চাঁদপুর। মঙ্গলবার ১৪ নভেম্বর ২০১৭। ৩০ কার্তিক ১৪২৪। ২৪ সফর ১৪৩৯

বিজ্ঞাপন দিন

বিজ্ঞাপন দিন

সর্বশেষ খবর :

  • ---------
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৩১-সূরা লোকমান


৩৪ আয়াত, ৪ রুকু, ‘মক্কী’


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু  আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


৩৪। কিয়ামতের জ্ঞান কেবল আল্লাহর নিকট রহিয়াছে, তিনি বৃষ্টি বর্ষণ করেন এবং তিনি জানেন যাহা গর্ভাশয়ে আছে। কেহ জানে না আগামীকাল সে কি অর্জন করিবে এবং কেহ জানে না কোন স্থানে তাহার মৃত্যু ঘটিবে। নিশ্চয়ই আল্লাহ্ সর্বজ্ঞ, সর্ববিষয়ে অবহিত।


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 

অতিরিক্ত ঔষধ রোগ বৃদ্ধি করে।  -ভার্জিল।


মায়ের পদতলে সন্তানদের বেহেশত।


চাঁদপুর স্টেডিয়ামে ৩য় ক্রীড়া মাসের উদ্বোধন হচ্ছে ১৭ নভেম্বর
চৌধুরী ইয়াসিন ইকরাম
১৪ নভেম্বর, ২০১৭ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+

ক্রীড়ায় বিকশিত হোক তারুণ্য এই সস্নোগানকে সামনে রেখে ৩য় বারের মতো জেলা শহরে ১৭ নভেম্বর শুরু হচ্ছে ক্রীড়া মাস । চাঁদপুর স্টেডিয়ামে ১৩টি ইভেন্টের মধ্য দিয়ে ফের পর্দা উঠবে ক্রীড়া মাসের। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন বাংলাদেশ কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি ও সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী ও চাঁদপুর-৩ আসনের সাসংদ ডাঃ দীপু মনি। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন জেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি ও জেলা প্রশাসক মোঃ আব্দুস সবুর মন্ডল। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন চাঁদপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি ও পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার পিপিএম, চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জাতীয় পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ সমবায়ী আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল।

১৭ নভেম্বর বিকেলে প্রদর্শনী ফুটবল ম্যাচের উদ্বোধন দিয়ে ক্রীড়া মাসের আনুষ্ঠানিকতা ঘোষণা করা হবে । ওই দিনই এক সাথে সকল ইভেন্টের উদ্বোধন ঘোষণা করা হলেও প্রতিটি ইভেন্টের খেলা আলাদা আলাদা ভাবে শুরু হবে । জেলা ক্রীড়া সংস্থা সূত্রে জানা যায় ৩য় আসরের প্রথম ইভেন্টটি শুরু হবে ভাষাবীর এম এ ওয়াদুদ মেমোরিয়াল ট্রাস্ট ক্লাব কাপ ফুটবল আয়োজনের মধ্য দিয়ে। এরপর চাঁদপুর স্টেডিয়াম এবং চাঁদপুর ক্লাবের ভিন্ন ভিন্ন ভেন্যুতে অন্য খেলাগুলো হবে ।

এবারের ক্রীড়া মাসের ইভেন্টগুলো হচ্ছে : ফুটবল, ক্রিকেট, সাঁতার, হ্যান্ডবল, অ্যাথলেট, স্নুকার, ব্যাডমিন্টন, বাস্কেটবল, টেবিলটেনিস, লন টেনিস, ভলিবল, কাবাডি, ও কেরাম।

জেলা ক্রীড়া সংস্থার পক্ষ থেকে ক্রীড়ামাস পালনকল্পে ১৩টি ইভেন্টের জন্য আলাদা আলাদা উপ-কমিটি গঠন করেছে । ক্লাব কাপ ফুটবল উপ-কমিটির আহ্বায়ক চাঁদপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি ও পুলিশ সুপার শামসুন্নাহার পিপিএম, সদস্য সচিব জেলা ক্রীড়া সংস্থার ফুটবল উপ-কমিটির সম্পাদক শাহির হোসেন পাটওয়ারী। সাঁতার উপ-পরিষদের আহ্বায়ক চাঁদপুর জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও চাঁদপুর পৌরসভার মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদ, সদস্য সচিব চাঁদপুর সাঁতার পরিষদের সভাপতি ও চাঁদপুর কণ্ঠের প্রধান সম্পাদক রোটাঃ কাজী শাহাদাত। ক্রিকেট উপ-কমিটির আহবায়ক অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক আয়েশা আক্তার, সদস্য সচিব জেলা ক্রীড়া সংস্থার ক্রিকেট উপ-কমিটির সম্পাদক অ্যাডঃ জাহিদুল ইসলাম রোমান । স্নুকার চ্যাম্পিয়নশীপ উপ-কমিটির আহবায়ক জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার সহ-সভাপতি আবু নইম পাটওয়ারী দুলাল ও সদস্য সচিব জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা বাবু। ব্যাডমিন্টন উপ-কমিটির আহ্বায়ক আলহাজ্ব ওচমান গনি পাটওয়ারী ও সদস্য সচিব সুভাষ চন্দ্র রায়। বাস্কেটবল উপ-কমিটির আহ্বায়ক ডাঃ এসএম সহিদ উল্লাহ ও সদস্য সচিব মুক্তিযোদ্ধা হানিফ পাটওয়ারী। টেবিল টেনিস উপ-কমিটির আহ্বায়ক আবু নাছের পাটওয়ারী বাচ্চু ও সদস্য সচিব গোলাম মোস্তফা বাবু। লনটেনিস উপ-কমিটির আহ্বায়ক মোহাম্মদ আলী জিন্নাহ ও সদস্য সচিব শরীফ মোহাম্মদ আশ্ররাফুল হক। ভলিবল উপকমিটির আহ্বায়ক আবুল কাশেম আখন্দ ও সদস্য সচিব ছানাউল্লাহ খান । কেরাম উপ-কমিটির আহবায়ক ডাঃ মিজানুর রহমান ও সদস্য সচিব তমাল কুমার ঘোষ । কাবাডি উপকমিটির আহ্বায়ক আলহাজ্ব ওমর পাটওয়ারী ও সদস্য সচিব শাহজাহান তালুকদার সাহা এবং হ্যান্ডবল উপ-কমিটির আহ্বায়ক সালাউদ্দিন শান্ত এবং সদস্য সচিব স্বপন কুমার সাহা।

চট্টগ্রাম বিভাগে চাঁদপুর জেলায় প্রথম এ ক্রীড়া মাসের ঘোষণা দিয়েছিলেন সাবেক চট্টগ্রাম বিভাগীয় কমিশনার মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ । ২০১৫ সালে চাঁদপুর স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেচ্ছা মুজিব গোল্ডকাপ ফুটবলের প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ফাইনাল খেলার পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে চাঁদপুরে ক্রীড়ামাস পালন করার ঘোষণা প্রদান করেন তিনি। এ ঘোষণার আগে বিভাগীয় কমিশনারের কাছে জেলা ক্রীড়া সংস্থার কয়েকজন কর্মকর্তা দাবি করেছিলেন যে চাঁদপুরে যেনো বিভাগীয় কমিশনার গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়। প্রেক্ষিতেই তিনি ঘোষণা দিয়েছিলেন যে চাঁদপুরের ক্রীড়ামোদী মানুষের জন্য প্রতিবছরই আয়োজন করা হবে ক্রীড়া মাস। মাঠে উপস্থিত হিলশা অব চাঁদপুরের রূপকার বর্তমান জেলা প্রশাসক মোঃ আব্দুস সবুর মন্ডল বিষয়টি লুফে নেন। চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক মোঃ আব্দুস সবুর মন্ডলের ঐকান্তিক প্রচেষ্টা ও জেলা ক্রীড়াসংস্থার এবং চাঁদপুর ক্লাবের কর্মকর্তাদের পরিশ্রমসহ অংশ নেয়া ক্লাবগুলোর আন্তরিকতায় সফলভাবে শেষ হয় প্রথমবারের ক্রীড়া মাস ।

জেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে প্রথমবার অনুষ্ঠিত ক্রীড়া মাসের উপ-কমিটিগুলো খেলা শুরু হওয়ার আগে সভার আয়োজন করে সবকিছু প্রস্তুত করে রেখেছিলেন । এরপর থেকেই ওই কমিটির নেতৃবৃন্দদের দিয়েই ক্রীড়া মাসের কার্যক্রম চালাতে দেখা যাচ্ছে। জেলা ক্রীড়া সংস্থার পক্ষ থেকে ইতিমধ্যে ভাষাবীর এম এ ওয়াদুদ মেমোরিয়ান ট্রাস্ট ক্লাব কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের শুরু হওয়া আগেই জেলা ও উপজেলার স্থানীয় বিভিন্ন ফুটবলারদের নিয়ে বাছাই কার্যক্রম সম্পন্ন করা হবে। বাছাইকৃত খেলোয়াড়দেরকে অংশ নেয়া দলগুলোর মধ্যে বন্টন করে দেয়া হয়েছে।

ক্লাব কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের বাছাই সম্বন্ধে জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা বাবুর সাথে আলাপকালে তিনি জানান, এ সপ্তাহেই এবারের বাছাই কার্যক্রম সকল ক্লাবের কর্মকর্তাদের উপস্থিতিতে বাছাই করা হয়েছে । যে সমস্ত স্থানীয় খেলোয়াড় বাছাই করা হয়েছে ওই সমস্ত খেলোয়াড়রাই পুরো টুর্নামেন্টে খেলবেন।

জেলা ক্রীড়া সংস্থার ফুটবল উপ-কমিটির সেক্রেটারী আলহাজ্ব শাহির হোসেন পাটওয়ারীর সাথে আলাপকালে তিনি জানান, ক্লাব কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের জন্য আমরা ইতিমধ্যে সফলভাবে দলগুলোর জন্য খেলোয়াড় বাছাই করার জন্য সময় নির্ধারণ করে দিয়েছি। আমাদের মূল লক্ষ্য হচ্ছে সুন্দরভাবে ভাষাবীর এম এ ওয়াদুদ মেমোরিয়াল ট্রাস্ট ক্লাব কাপ ফুটবল টুর্নামেন্টকে সফলভাবে শেষ করা ।

উল্লেখ্য, গতবার অংশ নেয়া ক্লাবগুলো হচ্ছে : মোহামেডান স্পোটিং ক্লাব, আবাহনী ক্রীড়া চক্র, ভাই ভাই স্পোটিং ক্লাব, নাজির পাড়া ক্রীড়া চক্র, বিষ্ণুদী ক্লাব, গুয়াখোলা ক্রীড়া চক্র, পূর্ব শ্রীরামদী ক্লাব, নতুন বাজার ক্রীড়া চক্র, ব্রাদার্স ইউনিয়ন ক্লাব ও চাঁদপুর ক্রিকেট একাডেমী। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে প্রথম ও ২য় বার অংশ নেয়া অনেক ফুটবল দল এবার তাদের আর্থিক সমস্যা দেখিয়ে অংশগ্রহণ করছেন না। ক্রীড়ামোদীদের প্রশ্ন তারা কি ইচ্ছা করেই অংশগ্রহণ করছেনা না অন্য কিছু।

আজকের পাঠকসংখ্যা
৫২২১১৫
পুরোন সংখ্যা