চাঁদপুর। বুধবার ১৩ জুলাই ২০১৬। ২৯ আষাঢ় ১৪২৩। ৭ শাওয়াল ১৪৩৭
ckdf

সর্বশেষ খবর :

  • পুরানবাজার ট্রাঙ্কপট্টিতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড, আগুন নিয়ন্ত্রনে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিস || পুরানবাজার ট্রাঙ্কপট্টিতে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড, আগুন নিয়ন্ত্রনে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিস
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২৪-সূরা নূর

৬৪ আয়াত, ৯ রুকু, ‘মাদানি’

পরম করুণাাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

৩৭। সেইসব লোক, যাহাদিগকে ব্যবসা-বাণিজ্য এবং ক্রয়-বিক্রয় আল্লাহর স্মরণ হইতে এবং সালাত কায়েম ও যাকাত প্রদান হইতে বিরত রাখে না, তাহারা ভয় করে সেই দিনকে যেই দিন অনেক অন্তর ও দৃষ্টি বিপর্যস্ত হইয়া পড়িবে।

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


প্রকৃতির প্রথম এবং প্রধান আইন হচ্ছে মাতা-পিতাকে মান্য করা।  

-জ্যাকুইল মিলার।


অতিথি সৎকারকারীর অসুবিধা উৎপাদন করিয়া অতিথির বেশিদিন অবস্থান করা উচিত নয়।      

-হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)


পরকীয়ায় বিচ্ছেদে ভরণপোষণ পাবেন না স্ত্রী
১৩ জুলাই, ২০১৬ ২১:৪৮:৩৭
প্রিন্টঅ-অ+


বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কের কারণে বিচ্ছেদের ক্ষেত্রে স্বামীর কাছ থেকে ভরণপোষণ পাবেন না স্ত্রী। ভারতের মুম্বাইয়ের একটি আদালত গতকাল শুক্রবার এমন রায় দিয়েছেন।

আজ শনিবার টাইমস অব ইন্ডিয়ার অনলাইনে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, স্বামীর কাছে ভরণপোষণ চেয়ে দক্ষিণ মুম্বাইয়ের ৩৮ বছর বয়সী এক নারীর করা একটি আবেদন খারিজ করেছেন আদালত। অপরদিকে ওই নারীর সাবেক স্বামীর আবেদন আদালত গ্রহণ করেছেন।

আদালত আদেশে বলেছেন, অন্য পুরুষের সঙ্গে বিবাহবহির্ভূত সম্পর্কে জড়ালে স্বামীর কাছে কোনো স্ত্রী ভরণপোষণ দাবি করতে পারবেন না। নিজের অপকর্মের জন্য ওই স্ত্রী কোনো সুযোগ-সুবিধা পেতে পারেন না।

৪০ বছর বয়সী সাবেক স্বামীর আবেদন গ্রহণ করেছেন আদালত। স্ত্রীর বিরুদ্ধে নিষ্ঠুরতা ও অবৈধ সম্পর্কের অভিযোগে বিচ্ছেদ চেয়ে আবেদন করেছিলেন তিনি।

আদালত সূত্রে জানা যায়, এই দম্পতি ১৯৯৯ সালে বিয়ে করেছিলেন। তাঁদের ১২ বছর বয়সী একটি ছেলে আছে। স্বামী একটি ব্যবসা চালান। তিনি বাসায় ফেরেন রাত ১০টায়। স্বামীর অভিযোগ, ২০০৫ সালের নভেম্বরের একদিন বেশ আগেই বাসায় ফেরেন তিনি। বাসায় সন্তানকে একা দেখতে পান। স্ত্রীর সঙ্গে বারবার মুঠোফোনে যোগাযোগের চেষ্টা করেন তিনি। কিন্তু তা বন্ধ পাওয়া যায়। রাত পৌনে আটটায় বাসায় ফেরেন স্ত্রী। বাইরে যাওয়ার কারণ জানতে চাইলে বিষয়টি এড়ানোর চেষ্টা করেন তিনি। পরে এক নারী বন্ধুর সঙ্গে সাক্ষাতের কথা বলেন। কিন্তু খোঁজ নিয়ে দেখা যায়, ওই নারীর সঙ্গে দেখা করেননি তিনি।

পরের দিন ওই নারী স্বীকার করেন, তিনি তাঁর এক প্রতিবেশী পুরুষের সঙ্গে হোটেলে গিয়েছিলেন। ওই প্রতিবেশী বিভিন্ন সময় তাঁদের বাসায় যাতায়াত করেন বলেও জানতে পারেন স্বামী। স্ত্রীর পরকীয়ার বিষয়টি ধরা পড়ে। এ ঘটনায় নিষ্ঠুরতা ও অবৈধ সম্পর্কের অভিযোগ এনে ২০০৫ সালের ডিসেম্বরে বিচ্ছেদ চেয়ে আবেদন করেন স্বামী। উপযুক্ত তথ্যপ্রমাণ ও যুক্তিতর্ক শেষে আবেদনটি গ্রহণ করেন আদালত।

আদালত রায়ে বলেছেন, স্বামী-স্ত্রীর মধ্যকার সম্পর্কের বিশ্বাস ভঙ্গ করেছেন স্ত্রী। তাই স্বামীকে আর তাঁর বৈবাহিক সম্পর্ক অব্যাহত রাখতে বলা যাবে না।


আজকের পাঠকসংখ্যা
৪৯২৪৪৪
পুরোন সংখ্যা