চাঁদপুর। শনিবার ৩ জুন ২০১৭। ২০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৪। ৭ রমজান ১৪৩৮

বিজ্ঞাপন দিন

বিজ্ঞাপন দিন

সর্বশেষ খবর :

  • -
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২৮-সূরা কাসাস 


৮৮ আয়াত, ৯ রুকু, ‘মক্কী’


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৪২। এই পৃথিবীতে আমি উহাদের পশ্চাতে লাগাইয়া দিয়াছি অভিসম্পত এবং কিয়ামতের দিন উহারা হইবে ঘৃণিত। ৪৩। আমি তো পূর্ববর্তী বহু মানবগোষ্ঠীকে বিনাশ করিবার পর মূসাকে দিয়াছিলাম পথনির্দেশ ও অনুগ্রহস্বরূপ, যাহাতে উহারা উপদেশ গ্রহণ করে। 


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 


দারিদ্র্যই পরিবেশ দূষণের প্রধান কারণ।                      


 -ইন্দিরা।


পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা ঈমানের অঙ্গ।


 

ফল-ফুলের মধুমাস
আলম শামস
০৩ জুন, ২০১৭ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+

মজাদার ফল ও বাহারি ফুলের পসরা নিয়ে হাজির মধুমাস। রসালো ফলের মৌ মৌ গন্ধে উতলা এখন প্রকৃতি। চারদিক এখন পাকা ফলের সৌরভে মাতোয়ারা। মিষ্টি ফলের রসে টইটম্বুর মধুমাস। মধুমাস বলতে জ্যৈষ্ঠ মাসকে বুঝালেও বৈশাখ, জ্যৈষ্ঠ ও আষাঢ় মাস জুড়ে মধুমাসের আমেজ বিরাজ করে। গাছে গাছে রসালো পাকা কাঁঠালের সুগন্ধ। গাঢ় সবুজ আমের শরীরে সিঁদুরের ছোপ। পেকে ওঠা লিচুর লোভে লিচুগাছ ঘিরে দিনে পাখি আর রাতে বাদুড়ের কোলাহল। পাকা জামের মধুর রসে মুখ রঙিন করার স্বপ্নদোলা। জাম-জামরুল-লিচু, আনারস, করমচা, আতা, তরমুজ, ফুটি, বাঙ্গি, বেল, খেজুর, কাঁচা তাল, জাম্বুরা, কাউফল, গোলাপজাম, কামরাঙা, লটকনসহ হরেক ফলের স্বাদে বাঙালির রসনা তৃপ্তির মৌসুম। বাহারি আর পুষ্টিকর সব ফলের প্রাচুর্য এই মৌসুমকে দিয়েছে মধুমাসের মহিমা। মধুমাস জ্যৈষ্ঠ আসার আগেই রস টসটস বর্ণিল রঙের ফলে ছেয়ে গেছে বাজারগুলো। শহর বন্দর, নগর কিংবা গ্রামের হাটবাজারে এখন মিষ্টি ফলের ম ম ঘ্রাণ।

গ্রীষ্মের প্রচ- খরতাপে অতিষ্ঠ তৃষ্ণার্ত বাংলার মানুষের প্রাণ জুড়ায় মধুমাসের রসালো ফল। প্রকৃতির উদার দান এই সুস্বাদু ফলের সম্ভার। এ সময় গাছে গাছে দোল খায় পাকা আম ও লিচু, যা দেখে মন ভরে যায়। শুধু ফল-ফলারি নয়ত্মকৃষ্ণচূড়া, রাধাচূড়া লাল বর্ণের ফুল ও কনকচূড়া, হলুদচূড়া এবং মাধবীজবা বলে দেয় জ্যৈষ্ঠ এসেছে। ফলের সঙ্গে ফুলের সমারোহে প্রকৃতি সেজে ওঠে এক অন্যরকম সাজে। প্রাণ জুড়াতে বৈশাখেই চলে আসে তরমুজ, বাঙ্গি, বেল, জামরুল, শসা আর কাঁচা আমের শরবত। সারা বছরের মধ্যে এ মাসেই রসালো আম ও লিচুর স্বাদ পাওয়া যায়। ফলের রাজা আমও আসে রাজকীয় হালে। কত নামের বাহারি আম তার শেষ নেই। সব মিলিয়ে সাত-আটশ' জাতের আম রয়েছে।

মধুমাস শুরু হলেও বনেদি ফল আম আর লিচুর স্বাদ পেতে আরো কিছুদিন রসনা সংযত করতে হবে। এবার আবহাওয়া অনুকূল থাকায় গাছ ভরে মুকুল এলেও পরবর্তীতে আবহাওয়া বদলে যাওয়ায় গুটি ও ফলন ভালো হয়নি। এর মধ্যে প্রচ- দাবদাহ আরো খানিকটা ক্ষতি করেছে। গরমে ঝরে পড়ার কারণে নানা জাতের কাঁচা আম মানুষের রসনা মেটাচ্ছে। আম ডাল কিংবা ছোট মাছের সাথে আমের কুচি জিভে পানি নিয়ে আসে। কাঁচা আম আর বিট লবণ দিয়ে বরফ কুচি মিশিয়ে বানানো শরবতের কথা কি ভোলা যায়। সারা বছর আমের স্বাদ নেবার জন্য কাঁচা আম দিয়ে আচার বানানো শুরু হয়ে গেছে। ইতোমধ্যে বাজারে এসেছে লিচু। এখন বাজারে সবুজ গোলাপি আভার যে লিচু বিক্রি হচ্ছে তা টক-মিষ্টি স্বাদের স্থানীয় জাতের লিচু।

জাতীয় ফল কাঁঠাল হলেও ফলের রাজা আম। আমাদের দেশে আম খুবই জনপ্রিয়, সুস্বাদু ও মজাদার ফল। দেশের প্রায় সকল অঞ্চলেই আম পাওয়া যায়।

মধু মাস এলেই মনে পড়ে যায় পল্লীকবি জসীম উদ্দীনের সেই বিখ্যাত ছড়াটি 'আয় ছেলেরা আয় মেয়েরা/ ফুল তুলিতে যাই/ ফুলের মালা গলায় দিয়ে/মামার বাড়ি যাই/ ঝড়ের দিনে মামার দেশে/ আম কুড়াতে সুখ/ পাকা জামের মধুর রসে/ রঙিন করি মুখ।'

আজকের পাঠকসংখ্যা
১৫৮৬০২
পুরোন সংখ্যা