চাঁদপুর। শনিবার ১৮ মার্চ ২০১৭। ৪ চৈত্র ১৪২৩। ১৮ জমাদিউস সানি ১৪৩৮
ckdf

বিজ্ঞাপন দিন

সর্বশেষ খবর :

  • হাজীগঞ্জে বসতঘর আগুনে পুড়ে ছাই || স্বাগতিক চাঁদপুরের কাছে ১ গোলে হেরেছে কুমিল্লা জেলা দল || শহরের নাজির পাড়ায় মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতাসহ সাইনবোর্ডে নাম মুছে দিয়েছে দুবৃর্ত্তরা || চাঁদপুর কলেজে অনুমতি ছাড়া ইশা ছাত্র আন্দোলন সম্মেলন ॥ আটক ২
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২৭-সূরা নাম্ল 


৯৩ আয়াত, ৭ রুকু, ‘মক্কী’


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৫১। অতএব দেখ, উহাদের চক্রান্তের পরিণাম কী হইয়াছে-আমি অবশ্যই উহাদিগকে ও উহাদের সম্প্রদায়ের সকলকে ধ্বংস করিয়াছি। 


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


যে ব্যক্তি সিদ্ধান্ত গ্রহণে নিজস্ব সত্তাকে কাজে লাগায় না সে জীবনে উন্নতি করতে পারে না।   


                        -ডেভিড হিউম।


যে অন্ন হস্ত পরিচালনা দ্বারা উপার্জিত, তদপেক্ষা উৎকৃষ্ট অন্ন আর কেউ ভোজন করতে পারে না।   


 

ফটো গ্যালারি
শ্রাবন্তীর কাছে পত্র
কবির হোসেন মিজি
১৮ মার্চ, ২০১৭ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+

পত্রের প্রথমে তোমাকে জানাই আমার অন্তরের অন্তর্স্থল থেকে, পৃথিবীর একপ্রান্ত হতে আরেক প্রান্তে দাঁড়িয়ে আমার হৃদয়ের অফুরন্ত ভালোবাসা। জানি না কেমন আছো, ভালো থাকো প্রতিটি মুহূর্ত এটাই আমার একান্ত কাম্য। আর আমি কেমন আছি? তা তুমি জানতে না চাইলেও বলবো আমাকে তুমি যতোটা ভালো থাকার মতো ব্যবহার করেছো ঠিক ততোটাই ভালো আছি।

শ্রাবন্তী মানুষ যে কতোটা নিষ্ঠুর এবং হৃদয়হীনা হতে পারে তা আমার জানা ছিলো না। কিন্তু তুমি আমার সাথে যে ছলনার প্রেম প্রেম খেলা খেলেছো তাতে কিছুটা হলেও বুঝতে পারছি মানুষ কতোটা হৃদয়হীনা হতে পারে। যে তুমি কিনা একদিন ভালোবাসার হাত বাড়িয়ে দিয়ে আমাকে প্রেম নিবেদন করেছো, আর তোমার সেই ভালোবাসাকে স্বর্গ জেনে বুকের গহীনে ঠাই দিয়েছি খুব যতনে। তারপর থেকে দিনের পর দিন, রাতের পর রাত ঘণ্টায় ঘণ্টায় মুঠোফোনে কত না ভালোবাসার কথা হতো, দু'জনের মাঝে। আমি বলতাম আমাদের এ ভালোবাসাটুকু সব সময় থাকবে তো শ্রাবন্তী? তুমি বলতে কেনো শ্রাবণ, আমি তোমাকে বলতাম কারণ তুমি যে নারী তাই। কারণ নারীরা যে ছলনাময়ী হয়। তাদের গলার নিচে হার নেই। অতি সহজেই সবকিছু ভুলে যায় তারা। তুমি বলতে সব নারীরা এক নয়। তোমার যে কথার রেশ ধরে বলতাম ঠিক আছে সময়ই একদিন সবকিছু বলে দেবে কে ভালো আর কে মন্দ। প্রতিদিন কথার শেষ বিদায়ে তোমার দু ঠোঁটের ছোট্ট একটা ফুলছোঁয়া প্রজাপতির পরশ এঁকে দিতে আমার কপালে। আমিও তোমার ভালোবাসায় মুগ্ধ হয়ে সেই সুখের ছোঁয়া দিতাম তোমার কপালে। এভাবেই প্রতিদিন ভালোবাসার মধুর কথায় কথায় কেটে যেতো আমাদের সময়। শ্রাবন্তী তোমার কি একবারও মনে পড়ে না ভালোবাসার সেই সুখের দিনগুলোর কথা? তোমার দেয়া সেই মিথ্যে প্রতিশ্রুতির কথা কি একবারও তোমার বিবেককে নাড়া দেয় না? আমি তো আজো তোমার দেয়া সব প্রতিশ্রুতি এবং ভালোবাসার মুহূর্তগুলো বুকে অাঁকড়ে ধরে আছি। তোমার সেই অভিমানী চোখের জলের ভেতর ভালোবাসার পুরানো স্মৃতির চিহ্ন দেখতে পাই। আমাকে আজো ক্ষণে ক্ষণে দোলা দিয়ে যায় তোমার সেই ভালোবাসার স্মৃতিগুলো। শ্রাবন্তী বিশ্বাস করো প্রতিদিন যখন বাড়ি ফিরি তখন সেই পথের স্থানটুকু আমাকে বার বার তোমার কথা মনে করিয়ে দেয়, যেখানে দাঁড়িয়ে প্রতিদিন তোমার সাথে মুঠোফোনে কথা হতো, তুমি বারান্দায় দাঁড়িয়ে আমার পানে তাকিয়ে মুদু হেসে তোমার আবেগময় ভালোবাসার কথাগুলো বলতে। আজ সে স্থান দিয়ে যাওয়ার পথে শুধু একটা দীর্ঘশ্বাস ছাড়া আমার কিছুই করার থাকে না।

শ্রাবন্তী এত সহজেই তুমি বদলে গেছো, বদলে গেছে তোমার মন। এত সহজেই ভুলে গেছো সেই গানের কথাগুলো যে গানটি তুমি প্রায়ই শুনতে একদিন যদি চলে যাই তারাদের চেয়েও আরো দূরে। ভেবো না মিছে আছি আমি চেনা কোনো গানের সুরে...।

আজ হয়তো বা কোনো আবেগী গানের সুরেও তোমাকে আমার কথা মনে করিয়ে দেয়নি। আমাকে খুঁজে বেড়াও না, তাইতো এতো পাষাণীর মতো ভুলে আছো আমাকে। আজ হয়তো নতুন কোনো ভালোবাসার সন্ধানে ভুলে গেছো আমায়, ভুলে গেছো আমার প্রেম ভালোবাসার কথা। কেনো এভাবে হঠাৎ আমার ভালোবাসার কাছ থেকে নিজেকে আড়াল করে নিলে কিছুই বুঝতে পারি না। কী এমন দোষ ছিলো আমার ভালোবাসায় একবার যদি তা বলতে তাহলে হয়তো প্রতিদিন হাজারো প্রশ্নের মুখোমুখি হতে হতো না জ্বলতে হবে না বিরহের আগুনে। বিশ্বাস করো শ্রাবন্তী যখন তোমার দেয়া সেই সুখের মুহূর্তগুলো ভাবি, তখন যন্ত্রণা আমাকে কুরে কুরে খায়। আমি দারুণ ব্যথায় ব্যথিত হই। শ্রাবন্তী একবার শুধু একবার ভেবে দেখতো আমাদের ভালোবাসার সেই সুখের দিনগুলোর কথা যেখানে প্রেম ছিলো, ভালোবাসা ছিলো, দু'জনার দুটি চোখ জুড়ে ছিলো কত না ভালোবাসার রঙ্গিন স্বপ্ন ভেঙ্গে গিয়ে অঝরে তোমার বিরহের অশ্রু । তবুও মনে হয় আমি অনেক সুখী, অনেক ভাগ্যবান। কারণ এই বিরহের মাঝেও যে আমি চিরসুখী। তুমি যেখানেই থাকো ভালো থেকো, সুখে থেকো। অনেক অনেক সুখী হও নতুন কোনো ভালোবাসার মানুষকে নিয়ে। যদি বেঁচে থাকি হয়তো ভুল করে দেখা হতে পারে দু'জনের সেদিন আমাকে ভালোবাসতে না পারলেও আরো বেশি ঘৃণা ছুঁড়ে দিও।

আজকের পাঠকসংখ্যা
৪১৭৮৩৫
পুরোন সংখ্যা