চাঁদপুর। রোববার ১০ এপ্রিল ২০১৬। ২৭ চৈত্র ১৪২২। ২ রজব ১৪৩৭
ckdf

বিজ্ঞাপন দিন

সর্বশেষ খবর :

  • --
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২৩-সূরা : মু’মিনূন

১১৮ আয়াত, ৬ রুকূ, মক্কী

পরম করুণাাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

২৯। আরও বলিও, হে আমার প্রতিপালক! আমাকে এমনভাবে অবতরণ করা ও যাহা হইবে কল্যাণকর; আর তুমিই শ্রেষ্ঠ অবতরণকারী।  

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


কর্মদক্ষতাই মানুষের সর্বাপেক্ষা বড় বন্ধু।

-দাওয়ানি।


যে পরনিন্দা গ্রহণ করে সে নিন্দুকের অন্যতম।

-হযরত মুহাম্মদ (সাঃ)

 


দেশ মৃত্যুপুরিতে পরিণত হয়েছে
১০ এপ্রিল, ২০১৬ ১২:২৭:৫০
প্রিন্টঅ-অ+


‘রক্তের হোলি খেলা’র মধ্যে দিয়ে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে বিধায় দেশ মৃত্যুপুরিতে পরিণত হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য লেফটেন্যান্ট জেনারেল (অব.) মাহবুবুর রহমান।



নতুন বছরে পরবর্তী ধাপগুলোর ইউপি নির্বাচন অবাধ ও শান্তিপূর্ণ করতে নির্বাচন কমিশনের (ইসি) প্রতি আহ্বান জানান বিএনপির এই নেতা।



শনিবার দুপুরে জাতীয় প্রেস ক্লাবের ভিআইপি লাউঞ্জে ‘সাংস্কৃতিক অগ্রযাত্রা বাংলা নববর্ষের তাৎপর্য’ শীর্ষক এক গোলটেবিল আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন জেনারেল মাহবুব।

‘বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক দল’ নামের একটি সংগঠন এ সভার আয়োজন করে।



মাহবুবুর রহমান বলেন, ‘গণতন্ত্রের শেষ পর্যায় হচ্ছে তৃণমূল জনগণের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন। অথচ রক্তের হোলিখেলার মধ্যে দিয়ে সে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। সেখানে হত্যাযজ্ঞ, লাশের পর লাশের মিছিল হয়েছে। দেশ মৃত্যুপুরিতে পরিণত হয়েছে। এ নির্বাচন দেশের জন্য মঙ্গল হয়ে আনবে না। তাই হত্যার নির্বাচন বন্ধ করতে হবে। কারণ, হত্যা-হানাহানির নির্বাচন দেশ কিংবা বিশ্ববাসী কেউই গ্রহণ করবে না।’



তিনি বলেন, ‘নির্বাচনের সময়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) ক্ষমতা প্রধানমন্ত্রীর চেয়েও বেশি থাকে। প্রশাসন থাকে তাদের হাতে। সেজন্য তারা চাইলেই নির্বাচন অবাধ ও শান্তিপূর্ণ করতে পারে। কমিশনের সেদিকে দৃষ্টি দিয়ে পরবর্তী ধাপগুলোর নির্বাচন করা উচিত।’



সরকারের সমালোচনা করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির এ সদস্য বলেন, ‘দেশে আকাশসম দুর্নীতি। ধনী-গরিবের ব্যবধান পাহাড়সম। সর্বত্র লুটপাট চলছে। সরকারি ব্যাংকগুলোতে হরিলুট চলছে। বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ লুট হয়ে গেছে। অথচ এই ঘটনায় এখানো কেউ ধরা পড়লো না। এটি লজ্জার বিষয়।’



এ প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, ‘দেশের ব্যাংকিংখাত ধ্বংস হয়ে গেছে। বেসরকারি ব্যাংকের মোটামুটি অবস্থা থাকলেও সরকারি ব্যাংকগুলোতে লুটপাটের কর্মযজ্ঞ চলছে। আকাশছোয়া দুর্নীতিতে অর্থনীতি ধ্বংসের দুয়ারে। এভাবে একটি রাষ্ট্র চলতে পারে না।’



তিনি বলেন, ‘তেলের দাম কমছে। সুতরাং অবিলম্বে বিদ্যুতের দামও কমানো দরকার।’



জেনারেল মাহবুব বলেন, ‘স্বাধীনতার ৪৫ বছর পরও দেশে গণতন্ত্র নেই। তাই রাজনৈতিক শূন্যতা তৈরি হয়েছে। দেশে রাজনীতি, অর্থনীতি ও সামাজিক ক্ষেত্রসহ সর্বত্র সঙ্কট চলছে। এ থেকে বের হয়ে আসতে হবে। আমরা নতুন বছরে নতুন বাংলাদেশ দেখতে চাই। যারা জীবন দিয়ে, স্বপ্ন নিয়ে স্বাধীনতা অর্জন করেছিলেন, তাদের সে স্বপ্নকে বাস্তবায়ন করতে হবে।’



জাতীয়তাবাদী সাংস্কৃতিক দলের সাধারণ সম্পাদক হুমায়ুন কবির ব্যাপারীর সভাপতিত্বে এতে আরো বক্তব্য রাখেন, জাগপা সভাপতি শফিউল আলম প্রধান, বাংলাদেশ জাতীয় দল চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট সৈয়দ এহসানুল হুদা, বাংলাদেশ ন্যাপ যুগ্ম মহাসচিব স্বপন কুমার সাহা, জাসাসের সহ-সভাপতি বাবুল আহমেদ, জিনাফের সভাপতি মিয়া মো. আনোয়ার হোসেন, জাতীয়তাবাদী দেশ বাঁচাও মানুষ বাঁচাও আন্দোলনের সভাপতি কেএম রকিবুল ইসলাম রিপন, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ ওলামা দলের সাধারণ সম্পাদক ক্বারী রফিকুল ইসলাম, এনডিপির প্রচার সম্পাদক রাজু আহম্মেদ, সাবেক ছাত্রদল নেতা সরদার মো. নুরুজ্জামান প্রমুখ।

 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৪৬৪৭৩৩
পুরোন সংখ্যা