলগ্ন সিটি হার্ট ভবনের নিচতলায় স্থাপিত গোবিন্দ রেস্টুরেন্টের উদ্বোধন করেন চাঁদপুর জেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি সুভাষ চন্দ্র রায়। গতকাল ২০ সেপ্টেম্বর রোববার দুপুরে রেস্টুরেন্টের উদ্বোধনকালে সুভাষ চন্দ্র রায় বলেন, আগে জেলার বিভিন্ন জনবহুল স্থানসহ বাসস্ট্যান্ড, রেলস্টেশনে হিন্দু হোটেল থাকতো। এখন আর তা দেখা যায় না। অনেক মানুষ আছে যারা নিরামিষ খাওয়া পছন্দ করেন। কিন্তু মানসম্পন্ন নিরামিষ দোকান না থাকায় নিরামিষভোজীদের খাদ্য গ্রহণে খুবই কষ্ট হয়। আশা করি এসকল নিরামিষভোজীদের জন্য শহরের প্রাণকেন্দ্রে গড়ে ওঠা গোবিন্দ রেস্টুরেন্টটি সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।



তিনি রেস্টুরেন্ট পরিচালকদের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, অধিক লাভের চিন্তা করবেন না। মানসম্পন্ন খাবার ও পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন পরিবেশ বজায় রাখবেন। তাহলেই প্রতিষ্ঠানের সফলতা আসবে। তিনি রেস্টুরেন্টটি পরিচালনায় সকলের সহযোগিতা কামনা করেন।



অতিথিদের মাঝে উপস্থিত ছিলেন চাঁদপুর চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সহ-সভাপতি তমাল কুমার ঘোষ, চেম্বার পরিচালক গোপাল চন্দ্র সাহা, ঢাকা ব্যাংক চাঁদপুর শাখার পরিচালক রিম্পল চৌধুরী, চাঁদপুর সিটি হার্ট ভবনের পরিচালক নিতাই সাহা (নিতু), জেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের যুগ্ম সম্পাদক বিমল চৌধুরী, জেলা পূজা পরিষদ নেতা লিটন সাহা, রঞ্জিত সাহা মুন্না, লিটন রায়, নারায়ণ পোদ্দার প্রমুখ।



গোবিন্দ রেস্টুরেন্টের পরিচালক বিশিষ্ট ব্যবসায়ী বিনয় পাল ও সুমঙ্গল কৃষ্ণ দাস জানান, প্রতিষ্ঠানটি সম্পূর্ণভাবে ইসকন ভক্তদের দ্বারা পরিচালিত হবে। সেবার মনোভাব নিয়ে আমরা প্রতিষ্ঠানটি পরিচালনা করতে বদ্ধপরিকর। এখানে সম্পূর্ণ নিরামিষ খাদ্য পরিবেশন করাসহ দুপুর এবং রাতে প্যাকেজ খাবার সরবরাহ করা হবে। এছাড়াও সুলভমূল্যে ধর্মীয় গ্রন্থ, তুলশীর মালা, জপের থলি, পূজার সামগ্রী, শাখা, সিঁদুর, মুকুট, চন্দন, ঠাকুরের সিংহাসন, পূজার সামগ্রীসহ কাঁসা পিতলের বাসনপত্র, বিয়ের সরঞ্জাম বিক্রি হবে।



তিনি বলেন, এখানে অনুকল্প প্রসাদ পাওয়া যাবে এবং একাদশীর দিন ব্যতীত ভাত, রুটি, সিঙ্গারা, পুরীসহ বিভিন্ন নিরামিষ খাবার পাওয়া যাবে সুলভমূল্যে।



 


এই পাতার আরো খবর -
করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৩,৮৭,২৯৫ ৩,৯৬,৩৮,১৮৮
সুস্থ ৩,০২,২৯৮ ২,৯৬,৭৮,৪৪৬
মৃত্যু ৫,৬৪৬ ১১,০৯,৮৩৮
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
১১৩৯৫৮৭
পুরোন সংখ্যা