চাঁদপুর, বৃহস্পতিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২০, ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৭ রবিউস সানি ১৪৪২
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • -
হাজীগঞ্জে পানিতে ডুবে দুই মাসে ২০ শিশুর মৃত্যু
কামরুজ্জামান টুটুল
০৩ ডিসেম্বর, ২০২০ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


হাজীগঞ্জে পানিতে ডুবে গত দুই মাসে অন্তত ২০ শিশু মারা গেছে। পানিতে ডুবে শিশু মৃত্যুর হার আশঙ্কাজনক হারে বৃদ্ধি পাওয়ায় অভিভাবকদের মাঝে এক ধরনের আতঙ্ক বিরাজ করছে। তবে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেঙ্ তাদের তথ্যমতে ১৭ শিশুর মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। আবার উপজেলার প্রত্যন্ত অঞ্চলে যাদের মৃত্যুর বিষয়টি স্থানীয়ভাবে নিশ্চিত হয়ে যায় তাদেরকে সাধারণত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেঙ্ েআনা হয় না। এ জাতীয় শিশুমৃত্যু একেবারে কম নয়। অপরদিকে পানিতে ডুবে শিশুমৃত্যুর জন্যে প্রধানত দায়ী অভিভাবকগণের অসচেতনতা বলে মনে করছে স্বাস্থ্য বিভাগ। তবে পানিতে ডুবে মারা যাওয়া শিশুদের বয়স সাধারণত ২ থেকে ৪ বছরের মধ্যে সবচে' বেশি।



খোঁজ নিয়ে জানা যায়, গত ২৭ নভেম্বর নিজ পুকুরের পানিতে ডুবে বাকিলা ইউনিয়নের খলাপাড়ায় ফয়সাল হোসেন (৪) ও একইদিনে সদর ইউনিয়নে সুবিদপুর গ্রামে শাখাওয়াত হোসেন (২), ১৯ নভেম্বর হাজীগঞ্জ পৌরসভাধীন রান্ধুনীমুড়া গ্রামে মারওয়া আক্তার জারা (৩), ১৬ নভেম্বর বদরপুর গ্রামে ইনতিয়া ইসলাম ইভা (৫) ও ৮ নভেম্বর হাটিলা পূর্ব ইউনিয়নে বলিয়া গ্রামে ফারজানা (২) মারা যায়। অর্থাৎ একইদিনে দুই শিশু পানিতে ডুবে মারা যাওয়ার ঘটনা নেহাৎ কম নয়।



একই মাসের ৬ নভেম্বর পুকুরের পানিতে ডুবে পৌরসভাধীন কংগাইশ গ্রামে আব্দুল্লাহ (২) ও একই দিনে সদর ইউনিয়নের বাড্ডা গ্রামে সায়মা আক্তার (২), ৪ নভেম্বর কালচোঁ দক্ষিণ ইউনিয়নের রামপুর-নওহাটা গ্রামে সাকিবুল হাসান (৭) এবং ২ নভেম্বর বড়কুল পূর্ব ইউনিয়নে বড়কুল গ্রামে কুলসুমা আক্তার (২) মারা যায়।



এছাড়াও গত ২ অক্টোবর পুকুরের পানিতে ডুবে দ্বাদশগ্রাম ইউনিয়নের মালাপাড়া গ্রামে আনোয়ার হোসেন (২), ৪ অক্টোবর পৌরসভাধীন মকিমাবাদ গ্রামে সায়মুন হোসেন (৪), ৬ অক্টোবর পনিশাইর গ্রামে রাহুল (৮) ও একইদিনে বড়কুল পশ্চিম ইউনিয়নের রামচন্দ্রপুর গ্রামে আব্দুর রহমান (২), ১০ অক্টোবর রাজারগাঁও গ্রামে আশরাফি (৬) মারা যায়। ১৪ অক্টোবর পুকুরের পানিতে ডুবে কালচোঁ দক্ষিণ ইউনিয়নের নওহাটা গ্রামে ইভা আক্তার (৩) ও একইদিন রামপুর গ্রামে আব্দুল্লাহ্ আল মাহি (৪), ২০ অক্টোবর রাজারগাঁও ইউনিয়নে পশ্চিম রাজারগাঁও গ্রামে একই বাড়ির ও একই সময়ে ফাহিম (১১) ও নাজমুল হাসান (৯), ২১ অক্টোবর গন্ধর্ব্যপুর উত্তর ইউনিয়নের পালিশারা গ্রামে আমেনা বেগম (৯০), ২৬ অক্টোবর পনিশাইর গ্রামের আয়ান (৩) ও ২৭ অক্টোবর বড়কুল পূর্ব ইউনিয়নের ফারিহা সুলাতানা (১৫ মাস) মারা যায়।



স্থানীয়দের সূত্রে জানা যায়, অভিভাবকদের সন্তানদের প্রতি ঠিকমতো নজর না রাখা এবং বাবারা কাজে ঘরের বাইরে থাকার কারণে সাধারণত মায়েরাই সন্তান দেখাশোনার কাজটি করেন। কিন্তু পারিবারিক ও সাংসারিক কাজে তাদের ব্যস্ত থাকতে হয় বলে সন্তানকে সবসময় চোখে চোখে রাখা মায়েদের জন্যে কঠিন হয়ে পড়ে। যার ফলে বেশিরভাগ ক্ষেত্রে শিশুরা পানিতে ডুবে মারা যায়।



উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ এস.এম. সোয়েব আহমেদ চিশতী জানান, পানিতে ডুবে শিশুমৃত্যু প্রতিরোধে ৫ বছরের বেশি বয়সী শিশুদের সাঁতার শেখানো এবং ৫ বছরের কম বয়সী শিশুদের চোখে চোখে রাখতে হবে। বাবা-মাকে আরো বেশি সচেতন ও সতর্ক হতে হবে। এক্ষেত্রে পারিবারিকভাবে সচেতনতা জরুরি।



 



 


এই পাতার আরো খবর -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৮৯-সূরা ফাজর :


৩০ আয়াত, ১ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


১২। এবং সেথায় অশান্তি বৃদ্ধি করিয়াছিল।


১৩। অতঃপর তোমার প্রতিপালক উহাদের উপর শাস্তির কষাঘাত হানিলেন।


১৪। তোমার প্রতিপালক অবশ্যই সতর্ক দৃষ্টি রাখেন।


 


 


 


assets/data_files/web

প্রকৃতি বিধাতার অমূল্য দান। _টমাস


 


 


 


 


 


যাহার একদিনের সংস্থান আছে ভিক্ষা করা তাহার জন্য নিষিদ্ধ।


 


 


 


 


ফটো গ্যালারি
করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৫,১২,৪৯৬ ৮,২৪,৩৫,৪৮২
সুস্থ ৪,৫৬,০৭০ ৫,৮৪,৪৩,৫১৫
মৃত্যু ৭,৫৩১ ১৭,৯৯,২৯৪
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
৮৮৮১৫৪
পুরোন সংখ্যা