চাঁদপুর, বৃহস্পতিবার ২১ জানুয়ারি ২০২১, ৭ মাঘ ১৪২৭, ৭ জমাদিউস সানি ১৪৪২
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • আজ শনিবার সংবাদ সম্মেলন করবেন প্রধানমন্ত্রী
পরিবারের টাকা আর শ্রমে চলছে মুক্তিযোদ্ধা 'খোকন বিএসসির পাঠশালা'
কাগুজে নাম 'আনোয়ার আলী মেমোরিয়াল স্কুল এন্ড কলেজ' শিক্ষার্থী ছয় শতাধিক এমপিওভুক্তি চান প্রতিষ্ঠাতা
২১ জানুয়ারি, ২০২১ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


কামরুজ্জামান টুটুল



হাজীগঞ্জে নিজের পরিবারের টাকা আর শ্রমে চলছে 'খোকন বিএসসির পাঠশালা'। নিজ অর্থায়নে জমি কিনে ২০১৪ সালে মাধ্যমিক বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা করেন খোকন বিএসসি। প্রতিষ্ঠার পর থেকে শিক্ষকদের নিয়মিত বেতন প্রদান, অবকাঠামো উন্নয়নসহ নিজে অবৈতনিক অধ্যক্ষ পদে থেকে নিজের দুই ছেলেকে দিয়ে বিনা বেতন পড়াচ্ছেন এলাকার হাজার হাজার ছেলে-মেয়েকে। এলাকাকে আলোকিত করে চলছেন নিজের পরিবারের অর্থ আর শ্রমে। শিক্ষকতা পেশার দায় থেকে বিদ্যালয়টি প্রতিষ্ঠা করেছেন। এখন বিদ্যালয়টিকে সামনের দিকে এগিয়ে নিতে যেন দায়িত্ব কাঁধে পড়েছে। সরকারিভাবে পাঠদানের অনুমতিসহ এমপিওভুক্তির জন্যে সরকারের সংশ্লিষ্ট দপ্তরে দৌড়াচ্ছেন এই বীর মুক্তিযোদ্ধা খোকন বিএসসি।



খোঁজ নিয়ে জানা যায়, আবদুর রব খোকন এলাকায় খোকন বিএসসি হিসেবে পরিচিতি। শিক্ষকতা পেশায় থাকাকালীন জাতির জনকের ডাকে চলে যান মুক্তিযুদ্ধে। যুদ্ধ চলাকালীন ভারতে ট্রেনিং গ্রহণ করে এলাকায় এসে জড়িয়ে পড়েন সরাসরি মুক্তিযুদ্ধে। বেশ ক'বার পাকবাহিনীর সাথে সরাসরি যুদ্ধে অংশ নিয়েছেন। যুদ্ধচলাকালীন দুই উপজেলার সহকারী কমান্ডার হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। স্বাধীনতার পর হাজীগঞ্জ উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদে দুবার কমান্ডারের দায়িত্ব পালন করেন। যুদ্ধ শেষে ফিরে যান পুরানো পেশা শিক্ষকতায়। শিক্ষকতা পেশায় থেকে ছেলেদেরকে গড়ে তুলেছেন নিজেদের মতো করে। ছেলেদের সবাই প্রতিষ্ঠিত। একজন সরকারের গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করছেন।



শিক্ষকতা পেশা থেকে অবসর নিয়ে আব্দুর রব খোকন বিএসসি নেমে পড়েন নিজের স্বপ্ন পূরণে তথা স্কুল প্রতিষ্ঠার কাজে। গড়ে তোলেন নিজ বাবার নামে স্কুল। হাজীগঞ্জের বাকিলা ইউনিয়নের টেকেরবাজার এলাকায় গড়ে তোলেন 'আনোয়ার আলী মেমোরিয়াল স্কুল এন্ড কলেজ'। কিন্তু এলাকায় এটি 'খোকন বিএসসির পাঠশালা' নামেই পরিচিত। ২০১৪ সালে ৭৪ শতাংশ জমির উপর গড়ে উঠে এ প্রতিষ্ঠানটি। শুরুর দিকে ছাত্র-ছাত্রী কিছুটা কম হলেও এর পড়ালেখার মান দেখে ধীরে ধীরে শিক্ষার্থী বাড়তে থাকে। বর্তমানে এখানে ৬ শতাধিক শিক্ষার্থী অধ্যয়নরত রয়েছে। বিদ্যালয়ের পাশের ৫/৬ কিলোমিটারের মধ্যে মাধ্যমিক পর্যায়ের কোনো শিক্ষা প্রতিষ্ঠান না থাকার কারণে অত্র অঞ্চলের শিক্ষার্থীরা এখানেই পড়ার সুযোগ পাচ্ছে।



অবকাঠামোগত দিক দিয়ে ৩ হাজার বর্গফুটের একটি সেমিপাকা, একটি একাডেমিক ভবন ও সমমানের টিনের তৈরি আরেকটি একাডেমিক ভবন থাকাতে ক্লাস নিতে তেমন সমস্যা হয় না। ৬শ' শিক্ষার্থীর জন্য শিক্ষক রয়েছেন ১৪ জন। এ ১৪ জন শিক্ষককে নিয়মিত বেতন দিয়ে যাচ্ছেন প্রতিষ্ঠাতার পরিবারের পক্ষ থেকে।



খোঁজ নিয়ে জানা যায়, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুর রব খোকন বিএসসি নিজে প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষ হিসেবে প্রতিষ্ঠানটিকে দাঁড় করানোর জন্য নিরলসভাবে কাজ করছেন। প্রতিষ্ঠাতার অপর দুই ছেলে গ্রাজুয়েশন শেষ করার পর থেকে এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শিক্ষকতা পেশায় রয়েছেন। প্রতিষ্ঠাতাদের এই ৩ জনই শুরু থেকে অবৈতনিক হিসেবে শিক্ষকতা করছেন।



আব্দুর রব খোকন বিএসসি বলেন, আমি স্কুলটি প্রতিষ্ঠা করেছি এলাকাকে আরো আলোকিত করতে। এই প্রতিষ্ঠানে পড়ালেখা করে এলাকার ছেলেমেয়েরা দেশের উন্নয়নে কাজ করবে সেটাই আমার প্রত্যাশা। পাঠদানের অনুমতিসহ বিদ্যালয়টি এমপিওভুক্ত হলে আমরা আরো মনের সাহস নিয়ে কাজ করতে পারবো। সরকারের প্রতি আকুল আবেদন, সরকার যেন আমাদের এই বিদ্যালয়টিকে পাঠ দানের অনুমতিসহ এমপিওভুক্ত করার ব্যবস্থা করে দেন।



আনোয়ার আলী মেমোরিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের পাঠদানের অনুমতির বিষয়ে উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা মোস্তাফিজুর রহমান জানান, এ বিষয়ে আমাদের কাছে একটি আবেদন এসেছিলো, আমরা আরো আগে মন্ত্রণালয়ে পাঠিয়েছি।



 



 


হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

 


৮৯-সূরা ফাজর :


৩০ আয়াত, ১ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


 


বৃহস্পতিবার : ২১ জানুয়ারি ২০২১


ফজর : ০৫ : ২৬ মিঃ


সূর্যোদয় : ০৬ : ৪৩ মিঃ


ইশরাক : ০৭ : ০৬ মিঃ


যোহর : ১২ : ১২ মিঃ


আছর : ০৩ : ৫৬ মিঃ


মাগরিব : ০৫ : ৩৬ মিঃ


এশা : ০৬ : ৩৬ মিঃ


 


 


 


assets/data_files/web

মাত্রাধিক নম্রতার অর্থই হল কর্কশতা।


_জাপানি প্রবাদ।


 


 


 


 


নফস্কে দমন করাই সর্বপ্রথম জেহাদ।


 


 


ফটো গ্যালারি
করোনা পরিস্থিতি
বাংলাদেশ বিশ্ব
আক্রান্ত ৫,৩৮,০৬২ ১০,৬৪,২৭,১০৩
সুস্থ ৪,৮৩,৩৭২ ৭,৮০,৮৪,৯০৯
মৃত্যু ৮,২০৫ ২৩,২২,০৫৩
দেশ ২১৩
সূত্র: আইইডিসিআর ও বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।
আজকের পাঠকসংখ্যা
২০৫৫৬১
পুরোন সংখ্যা