চাঁদপুর। মঙ্গলবার ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮। ২৭ ভাদ্র ১৪২৫। ৩০ জিলহজ ১৪৩৯
redcricent
jibon dip

সর্বশেষ খবর :

  • --
হেরার আলো
বাণী চিরন্তন
আল-হাদিস

৪১-সূরা হা-মীম আস্সাজদাহ,


৫৪ আয়াত, ৬ রুকু, মক্কী


পরম করুণাময় ও অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে শুরু করছি।


 


১৮। আমি উদ্ধার করলাম তাদেরকে যারা ঈমান এনেছিল এবং যারা তাকওয়া অবলম্বন করতো।


১৯। যেদিন আল্লাহর শত্রুদেরকে জাহান্নাম অভিমুখে সমবেত করা হবে সেদিন তাদেরকে তাড়িয়ে নিয়ে যাওয়া হবে বিভিন্ন দলে।


২০। পরিশেষে যখন তারা জাহান্নামের সনি্নকটে পেঁৗছবে তখন তাদের কর্ণ, চক্ষু ও ত্বক (চামড়া) তাদের কৃতকর্ম সম্বন্ধে সাক্ষ্য দিবে।


দয়া করে এই অংশটুকু হেফাজত করুন


 


 


চমৎকার একটা নাম জীবনে কৃতিত্ব বৃহন করে না।


-আব্রাহাম কাত্তলি।


 


 


ঝগড়াটে ব্যক্তি আল্লাহর নিকট অধিক ক্রোধের পাত্র।


 


 


 


 


ফটো গ্যালারি
কবে হবে প্রিমিয়ার ক্রিকেট লীগের সুপার ফোরের খেলা?
চৌধুরী ইয়াসিন ইকরাম
১১ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ০০:০০:০০
প্রিন্টঅ-অ+


চাঁদপুর স্টেডিয়ামে ঈদুল আযহার পর শুরু হবে প্রিমিয়ার ক্রিকেট লীগের সুপার ফোরের খেলা-এমনটি জানা গিয়েছিলো। তবে কবে যে প্রিমিয়ার ক্রিকেট লীগের সুপার ফোরের খেলা শুরু হবে এবং এই খেলা শেষ হবে কেউই এই উত্তর দিচ্ছে না। গত ২/৩ বছর আগে চাঁদপুর জেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে ও জেলা ক্রীড়া সংস্থার ক্রিকেট উপ-কমিটির ব্যবস্থাপনায় প্রিমিয়ার ক্রিকেট লীগ অনুষ্ঠিত হয়। লীগ পদ্ধতির এ খেলায় অংশ নিয়েছিলো জেলা ক্রীড়া সংস্থার অন্তর্ভুক্ত ৮টি ক্লাব। ক্লাবগুলো ছিলো আবাহনী ক্রীড়া চক্র, চাঁদপুর ক্রিকেট একাডেমী, চাঁদপুর ক্রিকেট কোচিং সেন্টার, শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র, পাইওনিয়ার ক্লাব, উদয়ন ক্লাব, অঙ্গনা এস এস ক্রীড়া চক্র ও ইয়ুথ ক্লাব। লীগ পদ্ধতির এ খেলায় ৪টি দল হেরে গেলেও বাকি ৪টি দল সুপার ফোরে উঠেছে। দলগুলো হলো আবাহনী ক্রীড়া চক্র, শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র, পাইওনিয়ার ক্লাব ও চাঁদপুর ক্রিকেট একাডেমী।



চাঁদপুর স্টেডিয়ামে অক্টোবরে শুরু হচ্ছে ২য় বিভাগ ক্রিকেট লীগ। আর এই লীগের পরপরই জেলা ক্রীড়া সংস্থার ক্রিকেট উপ-কমিটির ব্যবস্থাপনায় পুরানো প্রিমিয়ার ক্রিকেট লীগের খেলাগুলো যদি অনুষ্ঠিত হয় তবে হবে, আর না হলে এই ৪ দলের খেলা আদৌ হবে কিনা খোদ ক্রিকেট দর্শকদের মাঝ থেকে শুরু করে অংশ নেয়া ক্লাবগুলোর কর্মকর্তাদের মধ্যেই গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে।



এর আগে জেলা ক্রীড়া সংস্থা সূত্রে জানা গিয়েছিলো, এই লীগে যেই দলের পয়েন্ট বেশি হবে সেই দলই প্রিমিয়ার লীগের চ্যাম্পিয়ন দল হিসেবে শিরোপা নিবে। তবে এই ক্ষেত্রে সব দলই শক্তিশালী দল হিসেবে মাঠে নামবে। এর মধ্যে কিছু খেলোয়াড় দেশের বাইরে কিংবা অন্যত্র চলে গেছেন। জেলা ক্রীড়া সংস্থা সূত্রে জানা গেছে, প্রিমিয়ার ক্রিকেট লীগের সুপার ফোরের ৪টি দল নতুন করে খেলোয়াড় নেয়ার জন্যে সুযোগ পাবে। এর মধ্যে লীগে অংশ নেয়া দলগুলোর মধ্যে যে সমস্ত ক্রিকেটার খেলার সুযোগ পায়নি, তাদের মাঝখান থেকে ৩ জন ক্রিকেটার বাছাই করে যে কোনো দলই মাঠে নামতে পারবে।



আবাহনী ক্রীড়া চক্রের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডঃ জাহিদুল ইসলাম রোমানের সাথে সুপার ফোরে তার দলের খেলা সম্বন্ধে জানতে চাইলে তিনি বলেন, আবাহনী গত কয়েক বছর ধরে ফুটবল ও ক্রিকেট খেলাসহ যে কোনো খেলাতেই দর্শকদের আনন্দ দিয়ে শিরোপা জয় করেছে। আমরা প্রতিবারই জেলা ক্রীড়া সংস্থার আয়োজনে যে কোনো টুর্নামেন্টে অংশ নিয়ে থাকি। দর্শকদের চাহিদা মতোই আমরা দল গঠন করে থাকি। আশা করি অন্যান্য বছরের চেয়ে আমাদের আবাহনী দল প্রিমিয়ার ক্রিকেট লীগে শিরোপা জয় করে ক্রীড়ামোদী দর্শকদের মন জয় করে নিবে। আবাহনী ক্রীড়া চক্র যে কোনো খেলাধুলার প্রতিযোগিতায় অনেক দলের চেয়ে ইনশাল্লাহ এগিয়ে রয়েছে।



জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক গোলাম মোস্তফা বাবুর সাথে গত শনিবার আলাপকালে তিনি বলেন, আশা করি ২য় বিভাগ ক্রিকেট লীগের পরই এ খেলাগুলো আমরা শুরু করবো। খেলা হবে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, অবশ্যই খেলা মাঠে গড়াবে। এক্ষেত্রে অংশ নেয়া ক্লাবগুলোর কর্মকর্তা ও খেলোয়াড়দের সহযোগিতা কামনা করছি। সুপার ফোরের খেলায় যেই দলের পয়েন্ট বেশি হবে সেই দলকেই চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করা হবে।



চাঁদপুর ক্রিকেট একাডেমীর কর্ণধার সৈয়দ শামীম আক্তার ফারুকীর সাথে মুঠোফোনে আলাপকালে তিনি বলেন, প্রতিটি দলই ভালো মানের খেলায়াড় নিয়ে দল গঠন করে মাঠে নামার চেষ্টা করবে। তবে এর মধ্যে কথা হলো সুপার ফোরে ওঠা কয়েকটি দলের ক'জন খেলোয়াড় হয়তো খেলতে পারবে না। অবশ্য নতুন করে ৩ জন ক্রিকেটার নিতে পারবে প্রতিটি দল। আশা করি সুপার ফোরের খেলাগুলো অনেক সুন্দর হবে। আমি অনুরোধ করবো, চাঁদপুরের ক্রীড়ামোদী দর্শকরা মাঠে এসে খেলোয়াড়দেরকে উৎসাহ দিবেন।



জেলা ক্রীড়া সংস্থার ক্রিকেট উপ-কমিটির সম্পাদক ও আবাহনী ক্রীড়া চক্রের সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ মোতালেব হোসেনের সাথে এর আগে গত মাসে এ লীগের ব্যাপারে মুঠোফোনে আলাপকালে তিনি জানিয়েছিলেন, ইনশাল্লাহ ঈদের পরই আমরা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লীগের খেলা শুরু করবো। কিন্তু ঈদ শেষ হয়েছে অনেক দিন হলেও গত শনিবার রাতে লীগের ব্যাপারে তার মুঠোফোনে কয়েকবার ফোন করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।



সুপার ফোরে ওঠা বিভিন্ন দলের ক্রিকেটারদের সাথে গত শনি ও রবিবার আলাপকালে তারা জানান, আসলে সুপার ফোরের খেলা আদৌ শুরু কিনা এটা এখন দেখার বিষয়। প্রতি বছরই শোনা যায় যে, ক্রিকেট লীগ হচ্ছে তো, এটা-ওইটা হচ্ছে, পরবর্তীতে যেনো কী কারণে সেটা বন্ধ হয়ে যায়। যেদিন মাঠে খেলা গড়াবে সেদিন বলতে পারবো যে, সুপার ফোরের খেলা অবশেষে শুরু হলো। আপনি যে আমাদেরকে বলছেন, প্রিমিয়ার ক্রিকেট লীগের খেলা ও খেলা সম্বন্ধে, আসলে এ খেলা চাঁদপুর স্টেডিয়ামে হবে কিনা এটা তো এখন দেখার বিষয়।



 


আজকের পাঠকসংখ্যা
৭৪৪১৬
পুরোন সংখ্যা