চাঁদপুর, বুধবার ২০ জানুয়ারি ২০২১, ৬ মাঘ ১৪২৭, ৬ জমাদিউস সানি ১৪৪২
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • বীমায় আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহারের পরামর্শ প্রধানমন্ত্রীর
ফরিদগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচন-২০২১
মেয়র পদে হাতপাখা প্রতীকে লড়বেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ দেলোয়ার
সানাউল হক
২০ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


ফরিদগঞ্জ পৌরসভার মেয়র পদে হাতপাখা প্রতীকে মনোনয়ন পেয়েছেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ফরিদগঞ্জ উপজেলার সিনিয়র উপদেষ্টা বীর মুক্তিযোদ্ধা মোঃ দেলোয়ার হোসেন। ২০১৫ সালের পৌর নির্বাচনেও তিনি হাতপাখা প্রতীকে ভোটের মাঠে ছিলেন। আসন্ন ফরিদগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে আওয়ামী লীগ থেকে নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন পেয়েছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল খায়ের পাটোয়ারী। আর বিএনপি তথা ধানের শীষ প্রতীক পেয়ে নির্বাচন করবেন ইমাম হোসেন। মনোনয়ন প্রত্যাশীদের নানা জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে প্রতীক প্রার্থী চূড়ান্ত হয়ে গেছে। এবার পালা ভোটের মাধ্যমে জয়-পরাজয় নির্ধারণ।



মুহাম্মদ আতাউল গনি ওসমানি স্বাক্ষরিত মুক্তিযুদ্ধের সনদপত্রে দেখা যায়, মোঃ দেলোয়ার হোসেন ১৯৭১ সালে একজন বীর সৈনিক হিসেবে ২নং সেক্টরে যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন। যুদ্ধকালীন প্রশিক্ষকের নাম সুবেদার এমএ করিম। যুদ্ধকালীন প্রশিক্ষণ শিবিরের নাম ফরিদগঞ্জ এআর পাইলট মাঠ। মুক্তিযুদ্ধকালে সময়ে তার সাথে থাকা অন্য সহযোদ্ধাদের নাম খলিলুর রহমান, মোহাম্মদ হারুনুর রশিদ ও মনির আহমেদ।



বীর মুক্তিযোদ্ধা দেলোয়ার হোসেন ১৯৪৯ সালে ফরিদগঞ্জ পৌরসভা চরকুমিরা এলাকায় জন্মগ্রহণ করেন। পিতার নাম ক্বারী মোহাম্মদ উল্লাহ। উপজেলার সকল ধর্ম, বর্ণের মানুষের কাছে মরহুম ক্বারী মোহাম্মদ উল্লাহর সুনাম খ্যাতি বিদ্যমান আছে। ইসলাম ধর্ম প্রচার এবং মানবিক, সামাজিক কাজে মরহুম ক্বারী মোহাম্মদ উল্লাহর অবদান এলাকাবাসীর কাছে অনস্বীকার্য। তাঁর দেখানো পথে হাতপাখা প্রার্থী মোঃ দেলোয়ার ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে ২নং সেক্টরে যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেন।



জানা গেছে, ফরিদগঞ্জ পৌরসভায় এবারের নির্বাচনে দুই দলের দুজন মুক্তিযোদ্ধা ভোটের মাঠে অংশগ্রহণ করতে যাচ্ছেন। হাতপাখা প্রার্থী মোঃ দেলোয়র হোসেন ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ফরিদগঞ্জ উপজেলা সাবেক সভাপতি ও বাংলাদেশ মুজাহিদ কমিটির উপজেলা সাবেক সভাপতি পদে দীর্ঘদিন দায়িত্ব পালন করেছেন। অন্যদিকে সরকার দলীয় প্রার্থী হিসেবে নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন পেয়েছেন বীর মুক্তিযোদ্ধা আবুল খায়ের পাটোয়ারী। তিনি ফরিদগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি পদে দায়িত্ব পালন করেছেন।



হাতপাখা প্রার্থী মোঃ দেলোয়ার হোসেন দৈনিক চাঁদপুর কণ্ঠকে জানান, আমি ১৯৭১ সালে স্বাধীনতা যুদ্ধে ২নং সেক্টরে প্রত্যক্ষভাবে অংশগ্রহণ করেছি। আমার উদ্দেশ্য ছিলো দেশকে স্বাধীন করা। মুক্তিযুদ্ধের সনদপত্রে নাম লেখানোর জন্যে আমি যুদ্ধে যাইনি। যুদ্ধ পরবর্তীকালে অনেকে, অনেক দল মতের সাথে যোগ দিয়ে আখের গুছিয়েছে। আমার পক্ষে নয়-ছয় করা সম্ভব হয়নি। যুদ্ধে অংশগ্রহণ করেছি, দেশ স্বাধীন হয়ে গেছে, এখানেই প্রাপ্তি। এখন প্রয়োজন মনে হলে রাষ্ট্র আমার খোঁজ নিবে। যেহেতু আমার নাম, সেক্টর ইত্যাদি রাষ্ট্রের নথিপত্রে সংযুক্ত আছে।



তিনি আরোও বলেন, ফরিদগঞ্জ পৌরসভা হচ্ছে জেলার মধ্যে একটা বিস্তৃত আয়তন নিয়ে গঠিত পৌরসভা। দীর্ঘদিন ধরে এই পৌরসভায় তেমন উন্নয়নের ছোঁয়া লাগেনি। উদ্দেশ্য যদি গন্তব্যবিহীন হয়, উন্নয়ন সেখানে ধরাছোঁয়ার বাইরেই থেকে যাবে। ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ থেকে আমাকে ফরিদগঞ্জ পৌরসভায় মনোনয়ন দেয়া হয়েছে। পৌরবাসী বিগত দিনগুলোতে তাদের পছন্দের জনপ্রতিনিধিকে ভোট দিয়ে নির্বাচিত করে দেখেছেন যে, উন্নয়নের ফলাফল কী ঘটেছে। উন্নয়ন বলতে শুধুমাত্র অর্থনৈতিক সফলতাই যথেষ্ট নয়। সামাজিক, মানবিক, পারস্পরিক শ্রদ্ধাবোধ, ধর্মীয় মূল্যবোধ_এ সকল বিষয়গুলো স্বয়ংসম্পন্ন হয়ে গেলেই বাস্তবিক উন্নয়নের ফলাফল ভোগ করা সম্ভব। আর এমন সব কাজগুলো প্রতিষ্ঠিত করতে হলে অবশ্যই ইসলামী আন্দালন বাংলাদেশের বিকল্প নেই। মহান রব যদি প্রিয় পৌরবাসীর ভোটের মাধ্যমে আমাকে বিজয়ী করে দেয়, অবশ্যই আমি ফরিদগঞ্জ পৌরসভায় অর্থনৈতিক, সামাজিক, মানবিক কাজে সফলতা আনবো ইনশাআল্লাহ।



আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি চতুর্থ ধাপে ফরিদগঞ্জ পৌরসভায় মেয়র ও কাউন্সিলর পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে। এই নির্বাচনে পৌর নয়টি ওয়ার্ডে মোট ভোটার আছেন প্রায় ২২ হাজার। ২০০৫ সালে ১৯.৫ বর্গ কি.মি. আয়তন নিয়ে গঠিত হয় ফরিদগঞ্জ পৌরসভা। যার মান বর্তমানে 'খ'।



 



 


এই পাতার আরো খবর -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৮৯-সূরা ফাজর :


৩০ আয়াত, ১ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


২৩। সেই দিন জাহান্নামকে আনা হইবে এবং সেই দিন মানুষ উপলব্ধি করিবে, তখন এই উপলব্ধি তাহার কী কাজে আসিবে?


২৪। সে বলিবে, 'হায়! আমার এ জীবনের জন্য আমি যদি কিছু অগ্রিম পাঠাইতাম?'


 


 


 


মন্দ লোকের সঙ্গে যার উঠা বসা, সে কখনো কল্যাণের মুখ দেখবে না। - শেখ সাদী।


 


 


একজন খাঁটি মুসলমান কাবাঘর হইতে উত্তম।


 


 


 


ফটো গ্যালারি
করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৫,৩৮,০৬২ ১০,৬৪,২৭,১০৩
সুস্থ ৪,৮৩,৩৭২ ৭,৮০,৮৪,৯০৯
মৃত্যু ৮,২০৫ ২৩,২২,০৫৩
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
৮৬১২১৮
পুরোন সংখ্যা