চাঁদপুর। রোববার ৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮। ২২ মাঘ ১৪২৪। ১৭ জমাদিউল আউয়াল ১৪৩৯
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • --
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৩৪-সূরা সাবা

৫৪ আয়াত, ৬ রুকু, মক্কী

পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।

৪৭। বলুন, আমি তোমাদের কাছে কোনো পারিশ্রমিক চাই না বরং তা তোমরাই রাখো। আমার পুরস্কার তো আল্লাহর কাছে রয়েছে। প্রত্যেক বস্তুই তাঁর সামনে।

৪৮। বলুন, আমার পালনকর্তা সত্য দ্বীন অবতরণ করেছেন। তিনি আলেমুল গায়েব।

দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


যারা আত্মপ্রশংসা করে খোদা তাদের ঘৃণা করে।                        

-সেন্ট ক্লিমেন্ট।


কাউকে অভিশাপ দেওয়া সত্যপরায়ণ ব্যক্তির উচিত নয়।


ফটো গ্যালারি
ফেসবুকে আকর্ষণ ধরে রাখার পাঁচ উপায়
প্রযুক্তিকণ্ঠ ডেস্ক
০৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


অনেকেই আছেন যাঁরা ফেসবুকে আর মজা পান না। হারিয়ে ফেলেছেন আকর্ষণ। এর কারণ হতে পারে ফেসবুকের নিউজফিডে আকর্ষণীয় ফিড আসা বন্ধ হয়ে যাওয়া। অনেকের ফেসবুক নিউজফিডে এমন সব বিরক্তিকর পোস্ট আসে যাতে তিনি ফেসবুক বিমুখ হয়ে পড়েন। তাই ফেসবুকের নিউজ ফিডে আকর্ষণ ধরে রাখা জরুরি। নিউজফিড পরিস্কার করতে কয়েকটি টুল দিয়ে রেখেছে ফেসবুক। যে পোস্টগুলো ফেসবুকে আপনি দেখতে চান না তা সহজেই সরিয়ে দিতে পারেন। ফেসবুক মোবাইল অ্যাপের এই পরামর্শগুলো কাজে লাগাতে পারে।



স্নুজ বাটন



একই ব্যক্তির কাছ থেকে বারবার বিরক্তিকর পোস্ট আসা ঠেকাতে পারে স্নুজ বাটন। কারও পোস্ট যদি কিছুদিনের জন্য থামিয়ে রাখতে চান তবে তার জন্যে স্নুজ বাটন কাজে লাগানো যায়। ফেসবুকের নতুন স্নুজ ফিচার ব্যবহার করে কোনো ব্যক্তিকে বন্ধু তালিকা থেকে বাদ না দিয়েও তার পোস্ট ৩০ দিনের জন্য নিউজফিডে দেখানো বন্ধ করার সুযোগ আছে স্নুজে। বন্ধু, ব্র্যান্ড, গ্রুপের পোস্টের পাশে ট্রিপল-ডট বাটন চেপে স্নুজ অপশন নির্বাচন করলেই এক মাসের জন্য বিরক্তি থেকে মুক্তি।



পোস্ট হাইড



কারও পোস্ট যদি নিউজ ফিডে রাখতে চান কিন্তু যতোটা সম্ভব কম দেখার ইচ্ছা পোষণ করেন তবে ফেসবুক সে সুযোগ রেখেছে। পোস্টের পাশে ট্রিপল-ডট বাটনে চাপ দিয়ে হাইড পোস্ট করে দিতে হবে। এতে ওই পোস্টটি লুকানো যাবে। এ ছাড়া ওই ব্যক্তির পোস্ট এরপর থেকে নিউজ ফিডে কম দেখাবে।



আনফলো করা



ফেসবুকে কারও ওপর বেশি বিরক্ত? বিরক্তি থাকলেও যদি বন্ধু তালিকা থেকে বাদ দিতে না চান তবে আনফলো করে দিতে পারেন। এতে বন্ধু থাকবেন ঠিকই কিন্তু তার কোনো পোস্ট নিউজফিডে আর দেখবেন না। ওই ব্যক্তির পোস্টে ট্রিপল-ডট বাটন চেপে আনফলো অপশন ঠিক করে দিন। আপনি যে তাকে আনফলো করেছেন তা তিনি জানতেও পারবেন না।



বস্নক বা আনফ্রেন্ড করা



কাউকে বন্ধু তালিকা থেকে বাদ দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়াটা কঠিন। কিন্তু অনেক সময় এ ধরনের সিদ্ধান্ত নেয়ার দরকার পড়ে। যদি ফেসবুকে কাউকে বন্ধু তালিকা থেকে বাদ দিতে চান তাদের প্রোফাইল পেজে যান সেখানে ছোট ডাউন অ্যারো বাটন চেপে বস্নক করে দিন। কাউকে বস্নক করা হলে তিনি বন্ধু তালিকা থেকে বাদ চলে যাবেন। ফলে তার কোনো পোস্ট দেখবেন না। এ ছাড়া তিনি আর কোনো পোস্টে আপনাকে ট্যাগ করতে পারবেন না। বস্নক করা হলে আপনার ওই বন্ধুর কাছে নোটিফিকেশন যাবে না। তবে তাঁর বন্ধু তালিকায় আপনাকে আর দেখাবে না।



অভিযোগ দিন



অনেক সময় আপত্তিকর পোস্টে আপনার নিউজ ফিড ভরে যেতে পারে। এ ধরনের পোস্টের বিরুদ্ধে ফেসবুকে অভিযোগ জানাতে পারেন। ওই পোস্টের পাশে ট্রিপল ডট চেপে গিভ ফিডব্যাক অন দিস পোস্টে যেতে পারেন। সেখানে পোস্ট সম্পর্কে আপনার বক্তব্য জানাতে পারবেন। ফেসবুকের পক্ষ থেকে ওই পোস্ট কেন আপত্তিকর তার কতগুলো অপশন দেখানো হবে। এরমধ্যে রয়েছে ভায়োলেন্স, হ্যারাসমেন্ট, সুইসাইড বা সেলফ ইনজুরি, হেট স্পিচ বা অন্যান্য। ফেসবুকের পক্ষ থেকে অভিযোগ পর্যালোচনা করে দেখা হয়। ফেসবুকের কমিউনিটি মানের সঙ্গে না গেলে তা সরিয়ে ফেলা হয়। অভিযোগদাতার নাম ও তথ্য গোপন রাখে ফেসবুক।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৬৮৮৭৯
পুরোন সংখ্যা