চাঁদপুর। শনিবার ১৭ জুন ২০১৭। ৩ আষাঢ় জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪। ২১ রমজান ১৪৩৮
kzai
muslim-boys

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২৮-সূরা কাসাস 


৮৮ আয়াত, ৯ রুকু, ‘মক্কী’


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৫৮। কত জনপদকে আমি ধ্বংস করিয়াছি যাহার বাসিন্দারা নিজেদের ভোগ-সম্পদের দম্ভ করিত। এইগুলিই তো উহাদের ঘরবাড়ী; উহাদের পর এইগুলিতে লোকজন সামান্যই বসবাস করিয়াছে। আর আমি তো চূড়ান্ত মালিকানার অধিকারী।


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 


দেশের নিরাপত্তাই সর্বোচ্চ আইন।


                -জাস্টিনিয়ান।


 


যার হৃদয়ে বিন্দু পরিমাণ অহঙ্কার আছে সে কখনো বেহেস্তে প্রবেশ করতে পারবে না। 


 

আহ্বায়কের অভিব্যক্তি
১৭ জুন, ২০১৭ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


 



চাঁদপুর কণ্ঠ তার নিয়মিত প্রকাশনার ২ যুগে পদার্পণ করলো-এটা ভাবলে নিজেই অবাক হয়ে যাই। ২ যুগ পূর্বে যখন পত্রিকাটি সাপ্তাহিক হিসেবে যাত্রা শুরু করেছিলো তখন ভাবিনি চাঁদপুর কণ্ঠ একটি বৃহৎ প্রতিষ্ঠানে পরিণত হয়ে বহু সাংবাদিক, সম্পাদক সৃষ্টিতে অবদান রাখবে। কখনো ভাবিনি আর্তমানবতার পাশে দাঁড়াবে, দেশের গুরুত্বপূর্ণ সেলিব্রেটিদের পদচারণা পড়বে চাঁদপুর কণ্ঠে, সামাজিক ও নানা গণমুখী কাজ করবে, বিতর্কের জ্বরে কাঁপবে পুরো জেলা, তুখোড় বিতার্কিক সৃষ্টি করবে চাঁদপুর কণ্ঠ-এ যে রীতিমতো বিস্ময়কর ইতিহাস ছাড়া অন্য কিছু নয়।



 



এবার আমরা ২৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ৮টি ক্রোড়পত্র প্রকাশ করলাম। দেশের কোনো জেলা পর্যায়ে একটি দৈনিক তার প্রতিষ্ঠাবার্ষিকীতে ধারাবাহিকভাবে প্রতিটি উপজেলাকে নিয়ে বিশেষ ক্রোড়পত্র প্রকাশ করার দৃষ্টান্ত আর আছে কিনা আমার জানা নেই। মূলত এ পত্রিকার ঊষালগ্নে যে কর্তব্য পালন শুরু করেছিলাম আজ পত্রিকার দুই যুগ পদার্পণে ভিন্ন আঙ্গিকে উদ্যাপনের দায়িত্ব কাঁধে পড়ার বিষয় মনে হয় অনেকটা কাকতালীয় হয়ে গেলো।



আমরা এবার ঘটা করে ২৩ বছর পূর্তি পালন না করলেও ভিন্ন আঙ্গিকে পাঠকের কাছে যেতে চেষ্টা করেছি। আমরা এতে বিপুল সাড়াও পেয়েছি। চাঁদপুর কণ্ঠ তার এ দীর্ঘ পথচলায় আজকের এই মহীরুহরূপে দাঁড়ানোর পেছনে বিরাট ভূমিকা রেখেছেন পত্রিকার প্রতিষ্ঠাতা, সম্পাদক ও প্রকাশক আলহাজ্ব অ্যাডঃ ইকবাল বিন-বাশার। যাঁর প্রদত্ত অবাধ স্বাধীনতা ও পত্রিকার কোনো কাজে অযাচিত হস্তক্ষেপ না করা, রাজনৈতিক দৃষ্টিভঙ্গিতে পত্রিকাকে না সাজানোর অঙ্গীকারে চাঁদপুর কণ্ঠ অভীষ্ট লক্ষ্যে এগিয়ে যেতে পারছে। পত্রিকার মূল চালিকা শক্তি প্রধান সম্পাদক কাজী শাহাদাত ভাই তাঁর মেধা, শ্রম, ঘাম, বলিষ্ঠ ও যোগ্য সম্পাদনা গুণে এখনো পত্রিকার মান ধরে রেখেছেন। জেলার শ্রেষ্ঠ পত্রিকা হিসেবে আমরা পাঠকের হৃদয়ে স্থান করে নিতে পেরেছি বলে নিজেরাও আনন্দের অংশীদার হয়ে গর্ববোধ করছি।



চাঁদপুর কণ্ঠের এই ২৩ বছর পূর্তি পালনে সকল উপজেলা প্রতিনিধি, পত্রিকার জন্মলগ্ন থেকে সম্মানীয় পাঠক, শুভাকাঙ্ক্ষী যারা পত্রিকায় শ্রম দিয়েছেন, আজকে খ্যাতিমান হয়েছেন, বর্তমানে যারা অবদান রাখছেন তাদের সকলের প্রতি রইলো কৃতজ্ঞতা ও শুভেচ্ছা। চাঁদপুর কণ্ঠ এগিয়ে যাচ্ছে, আরো এগিয়ে যাবে, ভালো থাকবে, জেলার নন্দিত পত্রিকা হিসেবে সবার মুখে মুখে থাকবে-এ বিশ্বাস রাখছি।



 



মির্জা জাকির



আহ্বায়ক



চাঁদপুর কণ্ঠের ২৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্যাপন পরিষদ-২০১৭;



নির্বাহী সম্পাদক, দৈনিক চাঁদপুর কণ্ঠ



ও প্রতিষ্ঠাকালীন বার্তা সম্পাদক, সাপ্তাহিক চাঁদপুর কণ্ঠ।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৫৩১১১৫
পুরোন সংখ্যা