চাঁদপুর। মঙ্গলবার ১১ জুলাই ২০১৭। ২৭ আষাঢ় ১৪২৪। ১৬ শাওয়াল ১৪৩৮

বিজ্ঞাপন দিন

বিজ্ঞাপন দিন

সর্বশেষ খবর :

  • ---------
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

২৮-সূরা কাসাস 


৮৮ আয়াত, ৯ রুকু, ‘মক্কী’


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৮০। এবং যাহাদিগকে জ্ঞান দেওয়া হইয়াছিল তাহারা বলিল, ‘ধিক তোমাদিগকে! যাহারা ঈমান আনে ও সৎকর্ম করে তাহাদের জন্য আল্লাহর পুরস্কারই শ্রেষ্ঠ এবং ধৈর্যশীল ব্যতীত ইহা কেহ পাইবে না।  


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 


ঘৃণার আয়ু লম্বা আর বিষাক্ত                                          


                                  -কৃষণ চন্দর।


 


যারা পয়গম্বরদের (নবীদের) কবর পূজা করে, তারা অভিশপ্ত হউক। 


 

ফটো গ্যালারি
পায়ের যত্নে ব্যায়াম
চৌধুরী ইয়াসিন ইকরাম
১১ জুলাই, ২০১৭ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+

শরীর ঠিক রাখার জন্য আজকাল অনেকেই ব্যায়াম করে। কিন্তু তাদের ব্যায়ামের বেশির ভাগই থাকে শরীরের ওপরের অংশের। শরীরের নিচের অংশ অর্থাৎ পায়েরও যে ব্যায়ামের প্রয়োজন আছে, তা অনেকেই মানতে চায় না। অথচ শরীরের ভারসাম্য ধরে রাখার জন্য পা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে চলেছে। আর তাই অন্য অঙ্গের সঙ্গে পায়ের ব্যায়ামও জরুরি। পায়ের বেশ কয়েকটি ব্যায়াম রয়েছে।

পিস্তল স্কোয়াট : পায়ের চর্চায় এটি অন্যতম সেরা ব্যায়াম। প্রথমে চোখের কাছাকাছি বা একটু বেশি উচ্চতায় থাকা কোনো রড বা শক্ত কিছু ধরে বসতে শুরু করতে হবে। এমনভাবে বসতে হবে, যাতে একটি পা ভাঁজ হয় আর অন্য পা সামনে বসা অবস্থায় অনেকটা পিস্তলের মতো দেখায় বলে এটিকে পিস্তল স্কোয়াট বলা হয়। কিছু সময় অপেক্ষা করে আবার আগের অবস্থায় ফিরতে হবে। এভাবে কয়েকবার বসার পর পা বদলে নিতে হবে। শরীরের নমনীয়তা ভালো হলে কোনো কিছুর সহায়তা ছাড়া এই ব্যায়াম করা যায়।

গ্লুট হ্যাম রাইজ : এ অনুশীলনটি করতে প্রথমে হাঁটু গেড়ে বসতে হবে। কাউকে পেছন থেকে আপনাকে চেপে রাখতে বলতে হবে অথবা বেঞ্চের ফুটপ্লেটে পা আটকে রাখলেও চলবে। হাত দুটি বুকের কাছে রেখে সামনের দিকে ঝুঁকে পড়তে হবে। খেয়াল রাখতে হবে এ সময় যেন কাঁধ, কোমর ও হাঁটু সব একই সরলরেখায় থাকে।এবার গ্লুট ও হ্যামস্ট্রিং ব্যবহার করে সোজা হতে হবে। কয়েকবার এমন করে একটু বিশ্রাম নেয়া যেতে পারে।

বুলগেরিয়ান স্পিলিট স্কোয়াট : একটি এঙ্ারসাইজ বেঞ্চের দিকে পেছন ফিরে দাঁড়াতে হবে। এবার একটি পা বেঞ্চের ওপর রেখে অন্য পায়ের ওপর শরীরের ভর রাখতে হবে। কাঁধ থেকে নিতম্ব পর্যন্ত যতটা সম্ভব সোজা রাখুন। এবার হাঁটু দুটি এমনভাবে বাঁকাতে হবে, যেন সামনের পায়ে ৯০ ডিগ্রি কোণ উৎপন্ন হয়। স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে এসে আবার হাঁটু বাঁকাতে হবে। এভাবে কয়েকবার করার পর পা বদল করে নিতে হবে। এ অনুশীলনের সময় ডাম্বেল বা বারবেল ব্যবহার করা যেতে পারে।

সূত্র- অনলাইন..

আজকের পাঠকসংখ্যা
৬০৮০২৮
পুরোন সংখ্যা